Alexa সেরা ৭৬ কলেজের নাম প্রকাশ

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৬ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ২ ১৪২৬,   ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪০

সেরা ৭৬ কলেজের নাম প্রকাশ

এহসানুল হাবিব ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:৩২ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৯:১২ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ পারফরমেন্স র‌্যাংকিং এ জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সেরা ৭৬টি কলেজের নাম প্রকাশ করা হয়েছে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চোখে সেরা ৫ কলেজ হচ্ছে রাজশাহী কলেজ,  বরিশালের সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজ, বগুড়ার সরকারি আজিজুল হক কলেজ, পাবনার সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ, ও রংপুরের কারমাইকেল কলেজ।  

সোমবার সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ এ তালিকা প্রকাশ করেন।  

বিভিন্ন ক্যাটাগরিভুক্ত সেরা নির্বাচিত এসব কলেজকে ২ মার্চ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সম্মাননা প্রদান ও পুরস্কৃত করা হবে। এ অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি প্রধান অতিথি থাকবেন।

গাজীপুরের নিজ কার্যালয়ে ডাকা সংবাদ সম্মেলনে উপাচার্য বলেন, ২০১৫ খ্রিস্টাব্দ থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত স্নাতক (সম্মান) কলেজ  সমূহের ৩১টি কেপিআই এর ভিত্তিতে বার্ষিক পারফরমেন্স র‌্যাংকিং করে আসছি। এর ধারাবাহিকতায় কলেজ শিক্ষার মানোন্নয়ন বিষয়ের প্রতি দৃষ্টি রেখে ২০১৭ খ্রিস্টাব্দের জন্য প্রাথমিক পর্যায়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ৭১৮টি স্নাতক (সম্মান) পাঠদানকারী কলেজের পারফরমেন্স র‌্যাংকিং-এর উদ্যোগ  নেয়া হয়। ৩১টি কেপিআই অনুযায়ী অন-লাইনে তথ্য চাওয়া হয় কলেজগুলোর কাছে।  মোট ৩৫৪ টি কলেজের আবেদন পাওয়া যায়। এর মধ্যে প্রাথমিক বাছাই শেষে ১৮৯ কলেজকে র‌্যাংকিং-এর বিবেচনার যোগ্য ঘোষণা করা হয়। একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি চূড়ান্তভাবে কলেজ র‌্যাংকিং-এর কাজটি সম্পাদন করে। 

ড. হারুন-অর-রশিদ বলেন, তালিকাভুক্ত কলেজসমূহের মধ্য থেকে জাতীয়ভিত্তিক স্কোরের ভিত্তিতে প্রথম ৫ (পাঁচ)টি সেরা কলেজ নির্বাচন করা হয়। তালিকাভুক্ত কলেজসমূহের মধ্য থেকে জাতীয়ভিত্তিক সর্বোচ্চ স্কোর অর্জনকারী ১ টি মহিলা কলেজ নির্বাচন করা হয়েছে। তালিকাভুক্ত কলেজসমূহের মধ্য থেকে জাতীয়ভিত্তিক সর্বোচ্চ স্কোর অর্জনকারী ১টি সরকারি কলেজ নির্বাচন; তালিকাভুক্ত কলেজসমূহের মধ্য থেকে জাতীয়ভিত্তিক সর্বোচ্চ স্কোর অর্জনকারী ১টি বেসরকারি কলেজ নির্বাচন, ৮টি অঞ্চলভিত্তিক তালিকাভুক্ত কলেজের মধ্য থেকে প্রতিটি অঞ্চলের জন্য সরকারি-বেসরকারি নির্বিশেষে স্কোর অনুযায়ী সর্বোচ্চ সেরা ১০ (দশ)টি কলেজ করে মোট ৮০টি কলেজ নির্বাচন করা হয়। নীতিমালার আলোকে সেরা কলেজসমূহের বিভাজন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ময়মনসিংহ, সিলেট ও বরিশাল অঞ্চলে কম সংখ্যক কলেজ র‌্যাংকিং প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করায়/কাক্ষিত স্কোর না পাওয়ায় সেখানে আঞ্চলিক ক্যাটাগরিতে ১০ (দশ)টির কম করে কলেজ নির্বাচিত হয়েছে।

ঢাকা অঞ্চলে ঢাকা কমার্স কলেজ, ঢাকা (বেসরকারি), ৬১ দশমিক ৮৪,সরকারি সা‘দত কলেজ, টাঙ্গাইল, ৬১দশমিক৭৮, তেজগাঁও কলেজ, ঢাকা, (বেসরকারি) ৫৯.৮৯, সিদ্ধেশ্বরী ডিগ্রি কলেজ, ঢাকা, (বেসরকারি) ৫৯.৬৪,  লালমাটিয়া মহিলা কলেজ, ঢাকা (বেসরকারি), ৫৯.১০, সিদ্ধেশ^রী গার্লস কলেজ, ঢাকা (বেসরকারি), ৫৯.০৪,সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ, ফরিদপুর, ৫৮.৫০, সরকারি গুরুদয়াল কলেজ, ৫৮.৩৮, হাবিবুল্লাহ বাহার কলেজ, ঢাকা, (বেসরকারি), ৫৭.৯৩,আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, ঢাকা (বেসরকারি), ৫৬.৮৩।

চট্টগ্রাম অঞ্চল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ, কুমিল্লা, ৬২দশমিক ৪৬, ফেনী সরকারি কলেজ, ফেনী, ৬০.০৩, চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ, চট্টগ্রাম, ৫৯.৯৪, সরকারি সিটি কলেজ, চট্টগ্রাম, ৫৭.২৭, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া সরকারি কলেজ, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া, ৫৬.০০, নোয়াখালী সরকারি কলেজ, নোয়াখালী, ৫৪.৫৬, হাটহাজারী কলেজ, চট্টগ্রাম, ৫৪.৪১, সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসীন কলেজ, চট্টগ্রাম, ৫৩.৫২, চট্টগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজ, চট্টগ্রাম, ৫৩.০১, চাঁদপুর সরকারি কলেজ, চাঁদপুর, ৫২.৩৪।

রাজশাহী অঞ্চল রাজশাহী কলেজ, রাজশাহী, ৭২দশমিক৯৬, সরকারি আজিজুল হক কলেজ, বগুড়া, ৬৬.১১, সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ, পাবনা, ৬৫.৯৬, ভবানীগঞ্জ কলেজ, রাজশাহী, ৫৬.৮৪,সৈয়দ আহমদ কলেজ, সুখানপুর, বগুড়া (বেসরকারি), ৫৩.৭২, হাজী ওয়াহেদ মরিয়ম কলেজ, সিরাজগঞ্জ ( বেসরকারি), ৫৩.২৪,সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজ, সিরাজগঞ্জ, ৫২.৯৫, দাওকান্দি কলেজ, রাজশাহী, ৫২.৬৩, রাজশাহী কোর্ট কলেজ, রাজশাহী, (বেসরকারি), ৫১.৯০, এন. এস. সরকারি কলেজ, নাটের, ৫০.৭৮।

খুলনা অঞ্চলে সরকারি ব্রজলাল (বিএল) কলেজ, খুলনা, ৬৩.২১, সরকারি এম এম কলেজ, যশোর, ৬১.৫৮, কুষ্টিয়া সরকারি মহিলা কলেজ, কুষ্টিয়া, ৬১.১৫, সীমান্ত আদর্শ কলেজ, সাতক্ষীরা, ( বেসরকারি), ৫৭.০৭, যশোর ক্যান্টমেন্ট কলেজ, যশোর, (বেসরকারি), ৫৫.৭৭, ঝিকরগাছা মহিলা কলেজ, যশোর, (বেসরকারি), ৫৫.৫৫, এম.এস. জোহা ডিগ্রি কলেজ, আলমডাঙ্গা, (বেসরকারি),  ৫২.৩১,কুমিরা মহিলা ডিগ্রি কলেজ, সাতক্ষীরা (বেসরকারি), ৫১.৮১, খানজাহান আলী আদর্শ কলেজ, খুলনা, (বেসরকারি), ৫১.৬২, যশোর সরকারি মহিলা কলেজ, যশোর, ৫১.৫৮।

বরিশাল অঞ্চলে সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজ, বরিশাল, ৬৬.১৫,সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজ, বরিশাল, ৫১.২৪, সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ, পিরোজপুর, ৪৫.৪৮, ভোলা সরকারি কলেজ, ভোলা, ৪৪.৮৬,

সিলেট অঞ্চলে এম সি কলেজ, সিলেট, ৫৯.৫১,দক্ষিণ সুরমা কলেজ, সিলেট, ৫৩.৫১, মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ, মৌলভীবাজার, ৫২.৪৩, বৃন্দাবন সরকারি কলেজ, হবিগঞ্জ, ৫২.১১, সরকারি মহিলা কলেজ, সিলেট, ৫০.৩৬, মদনমোহন কলেজ, সিলেট, ৪৯.৭৯, সরকারি শ্রীমঙ্গল কলেজ, মৌলভীবাজার, ৪৮.৫৫।

রংপুর অঞ্চলে কারমাইকেল কলেজ, রংপুর, ৬৫.৭৯, দিনাজপুর সরকারি কলেজ, দিনাজপুর, ৬০.২৮, রংপুর সরকারি কলেজ, রংপুর, ৫৮.৫২, উত্তরবাংলা কলেজ, কাকিনা, লালমনিরহাট (বেসরকারি), ৫৭.০২, হাতিবান্ধা আলিমুদ্দিন কলেজ, লালমনিরহাট, ৫৫.৬০, সরকারি বেগম রোকেয়া কলেজ, রংপুর, ৫৪.৯৩,কুড়িগ্রাম সরকারি কলেজ, কুড়িগ্রাম, ৫১.৪৪, লালমনিরহাট সরকারি কলেজ, লালমনিরহাট, ৫০.৫৬, গাইবান্ধা সরকারি কলেজ, গাইবান্ধা, ৫০.২৭, কে বি এম কলেজ, দিনাজপুর, (বেসরকারি), ৪৯.১৬।

ময়মনসিংহ অঞ্চলে সরকারি আনন্দমোহন কলেজ, ময়মনসিংহ, ৬৪.৬৮,জাহানারা লতিফ মহিলা কলেজ, ময়মনসিংহ (বেসরকারি), ৫৫.০৩, মুমিনুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, ময়মনসিংহ, ৫২.২১, ইসলামপুর কলেজ, জামালপুর, ৫১.৩৫, নেত্রকোনা সরকারি কলেজ, নেত্রকোনা, ৪৯.১৪, শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ, মুক্তাগাছা, ময়মনসিংহ, ৪৯.০৭, কৃষ্ণপুর হাজী আলী আকবর পাবলিক কলেজ, ময়মনসিংহ, (বেসরকারি), ৪৮.৪৫।

মডেল কলেজের তালিকায় থাকা প্রতিষ্ঠানগুলো:

ঢাকা কমার্স কলেজ, ঢাকা, সিদ্ধেশ্বরী গালর্স কলেজ, ঢাকা, উত্তর বাংলা কলেজ, লালমনিরহাট, দৌলতপুর কলেজ, কুষ্টিয়া এবং রফিকুল ইসলাম ওমেনস্ কলেজ, কিশোরগঞ্জ।  

সংবাদ সম্মেলনে উপাচার্য বলেন, পর্যায়ক্রমে মডেল কলেজের এ সংখ্যা বৃদ্ধি হবে। মডেল কলেজ হিসেবে নির্বাচিত কলেজগুলোকে বিভিন্ন প্রণোদনা দেয়া হবে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। প্রণোদনার মধ্যে রয়েছে, প্রতি বিষয়ে শ্রেষ্ঠ ফল অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান (২য় বর্ষ থেকে ৪র্থ বর্ষ),তথ্য-প্রযুক্তিগত উন্নয়নে কলেজকে আর্থিক সহায়তা, গ্রন্থাগারের জন্য মানসম্পন্ন পাঠ্যপুস্তক সরবরাহ ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন গ্রন্থ সরবরাহ, শিক্ষক প্রশিক্ষণে অগ্রাধিকার, সায়েন্স ল্যাব উন্নয়নে আর্থিক সহায়তা, বিষয় অধিভুক্তির ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার এবং সার্টিফিকেশন অব অ্যাওয়ার্ড দেয়া হবে।

উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ বলেন, কলেজ শিক্ষার গুণগতমান বৃদ্ধি, শিক্ষার সার্বিক উন্নয়ন ও স্ব স্ব কলেজকে একটি আদর্শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উন্নীতকরণের লক্ষ্যে প্রথমবারের মতো ‘মডেল কলেজ’ নামে একটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে এটি অবকাঠামো ও অন্যান্য দিক দিয়ে পিছিয়ে থাকা বেসরকারি কলেজের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে। মোট ৮৯টি বেসরকারি কলেজ অনলাইনে আবেদন করে। আবেদন থেকে স্কোরের ভিত্তিতে ২০টি বেসরকারি কলেজকে প্রাথমিকভাবে নির্বাচন করা হয়। এসব কলেজকে মডেল কলেজ নীতিমালার স্বল্প মেয়াদী, মধ্য মেয়াদী ও দীর্ঘ মেয়াদী টার্গেট পূরণ করার জন্য সুযোগ দেয়া হয়। কলেজ কর্তৃক অনলাইনে প্রদত্ত তথ্যাবলি যাচাই-বাছাই, স্বল্প মেয়াদী শর্তপূরণ এবং সরেজমিনে পরিদর্শনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরিদর্শন টিম পাঠানো হয়। পরিদর্শকদের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে এবং কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৫টি কলেজকে প্রাক-মডেল কলেজের তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু, অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান,  রেজিস্ট্রার মোল্লা মাহফুজ আল-হোসেন, স্নাতকপূর্বক শিক্ষা বিষয়ক স্কুল দপ্তরের ডিন প্রফেসর ড. মো. নাসির উদ্দীন, ডিন প্রফেসর ড. মো আনোয়ার হোসেন - পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও পরিচালক, জনসংযোগ তথ্য ও পরামর্শ দপ্তর এবং পরিচালক তথ্য ও প্রযুক্তি আইসিটি দপ্তর ও অন্যান্য কর্মকর্তারা।

 ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ