.ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৮ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ৫ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪০

সেতু আছে, সড়ক নেই

 প্রকাশিত: ১৫:৩৪ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৬:০৭ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

এলাকাবাসীর কোনো কাজেই আসছে না সুনামগঞ্জের মাঠিয়ান হাওরের অপরিকল্পিত একটি সেতু। প্রায় ৩১লাখ টাকা ব্যয়ে সড়ক নির্মাণ না করেই প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস করেছে পুকুর।

উপজেলা পিআইও কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৭-১৮অর্থ বছরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে উপজেলার মাটিয়ান হাওরের মধ্যে একটি খালে সেতু নির্মাণ করা হয়। যা তাহিরপুরের গাজীপুর হতে জামালগড় পার্শ্ববর্তী তাহিরপুর-বাদাঘাট এলজিইডি সড়ক পর্যন্ত ডুবন্ত সড়কের সংযোগ ঘটাবে।

২০১৮ সালের মে মাসে ৪০ফুট দৈর্ঘের সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করেন উপজেলা পিআইও। যার ব্যয় ধরা হয় ৩০ লাখ ৯০ হাজার টাকা।

গাজিপুর গ্রাম থেকে তাহিরপুর-বাদাঘাট ডুবন্ত সড়কের দূরত্ব দুই কিলোমিটার। ডুবন্ত এই সড়ক চলাচল উপযোগী করে নির্মাণ না হওয়া পর্যন্ত সেতুটি কোনো কাজে আসবে না। সড়ক নির্মাণ না করে সেতুটি কেন নির্মাণ করা হল তা কারো বোধগম্য হচ্ছে না। সেতু নির্মণের অর্থ সড়ক নির্মাণ কাজে ব্যয় করা হলে সঠিক হত। 

গাজীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নেহার রঞ্জন দাস বলেন, সংযোগ সড়ক নির্মাণ করে সেতুটি তৈরি করা হলে ভাল হত। সড়কেই সঠিকভাবে তৈরি হয়নি। সেতুটি নির্মাণ করেও মানুষের কোন কাজে আসছে না।

তাহিরপুর সদর ইউপি চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন বলেন, সংযোগ সড়ক না থাকায় সেতুটি মানুষের কোনো উপকারে লাগছে না। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য সড়কটি নির্মাণ হলে সেতুটি গ্রামবাসীর কাজে লাগবে। 

তাহিরপুর উপজেলা পিআইওর উপ সহকারী প্রকৌশলী সুব্রত দাস বলেন, সড়ক না থাকায় ব্রিজটি অপ্রয়োজনীয় মনে হচ্ছে। সড়ক তৈরি করা হলে গুরুত্বপূর্ণ হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসকে