সেই কিশোরীকে বিয়ে করল ধর্ষক

ঢাকা, সোমবার   ১৭ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৫ ১৪২৬,   ১২ শাওয়াল ১৪৪০

সেই কিশোরীকে বিয়ে করল ধর্ষক

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ২০:০৮ ১২ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ০৭:২০ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা সেই কিশোরীকে বিয়ে করলো ধর্ষক সোহেল মিয়া। 

শুক্রবার রাতে গৌরীপুর থানায় ১০ লাখ টাকা দেন মোহর ধার্য করে রেজিস্ট্রি কাবিনমূলে উভয় পরিবারের সম্মতিতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। 

এ উপজেলার হাটশিরা গ্রামের ইউসূফ আলীর ছেলে সোহেল মিয়া গত রোজার মাসে সেই কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এতে সে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় কয়েকবার দেন-দরবার করা হলেও সোহেলের পরিবার ওই কিশোরীকে ঘরে তুলে নিতে রাজি হননি। 

ঘটনাটি ডেইলি বাংলাদেশে প্রকাশিত হলে গৌরীপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুনের নজরে আসে। পরে শুক্রবার রাতে ধর্ষক যুবক সোহেলকে আটক করে থানায় এনে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন আব্দুল্লাহ আল মামুন। এসময় ধর্ষণের কথা স্বীকার করে সোহেল ওই কিশোরীকে বিয়ে করার প্রস্তাব দেন। এতে ধর্ষক ও ধর্ষিত কিশোরী পরিবার রাজি হয়ে আব্দুল্লাহ আল মামুনকে বিয়ে সম্পন্ন করার অনুরোধ করেন।

অবশেষে উভয় পক্ষের সম্মতিতে থানায় কাজী ডেকে এনে ১০ লাখ টাকার দেন মোহর ধার্য করে রেজিস্ট্রি কাবিনমূলে তাদের বিয়ে সম্পন্ন করা হয়।

গৌরীপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এমন প্রশংসনীয় উদ্যোগের জন্য স্থানীয় লোকজন গৌরীপুর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুনকে আন্তরিক অভিনন্দন ও সাধুবাদ জানিয়েছেন। 

আরো পড়ুন: ধর্ষিত কিশোরী সাত মাসের অন্তঃস্বত্তা!

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ