সুবীর নন্দীকে বিদেশে নেয়ার পরামর্শ 

ঢাকা, শনিবার   ২৫ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৬,   ১৯ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

সুবীর নন্দীকে বিদেশে নেয়ার পরামর্শ 

বিনোদন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৪৭ ১৮ এপ্রিল ২০১৯   আপডেট: ১৯:১৪ ১৮ এপ্রিল ২০১৯

সুবীর নন্দী। ফাইল ছবি

সুবীর নন্দী। ফাইল ছবি

দেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দীর শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে কিছুটা উন্নতির দিকে। তবে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত বিদেশে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে সুবীর নন্দীর চিকিৎসার জন্য সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) গঠিত বোর্ড পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে এ পরামর্শ দেন বলে নিশ্চিত করেন আইএসপিআরের সহকারী পরিচালক রাশেদুল আলম খান।

এদিকে, সুবীর নন্দীর পরিবারের ঘনিষ্ঠজন তৃপ্তি কর বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা থেকে চিকিৎসকরা উনাকে (সুবীর নন্দী) পর্যবেক্ষণ করেন। তারা লম্বা সময় বৈঠক করেন। এরপর বলেন, রোগীর অবস্থা উন্নতির দিকে। কিডনি, ব্লাডপ্রেসার, ডায়াবেটিস এখন স্বাভাবিক পর্যায়ে আছে। তবে হার্টের অবস্থা বেশ ক্রিটিকাল। হার্টের চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর পরামর্শ দেন তারা।

অভিনেত্রী উর্মিলা শ্রাবন্তী করের মা তৃপ্তি কর। সুবীর নন্দীর বিষয়ে তিনি আরো জানান, বৃহস্পতিবার সকালে সুবীর নন্দীর লাইফ সাপোর্টের বিভিন্ন অংশ খুলে লম্বা সময় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন হাসপাতালের চিকিৎসকরা। পরে আবারো লাইফ সাপোর্টেই রাখা হয়েছে। কারণ তার হার্টের অবস্থা বেশ নাজুক।

এদিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেয়ার বিষয়ে সুবীর নন্দীর এই স্বজন বলেন, এই হাসপাতালে আরো দুই থেকে তিনদিন রাখতে হবে। অবস্থার আরেকটু উন্নতি হলেই বিদেশে নেয়ার কথা বলেছেন চিকিৎসকরা। তাছাড়া বিদেশে যাওয়ার বিষয়টা তো সহজ কথা নয়। এখানে প্রস্তুতি আর অর্থের বিষয়ও আছে। অবসরে যাওয়া একজন ব্যাংকারের (সুবীর নন্দী) কাছে কত টাকাই বা থাকতে পারে? তার ওপর মানুষটা কতটা সৎ আর সরল- সেটাও তো সবারই জানা। তবে আমাদের বিশ্বাস একটা ব্যবস্থা হয়ে যাবে। আমার বিশ্বাস, তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন শিগগিরই। আমরা সেই প্রার্থনাই করি।

একুশে পদক প্রাপ্ত সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দী দীর্ঘদিন ধরে কিডনি ও হার্টের সমস্যায় ভুগছিলেন। ১৪ এপ্রিল রাতে সিলেট থেকে ঢাকায় ফেরার পথে ট্রেনে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী ও কন্যা। রাতেই তাকে রাজধানীর সিএমএইচে নেয়া হয়। হাসপাতালটির জরুরি বিভাগে থাকতেই হার্ট অ্যাটাক করেন তিনি। এরপর তাকে দ্রুত লাইফ সাপোর্ট দেয়া হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ/জেডআর

Best Electronics