Exim Bank Ltd.
ঢাকা, সোমবার ২৩ জুলাই, ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫

সুন্দরবনে হারিয়ে যাচ্ছে ‘সুন্দরী’রা

নিয়াজ মাহমুদডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সুন্দরী গাছ, সুন্দরবনে প্রাপ্ত অতি দুর্লভ ম্যানগ্রোভ প্রজাতিগুলোর মধ্যে একটি, বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে আস্তে আস্তে নিঃশেষ এর পথে, মৃত্যু ঝুঁকি পূর্ণ প্রধান প্রধান রোগগুলিই বর্তমানে এই দুর্লভ প্রজাতির বিলুপ্তির অন্যতম প্রধান কারণ। আর এ কারণেই আশির দশক থেকে এ পর্যন্ত প্রায় পনেরো শতাংশ সুন্দরী গাছ ইতোমধ্যেই বিলীন হয়ে গেছে।

আচ্ছা দুর্লভ কেন বলা হচ্ছে!! সুন্দরবনে তো সুন্দরী গাছ সহজেই মেলে। প্রতিটি পরতে পরতে যেন সুন্দরী গাছ। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য যে এই গাছ ই নিকট ভবিষ্যতে হারিয়ে যাওয়া প্রজাতিতে নাম লেখাবে এমনটাই ধারণা করা হচ্ছে।

“গত ত্রিশ বছরে, প্রায় ২০০০ কোটি টাকা সমমূল্যের ১.৪৪ মিলিয়ন কিউবিক মিটার সুন্দরী গাছ, মৃত্যু ঝুঁকিপূর্ণ প্রধান রোগসমূহের আক্রমণ এর ফলে মহাকালের অতল গহ্বরে বিলীন হয়ে গেছে” বলছেন বিশ্লেষকেরা।

জলবায়ুর আচমকা ঘন ঘন পরিবর্তনের জন্য সুন্দরবনের পানি এবং মাটিতে সৃষ্ট ক্রমবর্ধমান লবণাক্ততাও সুন্দরী, পশুর এবং কেওড়া র মতো প্রজাতিগুলোর অতিদ্রুত হারিয়ে যাবার একটি বিশেষ কারণ।

সুন্দরীর জায়গায় এখন বেড়ে উঠছে গেওয়া এবং গরান। আর ইতোমধ্যেই প্রায় পঞ্চাশ শতাংশ নতুন জায়গায় নতুন করে প্রকৃতির মায়ায় বেড়ে উঠছে গেওয়া এবং গরান।

৬,০১৭ বর্গ কিলোমিটার জায়গার প্রায় ৪,১৪৩ বর্গ কিলোমিটার জায়গা জুড়েই এখন রাজত্ব করছে প্রায় ৩৩৪ প্রজাতির গাছ এবং উদ্ভিদসমূহ।

বিশ্লেষকদের মতে, ম্যানগ্রোভ বন এমন একটি বিশেষ বৈচিত্র্যমন্ডিত প্রাকৃতিক পরিবেশে গড়ে ওঠে যেখানে লবণাক্ত পানি এবং মিঠা পানির একটি সুষ্ঠু সমন্বয় বিরাজ করে। আর এই মিঠা আর লবণাক্ত তথা স্বাদু পানির সমন্বয়ে বা পরিমাণে গড়মিল দেখা যায়, তবে ধরেই নেয়া যায় যে, এতে ম্যানগ্রোভ বনের অপূরণীয় ক্ষতি সাধিত হবে। আর লবণাক্ত পানির পরিমাণের আধিক্য সুন্দরী গাছের জন্য হুমকি স্বরূপ, যা সুন্দরবনে বর্তমানে অবলোকন করা যাচ্ছে।

সুন্দরীর জন্য মৃত্যু ঝুঁকি সম্পন্ন প্রধান রোগসমূহের আক্রমণ, হার্ট রট বা হৃৎপিণ্ড বেসামাল রোগে পশুর, আর কেওরার ডাই ব্যাক রোগ অতি দ্রুত এই প্রজাতিগুলোর বিলুপ্তির পেছনে দায়ী।

সুন্দরবনের কম্পারট্মেন্ট নাম্বার ৬,১৪, ১৯, ২০,২১,২৫, ২৬,২৭, ২৮, ৩২, ৩৩,৩৬,৩৮ এবং ৩৯ এর গাছগুলো “টপ ডাইং“ এবং “হার্ট রট” রোগের আক্রমণের শিকার।

নিবন্ধিত পানি বা জল এর প্রভাব বিশ্লেষক আইনুন নিশাত বলছেন যে, ফারাক্কা বাধের প্রতিকূল প্রভাব এবং মিঠা পানির অভাবের কারণেই সুন্দরী গাছগুলো দিন দিন বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। আর বর্তমানে প্রায় ৮৫.৬৭ কোটি সুন্দরী গাছ বিলোপের পথে দিন গুনছে।

বাশিরুল আল মামুন, সুন্দরবনের পশ্চিম বিভাগীয় ফরেস্ট অফিসার , বলছেন যে, তারা পানিতে ৩০ পি পি এম লবণাক্ততার উপস্থিতি নিশ্চিত করেছেন, যা গাছগুলোর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দিচ্ছে।

ড. স্বপন সরকার, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বন ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তার একটি গবেষণা কর্মে উল্লেখ করেছেন যে, সুন্দরবনের বৈচিত্র্য তো সেই বহুকাল থেকেই তবে হঠাৎ ১৯৮৬ এর আচমকা যে পরিবর্তন শুরু হয়েছিল তা এখনো বিদ্যমান। তবে ২০১৪ সাল থেকে এখন আপাতত এক্টূ উন্নতিও চোখে পড়ছে ধীরে ধীরে। আর এ কারণেই হয়তো সুন্দরী, পশুর, সিংড়া, আমুর, ধুন্ধল আর কাকড়া গাছগুলো আজ বিলুপ্ত হয়ে যাবার ঝুকিতে আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ

আরও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
চার মাসের ‘গর্ভবতী’ বুবলী!
জাবির 'এইচ' ইউনিটের ফল প্রকাশ
বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভিসা সেন্টার এখন ঢাকায়
শাকিবের সঙ্গে বিয়ে, যা বললেন নায়িকা বুবলী
ক্যামেরায় সম্পূর্ণ নগ্ন হয়েছেন এই অভিনেত্রীরা, কারা এরা?
ভেঙে গেলো পূর্ণিমার সংসার, পাল্টা জবাবে যা বললেন নায়িকা
মায়ের জিন থেকেই শিশুর বুদ্ধি বিকশিত হয়!
বিদ্যুৎ বিল কমিয়ে নেয়ার কিছু টিপস
ব্যর্থ হলো মার্কিন ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী পরীক্ষা
এইচএসসি'র ফল জানা যাবে যেভাবে
ধর্ষণের কবলে মৌসুমী হামিদ, ধর্ষক গাড়িচালক!
চীনের মধ্যস্থতায় তথ্য আদান-প্রদানে সম্মত পাকিস্তান-আফগানিস্তান
বিশ্বকাপের সব গোল্ডেন বল জয়ীরা
গৌরিকে নিয়ে ভক্তের প্রশ্ন, উত্তর দিলেন শাহরুখ!
দেহব্যবসার জন্যেই নতুন বাড়িতে শাহিদ দম্পত্তি!
প্রায় ৬ হাজার বছর পূর্বের বিস্ময়কর প্রেম কাহিনী!
‘দর্শকরাই জানেন কখন দেবেন তালি, কখন গালি’
যেসব দেশে কোনো নদী নেই
মহান আল্লাহ তাআলা যাদের প্রতি সন্তুষ্ট
আমি বিশ্বের সেরা ক্লাবটিই বেছে নিয়েছি
শিরোনাম:
বিশেষ ক্ষমতা আইনের বিলুপ্ত ১৬ ধারায় মামলা না করতে পুলিশ প্রধানকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট নাশকতার মামলায় খালেদার জামিন আবেদন কুমিল্লার আদালতকে বৃহস্পতিবারের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ হাইকোর্টের কোটা ইস্যুতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সহিংসতার চার মামলা প্রতিবেদন ৫ সেপ্টেম্বর রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠক আজ ঢাকার চারদিকে হবে এলিভেটেড রিং রোড: প্রধানমন্ত্রী বন্ধ হয়ে গেলো বড়পুকুরিয়া বিদ্যুৎকেন্দ্র