Exim Bank Ltd.
ঢাকা, শনিবার ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১ পৌষ ১৪২৫

সীতাচরিত: আত্মসম্মানের অগ্নিপরীক্ষা

অনুরাধা চৌধুরীডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
সীতাচরিত: আত্মসম্মানের অগ্নিপরীক্ষা
ফাইল ছবি

যুগে যুগে নারীদের কতশত বাধা অতিক্রম করতে হয়েছে নিজেকে প্রমান করতে কত পরীক্ষা দিতে হয়েছে তার ইয়ত্তা নেই। আমরা বিভিন্ন ধর্মগ্রন্থের নারী চরিত্রদের দিকে তাকালেই খুব সহজে প্রমাণ পেয়ে যাই। আজ তেমনই একজন নারীর কথা বলবো। যিনি উৎসর্গীকরণ, আত্মবিসর্জন, সাহসীকতা, বিশুদ্ধতার প্রতীক। তার নাম সীতা।

মিথিলার রাজা ছিলেন জনক। তিনি পুত্রলাভের আশায় যজ্ঞ করার সিদ্ধান্ত নেন। যজ্ঞের সময় জমিতে লাঙল চালাতে গিয়ে লাঙলের রেখায় তিনি একটি কন্যাশিশুকে কুড়িয়ে পান। লাঙলের রেখাকে সীতা বলা হয়। তাই রাজা জনক কন্যার নাম রাখলেন সীতা। সেই থেকে সীতা হলেন ভূদেবী পৃথিবী ও রাজা জনকের পালিত কন্যা। সীতা বড় হতে থাকে। বিবাহযোগ্য সীতার জন্য জনক আয়োজন করে এক স্বয়ম্বর সভার। শিবের দেয়া উপহার ধনুক রাখা হয় সে সভায়। রাজার শর্ত অনুসারে যে এই ধনুকের গুণ টানতে পারবে তার সাথেই বিয়ে দেবেন সীতার। একে একে ব্যর্থ হতে থাকে উপস্থিত অতিথিরা। সেখানে উপস্থিত ছিলেন অযোধ্যার রাজা দশরথের পুত্র রাম। একমাত্র রামই পারলেন ধনুকটিকে গুণ পড়াতে। বেশ ধুমধামের সাথেই রামের সাথে বিয়ে হয় সীতার।

রাম সীতার বিয়ের প্রায় বারো বছর পরে দশরথের মনে ইচ্ছা জাগে বড় পুত্র রামকে রাজ্যের দায়িত্ব করে তিনি বিশ্রাম নেবেন। রাজ্যসভায় এই প্রস্তাব উত্থাপন করতেই সকলে সমর্থন করে। কিন্তু দ্বিতীয় পত্নী কৈকেয়ী তাঁর দাসী মন্থরার পরামর্শে দশরথের এক পূর্ব প্রতিজ্ঞা স্মরণ করিয়ে রামকে যৌবরাজ্যে অভিষিক্ত করতে বাধা দেন। শর্তানুসারে, ভরত রাজা হয় আর রাম চলে যায় চৌদ্দ বছরের বনবাসে। রামের সাথে বনবাসে সীতা যেতে চাইলে রাম তাকে বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতার কথা বলে নিষেধ করেন। কিন্তু সীতা তার স্বামীর সাথে যাবেনই। চৌদ্দ বছরের জন্য বনবাসে রওনা হলেন রাম, সীতা ও ভাই লক্ষ্মণ।

গোদাবরী নদীর তীরে পঞ্চবটী নামক বনে কুটির নির্মাণ করে বাস করতে থাকেন তারা। কাছেই থাকে রাবণের বিধব বোন সুর্পনখা। রামের ও লক্ষণ কে প্রণয় নিবেদন করে ব্যর্থ হয় সুর্পনখা। ক্রোধে অন্ধ হয়ে সে যায় সীতাকে ভক্ষণ করতে। কিন্তু লক্ষণ সুর্পুখার নাক কান কেটে দেয়। বোনের অপমানের প্রতিশোধ নিতে রাবণ সীতাকে হরণ করার সিদ্ধান্ত নেয়। রাবণ মায়াবী মারীচ নামক রাক্ষসের সাহায্য নেয়। স্বর্ণমৃগ সেজে সে সীতার দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

স্ত্রীর কথায় সেই স্বর্ণমৃগকে ধরতে যায় রাম। কিছুক্ষণ পরেই রামের কন্ঠস্বর নকল করে আর্তনাদ করে সেই মায়াবী মারীচ। সীতার মন অশান্ত হয়ে যায়। লক্ষ্মণ আশ্বস্ত করেন রাম অপরাজেয় ,তার ক্ষতি হবেনা। কিন্তু সীতা মানতে নারাজ। কুটিরের বাইরে গন্ডি কেটে সীতাকে সতর্ক করে দিয়ে লক্ষ্মণ বেরিয়ে যায় ভাইয়ের সন্ধানে। এরই সুযোগ খুঁজতে থাকে রাবণ। ঋষির ছদ্মবেশে সীতার কাছে ভিক্ষা চাইবার ছলে গন্ডির বাইরে বের করে আনেন সীতাকে। জোর করে সীতাকে উঠিয়ে নিয়ে যায় রাবণ। তা দেখে শকুন জটায়ু সীতাকে উদ্ধার করতে চাইলে গুরুতর আহত হয়ে ভূপাতিত হয় পাখিটি। লঙ্কায় অশোক বনে নিয়ে যায় সীতাকে।

শুরু হয় সীতার দুঃসহ অপেক্ষার সময় কবে রাম এসে এখান থেকে উদ্ধার করে নিয়ে যাবেন। সারাক্ষণ রাক্ষসদের পাহাড়ার মধ্যে থাকে সীতা। রাবণ সীতাকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে তা ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করে। এদিকে জটায়ুর মুখে ঘটনার বর্ণনা শুনে রাম ও লক্ষ্মণ চলেন সীতাকে উদ্ধার করতে। সাহায্য নেন হনুমানের। বিশাল সাগর পাড় হয়ে হনুমান রাবণের প্রাসাদে পৌঁছায়।লঙ্কা দগ্ধ করে তছনছ করে দেয় হনুমান। রামের আংটি দিয়ে সীতাকে ফিরিয়ে নিয়ে যেতে চাইলেন হনুমান। কিন্তু সীতার আত্মসম্মান বোধের পরিচয় পাওয়া যায় এখানে। তিনি হনুমান কে বলেন যাতে রাম যেন রাবণকে এই অপমানের শাস্তি দিয়ে সীতাকে এখান থেকে সসম্মনে নিয়ে যান।

রাম বানর সৈন্যদের সহায়তায় সমুদ্রের উপর সেঁতু নির্মাণ করে লঙ্কায় উপস্থিত হন। এই সময় রাবণের কনিষ্ঠ ভাই বিভীষণ রামের পক্ষে যোগ দেন। যুদ্ধে রাবণ বধ করে সীতাকে নিয়ে ফেরেন রাম। কিন্তু দীর্ঘদিন রাক্ষসপুরীতে থাকার কারণে সীতার সতীত্ব নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। সে প্রশ্নের জবাবে সীতা অগ্নিপরীক্ষা দিয়ে প্রমাণ করেন তিনি সতী।

এরপর কেটে যায় চৌদ্ধ বছরের বনবাস আর এক বছরের অজ্ঞাতবাস। সীতা ও লক্ষ্মণকে নিয়ে ফিরে আসেন রাম। ধুমধাম করে রাজ্য অভিষেক হয় রামের। কিন্তু অগ্নিপরীক্ষার পর ও রাজ্যে সীতাকে নিয়ে চলতে থাকে নানারকম মন্তব্য। স্বামীর সব কাজে সহযোগিতা করে রাজসুখ ত্যাগ করে সীতা বনবাসে চলে গেলেও সেকথা এড়িয়ে সকলেই তার সতীত্বের ব্যাপারে রটনা রটাতে থাকে। রাম সীতাকে নির্বাসনে পাঠায়। শুরু হয় সীতার জীবনের নতুন যুদ্ধ। আশ্রয় নেন ঋষি বাল্মীকির আশ্রমে। সেখানেই জন্ম তার দুই পুত্রের- লব ও কুশ। লব কুশকে তাদের পিতৃপরিচয় জানানো হয়না। বাল্মীকির কাছ থেকেই রামায়ণ গান শিখতে থাকে তারা।

এদিকে অশ্বমেধ যজ্ঞের আয়োজন করেন রাম। সেখানে ঋষি বাল্মীকি নিয়ে যায় দুই পুত্র লব ও কুশ কে।রামায়ন গান গাইতে থাকা দুই পুত্রের পরিচয় জানতে পারে রাম। সীতার বনবানের দুঃখ রামের মনকে দুঃখভারাক্রান্ত করে তোলে। বাল্মিকীর অনুরোধে সীতাকে অযোধ্যায় ফিরিয়ে আনে রাম। কিন্তু প্রজাদের মন রক্ষার্থে আবারো সীতাকে অগ্নিপরীক্ষা দিতে বলে রাম। সীতা লজ্জায় অপমানে মাতা বসুমতির কাছে প্রার্থনা করে তার কোলে স্থান দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানান। সীতা পাতালে গমন করেন।

সীতা ছিলেন রামের যোগ্য সহধর্মিনী। কিন্তু সমাজের তথাকথিত নিয়ম এর জালে বন্দী সীতাকে বারবার নিজেকে প্রমান করতে হয় যেমনটা অন্যভাবে বর্তমান সময়ের নারীদের করতে হয়। কিন্তু এত পরীক্ষার পরও আত্মসম্মানবোধ হারাননি তিনি। ধরিত্রীর কোলে বসে তিনি নারীদের নারীদের আত্মসম্মানের জয়গানই গেয়ে চলেছেন যেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
ঈশা আম্বানিকে শ্বশুরের আকাশ ছোঁয়া উপহার!
ঈশা আম্বানিকে শ্বশুরের আকাশ ছোঁয়া উপহার!
৭ দিনের নিচে কোন ইন্টারনেট প্যাকেজ নয়
৭ দিনের নিচে কোন ইন্টারনেট প্যাকেজ নয়
জনসম্মুখে পুরুষ নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল!
জনসম্মুখে পুরুষ নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল!
ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা
ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা
‘বিশ্ব সুন্দরী’র মুকুট পড়া হলো না ঐশীর
‘বিশ্ব সুন্দরী’র মুকুট পড়া হলো না ঐশীর
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
সানি লিওনের সঙ্গে হিরো আলম!
সানি লিওনের সঙ্গে হিরো আলম!
২০১৯ নিয়ে অন্ধ নারীর ভয়ঙ্কর ভবিষ্যদ্বাণী!
২০১৯ নিয়ে অন্ধ নারীর ভয়ঙ্কর ভবিষ্যদ্বাণী!
পাপ যেন পিছু ছাড়ছে না নিকের!
পাপ যেন পিছু ছাড়ছে না নিকের!
গিন্নিকে বিয়ে করলেন কপিল শর্মা
গিন্নিকে বিয়ে করলেন কপিল শর্মা
‘যৌন মিলন দেখিয়ে আনন্দ পাই’
‘যৌন মিলন দেখিয়ে আনন্দ পাই’
বই পড়ানো ইউসুফ এখন দুদকে!
বই পড়ানো ইউসুফ এখন দুদকে!
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
আইপিএলের চূড়ান্ত নিলামে দুই বাংলাদেশি
আইপিএলের চূড়ান্ত নিলামে দুই বাংলাদেশি
উত্তেজনা ধরে রাখতে পারছেন না সাইফ কন্যা সারা!
উত্তেজনা ধরে রাখতে পারছেন না সাইফ কন্যা সারা!
২ তারিখ খালেদা জিয়াকে বের করে আনবো
২ তারিখ খালেদা জিয়াকে বের করে আনবো
বিবাহবার্ষিকীতে শাওনের আবেগঘন স্ট্যাটাস
বিবাহবার্ষিকীতে শাওনের আবেগঘন স্ট্যাটাস
বিএনপির বিরুদ্ধে লড়বেন হিরো আলম
বিএনপির বিরুদ্ধে লড়বেন হিরো আলম
বিএনপির হয়ে লড়বেন পার্থ
বিএনপির হয়ে লড়বেন পার্থ
শাকিবের সঙ্গে প্রেম বিষয়ে মুখ খুললেন রোদেলা
শাকিবের সঙ্গে প্রেম বিষয়ে মুখ খুললেন রোদেলা
শিরোনাম :
চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেন আর নেই চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেন আর নেই উইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারিয়ে ওয়ানডে সিরিজ জিতল বাংলাদেশ উইন্ডিজকে ৮ উইকেটে হারিয়ে ওয়ানডে সিরিজ জিতল বাংলাদেশ হার্ডিঞ্জ ব্রিজে গার্ডারের ধাক্কায় ট্রেনের ৩ যাত্রী নিহত হার্ডিঞ্জ ব্রিজে গার্ডারের ধাক্কায় ট্রেনের ৩ যাত্রী নিহত বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতিতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা