Alexa সিলেটে বালু-মাটি দিয়ে ‘অপরাধ’ লুকানোর চেষ্টা!

ঢাকা, সোমবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২৪ ১৪২৬,   ১১ রবিউস সানি ১৪৪১

সিলেটে বালু-মাটি দিয়ে ‘অপরাধ’ লুকানোর চেষ্টা!

সিলেট প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০০:৫৪ ৩ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০১:০১ ৩ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সিলেটের জকিগঞ্জ সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া ‘অপরাধ’ লুকাতে গাছ কাটার স্থানে বালু ও মাটির সাহায্য ভরাটের অভিযোগও রয়েছে। এরইমধ্যে  ডিসি, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এবং বন ও পরিবেশ অধিদফতরের পরিচালক বরাবরে এমন অভিযোগ করেন উপজেলার মাছাইরক গ্রামের কালা মিয়ার ছেলে আব্দুল গণি। 

অভিযোগপত্রের তথ্যানুযায়ী, উপজেলার একমাত্র নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জকিগঞ্জ সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের পুরনো ছোট-বড় ১০ থেকে ১২টি রেন্টি ও মেহগনি গাছ কাটেন উপজেলার আনন্দপুর গ্রামের রবই মিয়ার ছেলে শিহাব আহমদ, আতাব উদ্দিনের ছেলে রুয়েল আহমদ ও জালাল উদ্দিন ও ময়নুল হোসেন। এসব গাছের আনুমানিক মূল্য সাড়ে সাত লাখ টাকা। গাছ কাটায় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাধা দেন। তবে উল্টো শিক্ষককে হুমকি দেয় দুর্বৃত্তরা।

এরপর প্রকাশ্যে দিনের বেলা গাছগুলো কেটে ট্রলিতে করে নিয়ে যায়। ঘটনাটি জানাজানি হলে দুষ্কৃতিকারীরা ঘটনা ধামাচাপা দিতে বালু ও মাটি দিয়ে গাছ কাটার চিহ্ন মুছে দেয়ার চেষ্টা করে। বিষয়টি ইউএনওকে অবগত করলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান তিনি।

এদিকে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন জকিগঞ্জ সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক খলিলুর রহমান।

এ ব্যাপারে সিলেটের বিভাগীয় বন অফিসের ফরেস্ট রেঞ্জার মো. হাসমত আলী জানান, অভিযোগটি এখনো তার হাতে পৌঁছায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেবেন তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ