সিনেমা হলে দর্শক খরা, কর্মচারীরা ইফতার বিক্রেতা

ঢাকা, শনিবার   ২৫ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৬,   ১৯ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

সিনেমা হলে দর্শক খরা, কর্মচারীরা ইফতার বিক্রেতা

বিনোদন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০০ ১৬ মে ২০১৯   আপডেট: ২০:১১ ১৬ মে ২০১৯

ছবি:  ইফতার বিক্রি করছেন জোনাকি হলের কর্মচারীরা

ছবি: ইফতার বিক্রি করছেন জোনাকি হলের কর্মচারীরা

বেশ কয়েক বছর ধরেই ঢাকাই চলচ্চিত্রে মন্দা অবস্থা বিরাজ করছে। খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে সিনেমা হলগুলো। নতুন সিনেমা না থাকায় পুরোনো সিনেমা দিয়ে হলগুলো চালু রাখা হয়েছে। প্রতিনিয়ত তাদের গুনতে হচ্ছে লোকসান। যে কারণে একে একে প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। আর রোজার মাসে দর্শক না হওয়ায় এই এক মাসে নতুন সিনেমা মুক্তি দেয়া হয় না। রোজা শুরুর দুই সপ্তাহ আগে থেকেই পুরাতন ছবি প্রদর্শিত হচ্ছে প্রেক্ষাগৃহগুলোতে।  

অনেক মালিকই পুরাতন ছবি না চালিয়ে বন্ধ রেখেছেন হল। কিন্তু এভাবে চললে কিভাবে কর্মচারীদের বেতন ভাতা বা ঈদ বোনাস দেবেন। সব মিলিয়ে নানান দুশ্চিন্তায় দিন কাটাতে হচ্ছে সিনেমা হল মালিক-কর্মচারীদের। রাজধানীর কাকরাইল মোড়ে অবস্থিত সিনেমা হল জোনাকি। এই হলে গত শুক্রবার থেকে প্রদর্শিত হচ্ছে শাকিব খান অভিনীত চলচ্চিত্র ’লাস্ট টার্গেট’। আজাদ খান পরিচালিত এই ছবিতে শাকিবের বিপরীতে অভিনয় করেছেন কেয়া।  

কিন্তু রমজান মাস থাকায় সিনেমায় দর্শক খরা চলছে, তাই হলের কর্মচারীরা এই রমজানে মাসে ইফতারি বিক্রি করছেন। এর কারণ হিসেবে জোনাকি হলের টিকেট কাউন্টার ম্যানেজার সুবোধ বাবু বলেন,  পুরাতন একটি ছবি প্রদর্শন হচ্ছে এই জোনাকিতে। যেহেতু শাকিব খানের ছবি দর্শক পছন্দ করেন। তাই শাকিব খানের পুরাতন একটি ছবিই আমরা চালাচ্ছি। কিন্তু রোজার কারণে যে পরিমাণ দর্শক সিনেমা হলে আসেন, তাতে আমাদের যে কয়জন স্টাফ আছে, তাদের যাতায়াতের ভাড়াও হয় না। তাই সিনেমা প্রদর্শনের পাশাপাশি হলের সামনে আমরা ইফতার বিক্রি করছি।

শুধু এবারই নয় গত তিন বছরে ধরে চলচে এই ইফতার বিক্রি। সুবোধ বলেন, রোজায় শুধু আমাদের সিনেমা হল নয়, দেশের সব সিনেমা হলে দর্শক কম থাকে। আমাদের সিনেমা হলে স্টাফদের ১২ জনের মধ্যে ১০ জনই মুসলমান। অনেক সময় টিকেট বিক্রি না হলে ইফতার কেনার টাকা থাকে না।  তাই গত তিন বছর ধরেে আমরা ইফতার বিক্রি করছি। এতে করে বাড়তি কিছু টাকা আসে, যা দিয়ে আমাদের হাত-খরচটা হয়ে যায়। 

শুধু জোনাকী নয়, ঢাকার অধিকাংশ সিনেমা হলেই পুরো রমজান মাসে এভাবেই লোকসানের হাত থেকে বাঁচতে ইফতারি বিক্রি করেন হলের কর্মচারীরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ

Best Electronics