সাড়ে ৭ কেজি ওজন কমিয়েছি: এবিএম সুমন 

ঢাকা, শুক্রবার   ০৫ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ২১ ১৪২৭,   ২০ রজব ১৪৪২

সাড়ে ৭ কেজি ওজন কমিয়েছি: এবিএম সুমন 

নাজমুল আহসান ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:২৩ ১ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ১৯:৩৬ ২২ জুন ২০২০

ছবি: এবিএম সুমন

ছবি: এবিএম সুমন

মডেল থেকে নায়ক। ‘রুদ্র দ্য গ্যাংস্টার’ সিনেমায় রকস্টার থেকে হয়েছিলেন গ্যাংস্টার। এরপর ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এ সোয়াট টিমের এসি আশফাক হয়ে নজর কাড়ে সবার। প্রশংসিত হয় তার অভিনয়। বলছি সুঠাম দেহ ও আকর্ষণীয় চেহারার নায়ক এবিএম সুমনের কথা। 

কাজী আনোয়ার হোসেনের লেখা ‘বাংলার জেমস বন্ড’ খ্যাত গোয়েন্দা চরিত্র মাসুদ রানা। এ চরিত্রটি নিয়ে সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিল প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। এ ছবিতে অভিনয়ের জন্য অডিশন দিয়েছিলেন সুমন। সোমবার খবর প্রকাশিত হয় মাসুদ রানা চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন তিনি। এরই মধ্যে প্রস্তুতিও শুরু করেছেন। বিষয়টি নিয়ে ডেইলি বাংলাদেশের সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন নাজমুল আহসান। 

মাসুদ রানা চরিত্রের জন্য অডিশন দিয়েছিলেন?
মাসুদ রানা সিনেমার সেকেন্ড ইউনিট ডিরেক্টর ফিলিপ টানসহ টিমের কয়েকজন ঢাকায় এসেছিলেন। সেসময় মাসুদ রানা চরিত্রের জন্য অডিশন দিয়েছিলাম। অডিশনের আগে একজন মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষকও রেখেছিলাম এবং প্রিপারেশনের জন্য সাড়ে ৭ কেজি ওজন কমিয়েছি। কিন্তু ফলাফলের বিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি। আনুষ্ঠানিক ভাবেই কে এই চরিত্রে অভিনয় করবেন সেটা জানানো হবে বলে জেনেছি। 

এবিএম সুমনমাসুদ রানার জন্য আপনি চূড়ান্ত, সোমবার থেকে এমন খবর শোনা যাচ্ছে...
আমার কাছেও বেশ কিছু ফোন এসেছে, আমিও বেশ কিছু নিউজ দেখেছি। তবে এ বিষয়ে আমি এখনই কিছু বলতে পারছি না। যতক্ষণ পর্যন্ত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কিছু না বলেছে ততক্ষণ কিছুই বলা যাচ্ছে না। 

আপনি নাকি এরই মধ্যে ট্রেনিং শুরু করেছেন চরিত্রটির জন্য?
মার্শাল আর্ট প্রাকটিস করছি, নিয়মিত জিম করছি। আমাদের কয়েকজনকে প্রস্তুত করাচ্ছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। আমাদের ট্রেনিং করাচ্ছেন খশরু পারভেজ রুনি। আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি কারণ আমি এর আগে অডিশন দিয়েছি মাসুদ রানা চরিত্রের জন্য। যদি আমাদের এ ছবির জন্য চূড়ান্ত করা হয় সেক্ষেত্রে বেশি সময় পাওয়া যাবে না প্রস্তুতির জন্য। মাসুদ রানার মতো চরিত্রে কাজ করতে হলে অনেক বেশি প্রিপারেশন প্রয়োজন। তাই প্রাথমিক ভাবে প্রস্তুতি নিয়ে রাখছি।

এবিএম সুমনপ্রাকটিস শুরু করেছেন কবে? কেমন চলছে?
আমার বাসা মোহাম্মদপুর। সেখান থেকে শান্তিনগরে সপ্তাহে ছয়দিন যাতায়াত করছি প্রশিক্ষণের জন্য। প্রাকটিস শুরু করেছিলাম আগস্টের শেষের দিক থেকে। এখনো করছি। ফলাফল যেটাই হোক, প্রাকটিসটা বিফলে যাবে না। এ ছবিতে না হয় অন্য ছবির কাজের ক্ষেত্রে সহায়ক হবে। 

এ রকম একটি সিরিজে কাজের আগ্রহ আগে থেকেই ছিল?
অনেক আগে থেকে বলতাম যদি কখনো মাসুদ রানা সিরিজ হয় তাহলে যেন অডিশনের সুযোগ পাই। আমি সবসময়ই মাসুদ রানা হতে চেয়েছি। ভেবেছিলাম, বাংলাদেশ যদি কোনোদিন এরকম সিনেমা বানায় তাহলে অডিশন দেবো। অবশেষে অডিশন দিলাম। এখন অপেক্ষা ফলাফলের।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ