সালোয়ার পরে রানীর সঙ্গে দেখা, সমালোচিত সরফরাজ

ঢাকা, রোববার   ১৬ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৩ ১৪২৬,   ১২ শাওয়াল ১৪৪০

সালোয়ার পরে রানীর সঙ্গে দেখা, সমালোচিত সরফরাজ

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:০২ ৩০ মে ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে শুরু হয়েছে ক্রিকেট বিশ্বকাপের মাঠের লড়াই। ম্যাচের একদিন আগেই হয়ে গেছে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। সেই অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার আগে ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের সঙ্গে দেখা করেন বিশ্বকাপ খেলা দশ দলের অধিনায়করা। 

আর সেখানে সালোয়ার-পাঞ্জাবী পরে যান পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। আর এটা নিয়ে শুরু হয়েছে নানা সমালোচনা।  

অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ, নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন, বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা, ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি, ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ওইন মরগ্যান, শ্রীলংকার অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে, আফগানিস্তানের অধিনায়ক গুলবাদাইন নাইব ও উইন্ডিজের অধিনায়ক জ্যাসন হোল্ডার এই নয়জনই স্যুট টাই পরে রানীর সঙ্গে দেখা করেন এবং ফটোসেশনে অংশ নেন। কিন্তু সবার থেকে ব্যতিক্রম ছিলেন সরফরাজ। কিন্তু পাকিস্তানের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরে সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন তিনি। 

সরফরাজের এমন পোশাকের অনেকেই সমালোচনা করছেন। পাকিস্তানের লেখক ও কানাডিয়ান কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠাতা তারেক ফাতাহ টুইটারে পোস্ট দিয়ে বলেন, ‘যেখানে বিশ্বকাপের অধিনায়করা রানীর সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছে সেখানে একজন পায়জামা পরে আসছে। কে হতে পারে সে? আর কেউ না! পাকিস্তানের অধিনায়ক। তার দিকে তাকান, কীভাবে ওর মত একজনকে একটি দেশ জন্ম দিতে পারে? অন্যান্য সব দেশের অধিনায়কেরা জ্যাকেট, টাই পরে স্মার্ট হয়ে এসেছে কিন্তু পাকিস্তানিরা পারে নি। আমি অবাক হয়েছি যে সে লুঙ্গি, টুপি পরে কেন আসেনি এটা দেখে!’

সমালোচনা পেলেও অনেকের চোখে আবার সরফরাজের এহেন কাজে মহাত্ম ফুটে উঠেছে। পাকিস্তান আওমী তেহরিকের সেক্রেটারি জেনারেল খুররাম নাওয়াজ গান্ধাপুর বলেন, ‘এটা পায়জামা নয়। এটা সালোয়ার এবং পাঞ্জাবী। অনুগ্রহ করে সবার পোশাককে সম্মান দিতে শিখুন। আপনাকে হয়তো পশ্চিমাদের মত দেখতে লাগবে আধুনিক পোশাকে কিন্তু সবাই সেটা করবে না।’

শুধু পাকিস্তানিরাই নয়, ভারতীয় অনেকেই সরফরাজের পক্ষে সাফাই গাইছেন। কেতান সাতনালিয়া নামক এক ভারতীয় লেখেন, ‘কেউ যদি তার দেশের ঐতিহ্যবাহী পোশাক পরে আসে তাহলে ক্ষতি কোথায়? ইংল্যান্ডে স্যুট পরা কি দরকারী? যদি তাই হতো তাহলে আমাদের প্রধানমন্ত্রী কী কুর্তা পায়জামা না পরে তো অন্য কিছু পরতো।’

ডেইলি বাংলাদেশ/সালি