সাভারে প্রথম শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ, আটক ১

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৬,   ১৮ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

সাভারে প্রথম শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ, আটক ১

 প্রকাশিত: ০৯:৩০ ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭   আপডেট: ১২:১০ ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

সাভারের রেডিও কলোনীতে দীন ইসলাম নামে এক মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীকে (৬) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে। পরে সাভারের চাপাইন এলাকা থেকে শিশুটিকে অসুস্থ অবস্থায় স্থানীয়রা উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়। অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত দীন ইসলামকে আটক করা হয়।

এলাকাবাসী জানায়, সাভারের চাপাইন তালতলা এলাকায় মানাসিমা আক্তারের সাথে স্থানীয় হাবিবুর রহমানের বাড়িতে একটি কক্ষ নিয়ে ভাড়া থাকে ওই শিশু। বুধবার রাতে শিশুটি তার এক বান্ধবীকে নিয়ে পাশের বাড়িতে বেড়াতে যায়। এসময় দীন ইসলাম (৪২) কৌশলে তার বান্ধবীকে মারধর করে একটি টিনের ঘরের মধ্যে আটকে রেখে শিশুকে একটি রুমে নিয়ে গিয়ে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করেন। পরে দীন ইসলামকে গণপিটুনী দিয়ে রাতে সাভার মডেল থানার দেয় এলাকাবাসী। এসময় ধর্ষণের কথা কাউকে জানালে ওই শিশুকে ও তার মাকে হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকিও দেন দীন ইসলাম।

পরে পুলিশ ওই শিশুকে উদ্ধার করে পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান ষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করে।

এদিকে গ্রামের মাদবররা এ ঘটনার বিচার করে মীমাংসা করবেন বলে ওই শিশুর মাকে এ নিয়ে মুখ খুলতে নিষেধ করেন এবং কাউকে এ ঘটনা জানালে উল্টো তাদেরকে এলাকা ছাড়ারও হুমকি দেন।

সাভার মডেল থানায় দীন ইসলামের নামে মামলা দায়ের করেছেন ওই শিশুর পরিবার। এদিকে স্থানীয়রা জানায়, মৃত আজাহার আলীর ছেলে দীন ইসলাম এলাকায় প্রকাশে দীর্ঘদিন ধরে হিরোইন বিক্রি করে আসছিলো। মাদক ব্যবসার অভিযোগে একাধিক বার তাকে পুলিশ আটক করলেও পরে ছাড়া পেয়ে আবারও মাদক ব্যবসা শুরু করেন তিনি।

এই ব্যাপারে সাভার মডেল থানার পরিদর্শক (এসআই) সাইদুর জামান বলেন, ওই শিশুকে উদ্ধার করে পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান ষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি জন্য পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি দীন ইসলামকে আটক করা হয়েছে ও ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ

Best Electronics