Exim Bank Ltd.
ঢাকা, বুধবার ১২ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

সাদা শাপলার সমারোহ, কমছে লাল শাপলা

ঝালকাঠি প্রতিনিধিডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
সাদা শাপলার সমারোহ, কমছে লাল শাপলা
ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ার বিভিন্ন স্থানে এখনও সাদা শাপলা দেখা মিললেও লাল, হলুদ, বেগুনী শাপলা হারিয়ে যেতে বসেছে।

বর্ষা মৌসুমে বিভিন্ন এলাকায় খাল-বিল ও নিচু জায়গায় পানি জমে থাকলে সেখানেই প্রাকৃতিকভাবে জন্ম নেয় জাতীয় ফুল শাপলা।

বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই গ্রামাঞ্চলের খাল-বিল, জলাশয় এবং নিচু জমিতে বিপুল পরিমানে শাপলা জন্মাত। বর্ষাকাল থেকে শুরু করে শরৎকালের শেষ পর্যন্ত এ শাপলা দেখা যেত। মানুষের খাদ্য তালিকায় সবজি হিসেবেও যুক্ত ছিল শাপলা। কয়েক বছর আগে বর্ষা এবং শরৎকালে খাল-বিলে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকত গোলাপি ও সাদা রঙের শাপলা ফুল।

ওই সময় সকালে জলাশয়ের দিকে চোখ পড়লে রং-বেরঙের শাপলার বাহারি রূপ দেখে চোখ জুড়িয়ে যেত। বিলের ধারে ফুটে থাকা সারি সারি শাপলা ফুল দেখতে যেমন বৈচিত্রময় তেমনি ধরণীর বুকে লাল সবুজের সমারোহে যেন মনোমুগ্ধকর দৃশ্যাবলীর একটি। শাপলা শুধু শাপলা ফুলই নয় এটি জাতীয় ফুল।

সাধারণত নভেম্বরের শুরুতে শীতের আগমনী বার্তার মধ্য দিয়ে বিভিন্ন বিল ঝিলে কিংবা পুকুরে এর দেখা মেলে। গ্রাম ও শহুরে মানুষের কাছে এটি সবজি হিসেবে খুবই জনপ্রিয়। অনেকে আবার শাপলা তুলে বাজারে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকে। লাল শাপলার ঔষধি গুণও রয়েছে।

এক দশক আগেও উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে প্রচুর শাপলা ফুল দেখা মিলত। তখন পুকুর খাল বিল ও জলাশয়গুলোতে লাল, গোলাপি, সাদা, বেগুনি, নীল ও বিরল প্রজাতির হলুদ শাপলা ফোঁটার কারণে চারিদিকে নয়নাভিরাম সৌন্দর্যে প্রাকৃতিক দৃশ্যে পরিণত হতো।

সাধারণত শাপলা ফুল দিনের বেলা ফোঁটে এবং সরাসরি কাণ্ড ও মূলের সঙ্গে যুক্ত থাকে। শাপলার পাতা আর ফুলের কাণ্ড বা ডাটি বা পুষ্পদণ্ড পানির নিচে মূলের সঙ্গে যুক্ত থাকে। আর এই মূল যুক্ত থাকে মাটির সঙ্গে এবং পাতা পানির উপর ভেসে থাকে। মূল থেকেই নতুন পাতার জন্ম হয়। পাতাগুলো গোল এবং সবুজ রঙ্গের হয়। কিন্তু নিচের দিকে কালো রং। ভাসমান পাতাগুলোর চারিদিক ধারালো হয়।

বর্তমানে সাদা প্রজাতির শাপলাগুলি বিভিন্ন জায়গায় দেখা গেলেও দেখা যাচ্ছে না গোলাপি, বেগুনি, নীল ও হলুদ শাপলা। এসব শাপলা কালের পরিক্রমায় হারিয়ে যাওয়ার পিছনে বিভিন্ন কারণ রয়েছে বলে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়।

কপোতাক্ষের নাব্যতা হ্রাস, খাল বিল ও জলাশয় ভরাট করে কৃষিসুমে নানা রংয়ের শাপলার বাহারী রুপে জমি তৈরি, ঘরবাড়ি তৈরি, ফসলি জমিতে মাত্রাতিরিক্ত কীটনাশক ব্যবহার এবং জলবায়ূ পরিবর্তনের কারণে আমাদের জাতীয় ফুল শাপলা হারিয়ে যেতে বসেছে। এক সময় বিলে পুকুরে বর্ষা মৌমানুষের নয়ন জুড়িয়ে যেতো। ছোটদের খুবই প্রিয় এই শাপলা। শাপলার ড্যাপ শিশুদের প্রিয় খাবার এবং গ্রামের লোকেরা ড্যাপ দিয়ে খই ভেজে মোয়াসহ বিভিন্ন প্রকার সু-স্বাদু খাবার তৈরি করে।

এখন জমিতে অধিক মাত্রায় কীটনাশক প্রয়োগ ও জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে খাল-বিল ও জলাশয় থেকে শাপলা হারিয়ে যেতে বসেছে। শাপলা ফুল সাধারণত গোলাপি ও সাদা রঙের হয়ে থাকে। লাল ও সাদা রঙের শাপলা বেশ পুষ্টি সমৃদ্ধ সবজি। এতে প্রচুর পরিমানে ক্যালসিয়াম রয়েছে। শাপলার ভেষজ গুণও কম নয়। তবে লাল রঙের শাপলা ঔষধি কাজে ব্যবহৃত হয়। তাই শাপলা চুলকানি ও আমাশয় রোগের জন্য বেশ উপকারী।

শাপলা ফুলের ফল দিয়ে সুস্বাদু খই ভাজা যায়। যেটি গ্রামাঞ্চলে ঢ্যাপের খই বলে পরিচিত। নভেম্বর-ডিসেম্বর মাসে খাল-বিল, হাওর-বাওর, জলাশয়ের পানি যখন কমে যায় তখন শাপলার শালুক তুলে খাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে কাঁঠালিয়ার স্নাতকোত্তর পড়ুয়া ছাত্র মো. রবিউল ইসলাম বলেন, ফসলি জমিতে অধিক মাত্রায় কীটনাশক প্রয়োগ, জলবায়ু পরিবর্তন, খাল-বিল ও জলাশয়ে মাছ চাষ এবং ভরাটের ফলে কাঁঠালিয়ার বিল অঞ্চল হতে ক্রমাম্বয়ে বিলুপ্তির পথে বিভিন্ন প্রজাতির শাপলা। যার ফলে এখন আর খাল-বিল জলাশয়ে শাপলা তেমন আর চোখে পড়ে না।

কাঁঠালিয়র সদর ফাজিল মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক নুর-ই- আলম ছিদ্দিকী বলেন, চাষের জমিতে অধিক মাত্রায় আগাছা নাশক ও কীটনাশক প্রয়োগের ফলে জমির উর্বরতা কমে যায়। এ ছাড়া জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে খাল-বিল, হাওর-বাওর, জলাশয় ও পুকুরের জমি ভরাট করে বাড়ি নির্মাণ করে বসতি স্থাপন করায় দিন দিন শাপলা বিলীন হয়ে যাচ্ছে।

ছিটকি স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক এমএম তারিকুজ্জামান বলেন, খাল-বিল ও পুকুরসহ আবদ্ধ জলাশয়গুলো শুকিয়ে যাওয়ার কারণে শাপলার শালুক নষ্ট হচ্ছে। এর ফলে শাপলার বংশ বিস্তার বাধার সম্মুখীন হওয়ায় শাপলা বিলীন হয়ে যাচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
ফাইভ জি চালু হতেই মরল কয়েকশ পাখি!
ফাইভ জি চালু হতেই মরল কয়েকশ পাখি!
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেয়াই মারা গেছেন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেয়াই মারা গেছেন
ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা
ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা
দেশের মাটিতে মাশরাফির শেষ ম্যাচ
দেশের মাটিতে মাশরাফির শেষ ম্যাচ
‘বিশ্ব সুন্দরী’র মুকুট পড়া হলো না ঐশীর
‘বিশ্ব সুন্দরী’র মুকুট পড়া হলো না ঐশীর
৭ দিনের নিচে কোন ইন্টারনেট প্যাকেজ নয়
৭ দিনের নিচে কোন ইন্টারনেট প্যাকেজ নয়
মৃত সাফায়েত উদ্ধার, বাবা আটক; সুরায়েত জীবিত
মৃত সাফায়েত উদ্ধার, বাবা আটক; সুরায়েত জীবিত
সিলেটি যুবককে বিয়ের জন্য ক্যাথলিক মেয়ের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ
সিলেটি যুবককে বিয়ের জন্য ক্যাথলিক মেয়ের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ
এমিরেটসের হীরায় মোড়ানো বিমান
এমিরেটসের হীরায় মোড়ানো বিমান
পাপ যেন পিছু ছাড়ছে না নিকের!
পাপ যেন পিছু ছাড়ছে না নিকের!
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
‘যৌন মিলন দেখিয়ে আনন্দ পাই’
‘যৌন মিলন দেখিয়ে আনন্দ পাই’
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
বিশ্বের আদর্শ ফিগারের নারী কেলি ব্রুক
বিশ্বের আদর্শ ফিগারের নারী কেলি ব্রুক
বিএনপির হয়ে লড়বেন পার্থ
বিএনপির হয়ে লড়বেন পার্থ
তামান্নার অন্তরঙ্গ ছবি, রয়েছে শারীরিক সম্পর্ক!
তামান্নার অন্তরঙ্গ ছবি, রয়েছে শারীরিক সম্পর্ক!
বাবার ইচ্ছাপূরণে হেলিকপ্টারে বউ তুলে আনল ছেলে
বাবার ইচ্ছাপূরণে হেলিকপ্টারে বউ তুলে আনল ছেলে
উত্তেজনা ধরে রাখতে পারছেন না সাইফ কন্যা সারা!
উত্তেজনা ধরে রাখতে পারছেন না সাইফ কন্যা সারা!
বিএনপির বিরুদ্ধে লড়বেন হিরো আলম
বিএনপির বিরুদ্ধে লড়বেন হিরো আলম
তামিম-সৌম্য শতকে ৩৩২ তাড়া করে জয়
তামিম-সৌম্য শতকে ৩৩২ তাড়া করে জয়
শিরোনাম :
সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৪ ইউকেটে জিতলো উইন্ডিজ। শাই হোপ ১৪৬* সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৪ ইউকেটে জিতলো উইন্ডিজ। শাই হোপ ১৪৬* জেএসসি-জেডিসির ফল প্রকাশ ২৪ ডিসেম্বর জেএসসি-জেডিসির ফল প্রকাশ ২৪ ডিসেম্বর উপজেলা চেয়ারম্যানরা পদত্যাগ না করেও নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন, হাইকোর্টের এ আদেশ স্থগিত করেছেন চেম্বার বিচারপতি উপজেলা চেয়ারম্যানরা পদত্যাগ না করেও নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন, হাইকোর্টের এ আদেশ স্থগিত করেছেন চেম্বার বিচারপতি উইন্ডিজের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৫৫ উইন্ডিজের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৫৫ জাপার সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের আপিল বাতিল জাপার সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের আপিল বাতিল আইএসপিআরের নতুন পরিচালক হলেন লেফট্যানেন্ট কর্নেল মো. আবদুল্লা ইবনে জায়েদ আইএসপিআরের নতুন পরিচালক হলেন লেফট্যানেন্ট কর্নেল মো. আবদুল্লা ইবনে জায়েদ