Alexa সাইনুসাইটিসের লক্ষণ ও প্রতিকার

ঢাকা, শনিবার   ২৪ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ১০ ১৪২৬,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

সাইনুসাইটিসের লক্ষণ ও প্রতিকার

 প্রকাশিত: ০২:৫৮ ২৭ এপ্রিল ২০১৮  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

সাইনুসাইটিস অতি পরিচিত একটি রোগের নাম। মুখমন্ডল তথা মাখার খুলির চারিদিকে চার জোড়া বায়ুভর্তি কুঠুরি থাকে। এই কুঠুরিগুলোকেই বলা হয় সাইনাস।

সাইনাসগুলোর বিভিন্ন নাম আছে। সাইনাসের অভ্যন্তরীন আবরণ হিসাবে থাকে এক ধরণের ঝিল্লি। এই ঝিল্লির প্রদাহকেই বলা হয় সাইনোসাইটিস। সাইনোসাইটিস সাধারণত ঠাণ্ডা ও ভেজা, ধোঁয়া, ধূলোবালি ইত্যাদি পরিবেশই এ রোগ হওয়ার জন্য উপযুক্ত।

মাথার খুলিতে অবস্থিত এই সাইনাসের বিভিন্ন কাজ রয়েছে। বলা হয়ে থাকে এইসব সাইনাস নাকের মধ্যস্থিত বাতাসকে উষ্ণ ও আর্দ্র রাখে। মাথাকে হালকা রাখে এবং খুলির বিভিন্ন অঙ্গকে রক্ষা করে।

রোগের লক্ষণ ও উপসর্গ:

* সাইনোসাইটিস রোগে প্রচন্ড মাথাব্যথা হয়। সকালে কম থাকে, দুপুরের দিকে ব্যথার তীব্রতা বেড়ে যায় আবার বিকেলের দিকে সামান্য কমে যায়।

* মাথা নাড়াচাড়া করলে, হাঁটলে বা মাথা নিচু করলে ব্যথার তীব্রতা আরো বেড়ে যায়।

* জ্বর জ্বর ভাব থাকে, কোনো কিছুতেই ভালো লাগে না এবং অল্পতেই ক্লান্ত হয়ে যায়।

* নাক বন্ধ থাকে। পরীক্ষা করলে নাকের ভেতর পুঁজ পাওয়া যেতে পারে।

* সাইনাস এক্স-রে করলে তা ঘোলাটে দেখায়।

* নাকের এলার্জি থাকলে, নাকের হাড্ডি বাঁকা থাকলে, নাকের ভেতর বাইরের কিছু ঢুকলে এবং এডিনয়েড (নাকের পেছনের টনসিল) বড় হলে।

* দাঁতের ইনফেশন থেকে বা দাঁত তুলতে গিয়েও সাইনাসে ইনফেকশন হতে পারে।

* সাইনাসের হাড্ডি ফেটে গেলেও এরূপ হতে পারে

* ময়লা পানিতে ঝাঁপ দিলে ঐ পানি নাকের ভেতর দিয়ে সাইনাসে ঢুকেও এ ধরণের সমস্যা তৈরি করতে পারে।

* এছাড়াও অপুষ্টি, আবহাওয়া দূষণ এবং ঠান্ডা স্যাঁতসেতে আবহাওয়ায় এই রোগ বেশি হয়। সাইনোসাইটিস-এর জটিলতা সাইনাসগুলো চোখ এবং ব্রেইনের পাশে থাকে বলে সাইনাসের ইনফেকশন হলে তা চোখ এবং মস্তিষ্কেরও জটিলতা সৃষ্টি করতে পারে।

* অরবিটাল সেলুলাইটিস এবং এবসেস বা চোখের ভেতরের ইনফেকশন।

* মেনিনজাইটিস বা ব্রেইনের পর্দার প্রদাহ।

* এক্সট্রাডুরাল এবং সাবডুরাল এবসেস।

* অস্টিওমায়েলাইটিস (মাথার অস্থির প্রদাহ)।

* কেভেরনাস সাইনাস থ্রম্বোসিস প্রভৃতি।

কাজেই দেখা যাচ্ছে, সাইনোসাইটিসের কারণে চোখের ভেতরে ইনফেকশন ঢুকে চোখটি নষ্ট করে দিতে পারে, আবার মাথার ভেতর ইনফেকশন ঢুকে মেনিনজাইটিস এমনকি ব্রেইন এবসেসের মতে মারাত্মক জটিল রোগের জন্ম দিতে পারে।

চিকিৎসা বা আরোগ্য লাভের উপায়:
সাইনোসাইটিসের কারণে মাথব্যথা হয়েছে বলে মনে হলে যতদ্রুত সম্ভব একজন নাক, কান, গলারোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ গ্রহণ করতে হবে।

প্রাথমিক পর্যায়ে এ রোগের জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী এন্টিবায়োটিক, এন্টিহিস্টামিন, নাকের ড্রপ এবং ব্যথানাশক ওষুধ ব্যবহার করা হয়। যদি ওষুধপত্রে এই রোগ নিরাময় না হয় তবে সাইনাসের ওয়াশ বা আরো বড় ধরনের অপারেশনের প্রয়োজন হতে পারে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস

Best Electronics
Best Electronics