সহজ উপায়ে বাড়িয়ে নিন ফোনের স্টোরেজ!
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=117999 LIMIT 1

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৭ ১৪২৭,   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

সহজ উপায়ে বাড়িয়ে নিন ফোনের স্টোরেজ!

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:০১ ৯ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ১৩:৩৭ ২৪ জুলাই ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

স্টোরেজ ছাড়া একটি স্মার্টফোন একদমই অকেজো। ইন্টারনেট আর স্টোরেজ ছাড়া স্মার্টফোন ভাবাই যায় না। কিন্তু মাঝে মধ্যে স্মার্টফোনের স্টোরেজ ফুল হয়ে যাওয়ার কারণে কোন কিছু সেভ করতে গেলে অনেক সমস্যা পড়তে হয়। তখন নতুন কিছু ডাউনলোড কিংবা স্টোরে জমা রাখতে গেলে আগের কিছু ডিলিট করতে হয়। আর এই ধরণের ফোনের স্টোরেজ সমস্যায় ভোগেন অনেক ইউজার। তবে একটু সতর্কতা অবলম্বন করলেই এই সমস্যার সমাধান পাওয়া যায়। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক তেমন কিছু উপায়-

অপ্রয়োজনীয় ডাউনলোড ফাইল ডিলিট
এমন কিছু অপ্রয়োজনীয় ফাইল ডিলিট করুন, যেগুলো আগে প্রয়োজন ছিল কিন্তু এখন নেই। অপ্রয়োজনীয় ফাইলগুলো জায়গা দখল করে রাখে। তাই একদিন সময় করে ডাউনলোড ফোল্ডারে যান। পুরনো অপ্রয়োজনীয় ফাইলগুলো সিলেক্ট করে ডিলিট করে ফেলুন।

অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ ডিলিট
বিশেষ করে নতুন ফোন কেনার সময় এমন অনেক অ্যাপ ইনস্টল করা থাকে যা একজন সাধারণ ব্যবহারকারী কখনো ব্যবহারই করেন না। ফোনেও যদি এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত অ্যাপ থাকে তাহলে সেগুলোকে আনইনস্টল করে ফেলুন। যদি পরবর্তীতে কখনো সেগুলোর প্রয়োজন হয়, তাহলে অ্যাপগুলো আবার ডাউনলোড করে নেয়া সম্ভব।

লাইট অ্যাপ ব্যবহার করুন
ফেসবুক, মেসেঞ্জারের মতো অ্যাপগুলোর কিন্তু লাইট ভার্সন রয়েছে। যা আপনার স্মার্টফোনের স্টোরেজে কম জায়গা নেবে। তাই সেই লাইট অ্যাপ গুলো ব্যবহার করুন।

এসডি কার্ডে অ্যাপ ইনস্টল
সবসময় স্মার্টফোনের ওএস-এর ওপর চাপ কমাতে কিছু অ্যাপ মাইক্রো এসডি কার্ডে পাঠিয়ে দিন। এতে জায়গাও বাঁচবে এবং স্মার্টফোনটি দ্রুত কাজ করবে।

গুগল ফটোস
সাধারণ গ্যালারি স্টোরেজ না বাড়িয়ে গুগল ফটোসে ফটো ব্যাকআপ করাই যেতে পারে। এর মাধ্যমে যখন ইচ্ছা ফটো দেখতেও পারবেন পাশাপাশি এডিটও করতে পারবেন। এতে গ্যালারি স্টোরেজও কমবে।

ক্যাশ ও ডেটা ক্লিয়ার
ফোনের অ্যাপ ম্যানেজারে যান। সেখানে গিয়ে অ্যাপগুলো সিলেক্ট করুন। তারপর তার ডেটা ও ক্যাশ ডিলিট করুন। এতে পুরনো অ্যাপ মুছে গেলেও একসঙ্গে অনেক জিবি বেঁচে যায়। তবে মনে রাখবেন, অ্যাপ ব্যবহারের সঙ্গে সঙ্গে ক্যাশে বাড়বে এবং আপডেটের সঙ্গে সঙ্গে ডেটা সাইজ বাড়বে।

ইনস্টলকৃত অ্যাপ কার্ডে মুভ করুন
এ বিষয়টি হয়তো কারো অজানা নয় যে আমরা যখন প্রাথমিকভাবে প্লে স্টোর থেকে কোন অ্যাপ ডাউনলোড করি, তখন সেটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে আমাদের ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজে ইনস্টল হয় এবং সেখানেই অ্যাপটি রান করার জন্য যত প্রয়োজনীয় ফাইল রয়েছে সেগুলো জমা হতে থাকে। যার ফলে ফোনের মেমোরী পূর্ণ হতে থাকে। প্রাথমিকভাবে যদিও বা অ্যাপগুলো ইন্টারনাল মেমোরিতে স্পেস দখল করে থাকে কিন্তু পরবর্তীতে অবশ্যই আপনার সেটিকে এসডি কার্ডে মুভ করে নিতে হবে। তা হলে ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজে চাপ কমবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ