সরকার একতরফা নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করছে: ফখরুল

ঢাকা, রোববার   ২৬ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৬,   ২০ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

সরকার একতরফা নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করছে: ফখরুল

 প্রকাশিত: ২০:৪২ ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭   আপডেট: ১৭:৫৬ ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭

সরকার আবারও একটি একতরফা নির্বাচন করার ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এ অভিযোগ করেন।

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ‘কারামুক্তি দিবস’ উপলক্ষে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি এ আলোচনা সভার আয়োজন করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, বাংলাদেশ সরকার রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিতে ব্যর্থ হয়েছে। আবার যারা এসেছে, তাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর জন্য কূটনৈতিক উদ্যোগ নিতেও ব্যর্থ হয়েছে। ইন্দোনেশিয়া মিয়ানমারের রোহিঙ্গা সংকটের বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পাঠিয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের কোনো দূত পাঠানো হয়নি। জাতিসংঘে বিষয়টি তোলা হয়নি।

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বিষয়টি জাতিসংঘে তোলার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশে কারও নিরাপত্তা নেই। গুম-খুন-হত্যা-ধর্ষণ নিত্য ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। জঙ্গি দমনে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ১০ বছরের বাচ্চা পর্যন্ত রেহাই পাচ্ছে না।

তিনি বলেন, সরকার আবারও একটি একতরফা নির্বাচন করার ষড়যন্ত্র করছে। তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, মানুষ এবার আর কোনো একতরফা নির্বাচন হতে দেবে না। নির্বাচন হতে হবে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সহায়ক সরকারের অধীনে, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায়।

তারেক রহমান ১৬ কোটি মানুষের রাজনীতি করেন, দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, তারেক রহমান যেদিন দেশে ফিরবেন, সেদিন কোনো শক্তি জনতার ঢল আটকাতে পারবে না। এ কারণে সরকার তারেক রহমানকে ভয় পায়।

ফখরুল দাবি করেন, দেশে ডিজিটাল আন্দোলনের সফল প্রবক্তা ছিলেন তারেক রহমান। তিনিই প্রথম আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তি নিয়ে এসেছিলেন। তিনি বলেন, তারেক রহমান এখনো আসলে কারামুক্ত নন। অসংখ্য মামলার বেড়াজালে আবদ্ধ হয়ে তিনি নির্বাসিত হয়ে আছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ

Best Electronics