Alexa সরকারের ইঙ্গিতেই তফসিল ঘোষণা: রিজভী

ঢাকা, শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯,   কার্তিক ২ ১৪২৬,   ১৮ সফর ১৪৪১

Akash

সরকারের ইঙ্গিতেই তফসিল ঘোষণা: রিজভী

 প্রকাশিত: ১৩:০২ ৯ নভেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৫:৪৬ ৯ নভেম্বর ২০১৮

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সব রাজনৈতিক দলের মতামতকে উপেক্ষা করে শুধুমাত্র সরকারের ইঙ্গিতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।  

শুক্রবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। 

রিজভী বলেন, নির্বাচনে লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড বলতে কিছুই নেই। বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের পাইকারী হারে গ্রেফতার করছে পুলিশ। তল্লাশির নামে বাড়িতে বাড়িতে তাণ্ডব চলছে। চারদিকে শুধু আতঙ্ক আর ভয়। দেশে আইন, বিচার সবই একজন ব্যক্তির হাতের মুঠোয় বন্ধি। বিরোধী দলের নেতাকর্মীরা ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত। নিম্ন আদালত সরকারের আজ্ঞাবাহী। রাজনৈতিক সংকট সমাধান না হওয়ার আগেই আকস্মিকভাবে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা একতরফা নির্বাচন অনুষ্ঠানেরই ইঙ্গিত। 

রিজভী বলেন, সব বিরোধী দলেরই দাবি ছিল মাঠ সমতল। সুষ্ঠু রাজনৈতিক পরিবেশ নিশ্চিত করে তফসিল ঘোষণা। এমনকি পর্যাপ্ত সময়ও রয়েছে কমিশনের হাতে। রাজনৈতিক দলগুলোর অনুরোধে নির্বাচন পিছিয়ে দিলে আইনের কোন ব্যত্যয় ঘটতো না।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, সংবিধানের বাইরে যাবেন না বলে প্রধানমন্ত্রী, অন্যান্য মন্ত্রী ও মহাজোটের নেতারা মুখস্থ কথাই আউড়িয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু নিজেরাই একের পর এক সংবিধান লঙ্ঘন করছেন। মন্ত্রী ও অন্যান্য সাংবিধানিক পদধারিরা পদত্যাগ পত্র জমা দিলেও তা কার্যকর হয়নি। সংবিধান অনুযায়ী সাংবিধানিক কোন পদে আসীন ব্যক্তি অথবা কোন মন্ত্রী রাষ্ট্রপতি বরাবরে প্রধানমন্ত্রীর নিকট পদত্যাগ পত্র জমা দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে সেটি কার্যকর হয়। এক্ষেত্রে চাকরিজীবীদের মতো পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করা বা না করার কোন বিধান নেই। টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীরা পদত্যাগ করলেও ঠিকই আবার দায়িত্বও পালন করে যাচ্ছেন।

তিনি আরো বলেন, সর্বোচ্চ আদালত কর্তৃক আওয়ামী কয়েকজন মন্ত্রী ও এমপি দণ্ডিত হলেও তাদের মন্ত্রীত্ব ও এমপি পদ কিন্তু ঠিকই  বজায় থাকছে। কিন্তু খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দি করে সুচিকিৎসার অধিকারও কেড়ে নেয়া হয়েছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএএম/এমআরকে/আরআই