Exim Bank Ltd.
ঢাকা, মঙ্গলবার ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

সম্রাট অশোক: পৃথিবীর ইতিহাসের এক ব্যতিক্রমী নৃপতি

নিয়াজ মাহমুদডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
সম্রাট অশোক: পৃথিবীর ইতিহাসের এক ব্যতিক্রমী নৃপতি
ছবি- সংগৃহীত

লক্ষ লক্ষ বছর পুরনো এই পৃথিবীতে মানবসভ্যতার ইতিহাস মাত্র আট হাজার বছরের। মানুষ তার সৃষ্টিশীলতা কাজে লাগিয়ে তৈরি করেছে কত বিচিত্র সভ্যতা, সাম্রাজ্য। কতো বিত্তশালী রাজা মহারাজা শাসন করে গেছেন দুর্দণ্ড প্রতাপে। কিন্তু কাল খুব নিষ্ঠুর। তার করালগ্রাসে পতিত হতে হয়েছে সবাইকে। কেবল তাদেরই স্মৃতি মনে রেখেছে পৃথিবী যারা তাদের আপন বৈশিষ্ট্যে আলোকিত করে গেছেন সময়কে। সম্রাট অশোক ছিলেন এমনই এক মহান মানুষ। তিনি রাজা বা সম্রাট হয়েও ছিলেন মহৎ ও শ্রদ্ধার্হ। সম্রাট অশোক ছিলেন চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের পৌত্র।

৩২১ খ্রিস্টপূর্বাব্দে চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠা করেন। এই সাম্রাজ্যের রাজধানী ছিল পাটালিপুত্র। নয় মাইল ব্যাপী অতিশয় মনোরম আর সুদৃশ্য নগরী। নগরীর চারদিক ঘিরে ছিল চৌষট্টিটি বিরাট সিংহদ্বার, এছাড়াও আরো কয়েকশত ছোটো ছোটো প্রবেশদ্বার ছিল। বাড়িঘর বেশীরভাগ ছিল কাঠের তৈরি। আগুন লাগবার আশঙ্কা ছিল বলে সে বিষয়ে সবিশেষ সতর্ক ব্যবস্থা ছিল। প্রধান প্রধান রাস্তায় হাজার হাজার জলপাত্র সারাক্ষণ জলে ভর্তি করে রাখা হত। প্রত্যেক গৃহস্থের উপর বাড়িতে জলপাত্র রাখার হুকুম ছিল। তাছাড়া মই, আঁকশি প্রভৃতি অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসও রাখতে হতো। খৃষ্টপূর্ব ২৯৬ সালে চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের মৃত্যু হলে তার পুত্র বিন্দুসার সিংহাসনে আরোহণ করলেন। বিন্দুসার প্রায় পঁচিশ বছর রাজত্ব করেন। বিন্দুসারের পর ২৬৮ খ্রিস্টাব্দে বিশাল সাম্রাজ্যের অধিকারী হলেন অশোক। সে সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত ছিল সমগ্র উত্তর ও মধ্য ভারত, এমনকি মধ্য এশিয়ার খানিক অংশ। সিংহাসনে বসবার নবম বৎসরের দিকে দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্ব ভারতের অন্যান্য অংশগুলো রাজ্যের মধ্যে আনবার সংকল্প নিয়ে অশোক কলিঙ্গবিজয় আরম্ভ করলেন।

ভারতের পূর্ব উপকূলে কলিঙ্গদেশ বর্তমানে ওডিশা নামে পরিচিত। কলিঙ্গবাসীরা যুদ্ধ করলো বীরের মতো কিন্তু অশোকের পরাক্রমশালী সেনাবাহিনীর সাথে পেরে উঠলোনা। এক ধ্বংসাত্মক যুদ্ধের পর বিজয় অর্জিত হলো। এই সংগ্রাম ও বীভৎস অত্যাচার এত গভীরভাবে অশোককে আঘাত করলো যে, যুদ্ধ ও সকলপ্রকার সামরিক কার্যকলাপের প্রতি তার বিতৃষ্ণা জন্মে গেল। অশোক যুদ্ধের এই ভয়াবহতা দেখে নিজের ভেতর এক বিষাদ অনুভব করলেন। এত রক্তপাত আর হত্যাকান্ডের বিনিময়ে অর্জিত রাজত্বের প্রতি নিরাসক্ত বোধ করলেন।

এরপর তিনি আর যুদ্ধ করলেন না। দক্ষিণের এক ক্ষুদ্র খন্ড বাদে সমগ্র ভারত ছিল তার অধীন আর এই ক্ষুদ্র ভূখণ্ডটিও তিনি অনায়াসে জয় করতে পারতেন। এইচ, জি, ওয়েলসের লিখেছেন, ইতিহাসে পাতায় তিনিই একমাত্র সম্রাট যিনি বিজয়লাভ সত্ত্বেও যুদ্ধবৃত্তি ত্যাগ করতে পেরেছিলেন। অশোক গৌতম বুদ্ধের অহিংস নীতির প্রতি আকর্ষণ বোধ করলেন এবং বৌদ্ধধর্মে দীক্ষিত হয়ে বৌদ্ধধর্মের বাণী প্রচারের জন্য চেষ্টা করলেন। সম্রাট অশোকের ধর্ম পালন মন্ত্র উচ্চারণ আর পূজা অর্চনায় ছিলনা, মহৎ সামাজিক উন্নয়নের জন্য তিনি মনোনিবেশ করলেন। দেশজুড়ে নির্মিত হলো বাগান, হাসপাতাল, রাস্তাঘাট।

প্রজাদের সুপেয় পানীয়জল এর অভাব পুরণের জন্য নির্মাণ করা হলো অসংখ্য কুয়ো। নারীশিক্ষার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হলো। বিশাল বিশাল চারটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হলো, সেখানে জ্ঞানের সর্বোচ্চ শাখার পাঠদান করা হতো। এমনকি সম্রাট অশোক পশুপাখিদের জন্যও হাসপাতাল নির্মাণ করেছিলেন। এভাবে প্রজাদের উন্নতির জন্য কাজ করে করে প্রায় ৩৬ বছর রাজত্ব করে ২৩২ খ্রিস্টপূর্বাব্দে সম্রাট অশোক মৃত্যুবরণ করেন।

অশোক ছিলেন একজন অসাধারণ প্রজাহিতৈষী সম্রাট।

বিশ্বখ্যাত লেখক এইচ, জি, ওয়েলস তার ‘ইতিহাসের কাঠামো’ বইতে সম্রাট অশোক সম্বন্ধে শ্রদ্ধাপূর্ণ কথা লিখেছেন। তিনি লিখছেন, “ইতিহাসের পৃষ্ঠায় পৃষ্ঠায় ভিড় করে রয়েছে যেসব রাজা রাজড়াদের নাম, তাদের মধ্যে সম্রাট অশোকের নামের দীপ্তি নক্ষত্রের সমান। ভোল্গা থেকে জাপান পর্যন্ত আজও তার নাম শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করা হয়। চীন, তিব্বত এবং তার ধর্মত্যাগ করা সত্ত্বেও ভারতবর্ষ তার মহিমার ঐতিহ্যকে আঁকড়ে রেখেছে।কনস্টানটাইন বা শার্লামেনের নাম যারা শুনেছে তাদের চেয়ে ঢের বেশি লোকের স্মৃতিপটে অশোক অবিস্মরণীয়।"

সম্রাট অশোকের এত বড় সম্মান পৃথিবীর মানুষের কাছে। সাম্রাজ্যের সর্বব্যাপী লোভের ভেতর থেকে নিজেকে মুক্ত করে ভালোবাসা আর প্রজাপালনের পথ তিনি বেছে নিয়েছিলেন। ইতিহাসের পাতায় সম্রাট অশোকের নাম তাই লেখা থাকবে স্বর্ণাক্ষরে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
ফাইভ জি চালু হতেই মরল কয়েকশ পাখি!
ফাইভ জি চালু হতেই মরল কয়েকশ পাখি!
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেয়াই মারা গেছেন
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেয়াই মারা গেছেন
ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা
ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা
দেশের মাটিতে মাশরাফির শেষ ম্যাচ
দেশের মাটিতে মাশরাফির শেষ ম্যাচ
‘বিশ্ব সুন্দরী’র মুকুট পড়া হলো না ঐশীর
‘বিশ্ব সুন্দরী’র মুকুট পড়া হলো না ঐশীর
৭ দিনের নিচে কোন ইন্টারনেট প্যাকেজ নয়
৭ দিনের নিচে কোন ইন্টারনেট প্যাকেজ নয়
মৃত সাফায়েত উদ্ধার, বাবা আটক; সুরায়েত জীবিত
মৃত সাফায়েত উদ্ধার, বাবা আটক; সুরায়েত জীবিত
সিলেটি যুবককে বিয়ের জন্য ক্যাথলিক মেয়ের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ
সিলেটি যুবককে বিয়ের জন্য ক্যাথলিক মেয়ের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ
এমিরেটসের হীরায় মোড়ানো বিমান
এমিরেটসের হীরায় মোড়ানো বিমান
পাপ যেন পিছু ছাড়ছে না নিকের!
পাপ যেন পিছু ছাড়ছে না নিকের!
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
‘যৌন মিলন দেখিয়ে আনন্দ পাই’
‘যৌন মিলন দেখিয়ে আনন্দ পাই’
বাংলাদেশি অভিনেত্রী হিসেবে পরীই প্রথম
বাংলাদেশি অভিনেত্রী হিসেবে পরীই প্রথম
বিশ্বের আদর্শ ফিগারের নারী কেলি ব্রুক
বিশ্বের আদর্শ ফিগারের নারী কেলি ব্রুক
বিএনপির হয়ে লড়বেন পার্থ
বিএনপির হয়ে লড়বেন পার্থ
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
বাবার ইচ্ছাপূরণে হেলিকপ্টারে বউ তুলে আনল ছেলে
বাবার ইচ্ছাপূরণে হেলিকপ্টারে বউ তুলে আনল ছেলে
তামিম-সৌম্য শতকে ৩৩২ তাড়া করে জয়
তামিম-সৌম্য শতকে ৩৩২ তাড়া করে জয়
তামান্নার অন্তরঙ্গ ছবি, রয়েছে শারীরিক সম্পর্ক!
তামান্নার অন্তরঙ্গ ছবি, রয়েছে শারীরিক সম্পর্ক!
“কে ডেকেছে, চলে যান, ১টায় ছেলেকে দাফন করবো”
“কে ডেকেছে, চলে যান, ১টায় ছেলেকে দাফন করবো”
শিরোনাম :
২৫৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করছে উইন্ডিজ, দেড়শতক পার । উইন্ডিজ ১৫৭/৫, ওভার ৩৪, সাই হোপ ৭৮* ২৫৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করছে উইন্ডিজ, দেড়শতক পার । উইন্ডিজ ১৫৭/৫, ওভার ৩৪, সাই হোপ ৭৮* জেএসসি-জেডিসির ফল প্রকাশ ২৪ ডিসেম্বর জেএসসি-জেডিসির ফল প্রকাশ ২৪ ডিসেম্বর উপজেলা চেয়ারম্যানরা পদত্যাগ না করেও নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন, হাইকোর্টের এ আদেশ স্থগিত করেছেন চেম্বার বিচারপতি উপজেলা চেয়ারম্যানরা পদত্যাগ না করেও নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন, হাইকোর্টের এ আদেশ স্থগিত করেছেন চেম্বার বিচারপতি উইন্ডিজের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৫৫ উইন্ডিজের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৫৫ জাপার সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের আপিল বাতিল জাপার সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের আপিল বাতিল আইএসপিআরের নতুন পরিচালক হলেন লেফট্যানেন্ট কর্নেল মো. আবদুল্লা ইবনে জায়েদ আইএসপিআরের নতুন পরিচালক হলেন লেফট্যানেন্ট কর্নেল মো. আবদুল্লা ইবনে জায়েদ