Exim Bank Ltd.
ঢাকা, রোববার ১৯ আগস্ট, ২০১৮, ৪ ভাদ্র ১৪২৫

সম্রাট অশোক: পৃথিবীর ইতিহাসের এক ব্যতিক্রমী নৃপতি

নিয়াজ মাহমুদডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
সম্রাট অশোক: পৃথিবীর ইতিহাসের এক ব্যতিক্রমী নৃপতি
ছবি- সংগৃহীত

লক্ষ লক্ষ বছর পুরনো এই পৃথিবীতে মানবসভ্যতার ইতিহাস মাত্র আট হাজার বছরের। মানুষ তার সৃষ্টিশীলতা কাজে লাগিয়ে তৈরি করেছে কত বিচিত্র সভ্যতা, সাম্রাজ্য। কতো বিত্তশালী রাজা মহারাজা শাসন করে গেছেন দুর্দণ্ড প্রতাপে। কিন্তু কাল খুব নিষ্ঠুর। তার করালগ্রাসে পতিত হতে হয়েছে সবাইকে। কেবল তাদেরই স্মৃতি মনে রেখেছে পৃথিবী যারা তাদের আপন বৈশিষ্ট্যে আলোকিত করে গেছেন সময়কে। সম্রাট অশোক ছিলেন এমনই এক মহান মানুষ। তিনি রাজা বা সম্রাট হয়েও ছিলেন মহৎ ও শ্রদ্ধার্হ। সম্রাট অশোক ছিলেন চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের পৌত্র।

৩২১ খ্রিস্টপূর্বাব্দে চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠা করেন। এই সাম্রাজ্যের রাজধানী ছিল পাটালিপুত্র। নয় মাইল ব্যাপী অতিশয় মনোরম আর সুদৃশ্য নগরী। নগরীর চারদিক ঘিরে ছিল চৌষট্টিটি বিরাট সিংহদ্বার, এছাড়াও আরো কয়েকশত ছোটো ছোটো প্রবেশদ্বার ছিল। বাড়িঘর বেশীরভাগ ছিল কাঠের তৈরি। আগুন লাগবার আশঙ্কা ছিল বলে সে বিষয়ে সবিশেষ সতর্ক ব্যবস্থা ছিল। প্রধান প্রধান রাস্তায় হাজার হাজার জলপাত্র সারাক্ষণ জলে ভর্তি করে রাখা হত। প্রত্যেক গৃহস্থের উপর বাড়িতে জলপাত্র রাখার হুকুম ছিল। তাছাড়া মই, আঁকশি প্রভৃতি অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসও রাখতে হতো। খৃষ্টপূর্ব ২৯৬ সালে চন্দ্রগুপ্ত মৌর্যের মৃত্যু হলে তার পুত্র বিন্দুসার সিংহাসনে আরোহণ করলেন। বিন্দুসার প্রায় পঁচিশ বছর রাজত্ব করেন। বিন্দুসারের পর ২৬৮ খ্রিস্টাব্দে বিশাল সাম্রাজ্যের অধিকারী হলেন অশোক। সে সাম্রাজ্যের অন্তর্ভুক্ত ছিল সমগ্র উত্তর ও মধ্য ভারত, এমনকি মধ্য এশিয়ার খানিক অংশ। সিংহাসনে বসবার নবম বৎসরের দিকে দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্ব ভারতের অন্যান্য অংশগুলো রাজ্যের মধ্যে আনবার সংকল্প নিয়ে অশোক কলিঙ্গবিজয় আরম্ভ করলেন।

ভারতের পূর্ব উপকূলে কলিঙ্গদেশ বর্তমানে ওডিশা নামে পরিচিত। কলিঙ্গবাসীরা যুদ্ধ করলো বীরের মতো কিন্তু অশোকের পরাক্রমশালী সেনাবাহিনীর সাথে পেরে উঠলোনা। এক ধ্বংসাত্মক যুদ্ধের পর বিজয় অর্জিত হলো। এই সংগ্রাম ও বীভৎস অত্যাচার এত গভীরভাবে অশোককে আঘাত করলো যে, যুদ্ধ ও সকলপ্রকার সামরিক কার্যকলাপের প্রতি তার বিতৃষ্ণা জন্মে গেল। অশোক যুদ্ধের এই ভয়াবহতা দেখে নিজের ভেতর এক বিষাদ অনুভব করলেন। এত রক্তপাত আর হত্যাকান্ডের বিনিময়ে অর্জিত রাজত্বের প্রতি নিরাসক্ত বোধ করলেন।

এরপর তিনি আর যুদ্ধ করলেন না। দক্ষিণের এক ক্ষুদ্র খন্ড বাদে সমগ্র ভারত ছিল তার অধীন আর এই ক্ষুদ্র ভূখণ্ডটিও তিনি অনায়াসে জয় করতে পারতেন। এইচ, জি, ওয়েলসের লিখেছেন, ইতিহাসে পাতায় তিনিই একমাত্র সম্রাট যিনি বিজয়লাভ সত্ত্বেও যুদ্ধবৃত্তি ত্যাগ করতে পেরেছিলেন। অশোক গৌতম বুদ্ধের অহিংস নীতির প্রতি আকর্ষণ বোধ করলেন এবং বৌদ্ধধর্মে দীক্ষিত হয়ে বৌদ্ধধর্মের বাণী প্রচারের জন্য চেষ্টা করলেন। সম্রাট অশোকের ধর্ম পালন মন্ত্র উচ্চারণ আর পূজা অর্চনায় ছিলনা, মহৎ সামাজিক উন্নয়নের জন্য তিনি মনোনিবেশ করলেন। দেশজুড়ে নির্মিত হলো বাগান, হাসপাতাল, রাস্তাঘাট।

প্রজাদের সুপেয় পানীয়জল এর অভাব পুরণের জন্য নির্মাণ করা হলো অসংখ্য কুয়ো। নারীশিক্ষার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হলো। বিশাল বিশাল চারটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা হলো, সেখানে জ্ঞানের সর্বোচ্চ শাখার পাঠদান করা হতো। এমনকি সম্রাট অশোক পশুপাখিদের জন্যও হাসপাতাল নির্মাণ করেছিলেন। এভাবে প্রজাদের উন্নতির জন্য কাজ করে করে প্রায় ৩৬ বছর রাজত্ব করে ২৩২ খ্রিস্টপূর্বাব্দে সম্রাট অশোক মৃত্যুবরণ করেন।

অশোক ছিলেন একজন অসাধারণ প্রজাহিতৈষী সম্রাট।

বিশ্বখ্যাত লেখক এইচ, জি, ওয়েলস তার ‘ইতিহাসের কাঠামো’ বইতে সম্রাট অশোক সম্বন্ধে শ্রদ্ধাপূর্ণ কথা লিখেছেন। তিনি লিখছেন, “ইতিহাসের পৃষ্ঠায় পৃষ্ঠায় ভিড় করে রয়েছে যেসব রাজা রাজড়াদের নাম, তাদের মধ্যে সম্রাট অশোকের নামের দীপ্তি নক্ষত্রের সমান। ভোল্গা থেকে জাপান পর্যন্ত আজও তার নাম শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করা হয়। চীন, তিব্বত এবং তার ধর্মত্যাগ করা সত্ত্বেও ভারতবর্ষ তার মহিমার ঐতিহ্যকে আঁকড়ে রেখেছে।কনস্টানটাইন বা শার্লামেনের নাম যারা শুনেছে তাদের চেয়ে ঢের বেশি লোকের স্মৃতিপটে অশোক অবিস্মরণীয়।"

সম্রাট অশোকের এত বড় সম্মান পৃথিবীর মানুষের কাছে। সাম্রাজ্যের সর্বব্যাপী লোভের ভেতর থেকে নিজেকে মুক্ত করে ভালোবাসা আর প্রজাপালনের পথ তিনি বেছে নিয়েছিলেন। ইতিহাসের পাতায় সম্রাট অশোকের নাম তাই লেখা থাকবে স্বর্ণাক্ষরে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআই

আরও পড়ুন
SELECT id,hl2,news.cat_id,parent_cat_id,server_img,tmp_photo,entry_time,hits FROM news AS news INNER JOIN news_hits_counter AS nh ON news.id=nh.news_id WHERE entry_time >= "2018-08-12 12:05" AND news.cat_id LIKE "%#31#%" ORDER BY hits DESC,id DESC LIMIT 10
SELECT id,hl2,news.cat_id,parent_cat_id,server_img,tmp_photo,entry_time,hits FROM news AS news INNER JOIN news_hits_counter AS nh ON news.id=nh.news_id WHERE entry_time >= "2018-08-12 12:05" ORDER BY hits DESC,id DESC LIMIT 20
সর্বাধিক পঠিত
ভারতে নিকের পরিবার, কাল প্রিয়াঙ্কার বাগদান!
ভারতে নিকের পরিবার, কাল প্রিয়াঙ্কার বাগদান!
‘২০ বছরের ছোট’ বিয়ে করেছি, আমার কী ৫০ হয়েছে?
‘২০ বছরের ছোট’ বিয়ে করেছি, আমার কী ৫০ হয়েছে?
হার্নিয়া: শুধু ছেলেদের নয়, মেয়েদেরও হয়
হার্নিয়া: শুধু ছেলেদের নয়, মেয়েদেরও হয়
মন্ত্রীকে বিয়ে করছেন পরীমনি?
মন্ত্রীকে বিয়ে করছেন পরীমনি?
পরিচালকের সঙ্গে মম’র অবৈধ সম্পর্ক, ঘটেছে হাতাহাতি!
পরিচালকের সঙ্গে মম’র অবৈধ সম্পর্ক, ঘটেছে হাতাহাতি!
প্রেমে মশগুল দেব-রুক্ষণী, বিয়ের আগেই শারীরিক সম্পর্ক!
প্রেমে মশগুল দেব-রুক্ষণী, বিয়ের আগেই শারীরিক সম্পর্ক!
‘একটি সম্পর্কে বিশ্বাসী নয়, অনেকের সঙ্গে একাধিকবার লিপ্ত হয়েছি’
‘একটি সম্পর্কে বিশ্বাসী নয়, অনেকের সঙ্গে একাধিকবার লিপ্ত হয়েছি’
‘ছোট’কে বিয়ে করে শিরোনাম, অস্বীকারে তোপের মুখে নায়িকা!
‘ছোট’কে বিয়ে করে শিরোনাম, অস্বীকারে তোপের মুখে নায়িকা!
প্রাকৃতিকভাবেই চুল হবে স্ট্রেইট!
প্রাকৃতিকভাবেই চুল হবে স্ট্রেইট!
বিয়ে সেরেছেন পপি, বর পুরনো প্রেমিক!
বিয়ে সেরেছেন পপি, বর পুরনো প্রেমিক!
প্রথম স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ, ফের বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন সালমা?
প্রথম স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ, ফের বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন সালমা?
অতিরিক্ত ঘামছেন? যা করবেন…
অতিরিক্ত ঘামছেন? যা করবেন…
প্রেম চলছে নাকি বিয়েও হয়েছে?
প্রেম চলছে নাকি বিয়েও হয়েছে?
অভিনয় ছেড়ে রাজনীতিতে বিদ্যা বালান, হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী!
অভিনয় ছেড়ে রাজনীতিতে বিদ্যা বালান, হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী!
কারিনাকে পেতে গুনতে হবে ৮ কোটি!
কারিনাকে পেতে গুনতে হবে ৮ কোটি!
কোরবানির গোশত সংরক্ষণ পদ্ধতি
কোরবানির গোশত সংরক্ষণ পদ্ধতি
সোনা, হিরে ছাড়াই সাতপাক ঘুরবেন দীপিকা, কেন জানেন?
সোনা, হিরে ছাড়াই সাতপাক ঘুরবেন দীপিকা, কেন জানেন?
‘দেহ দাও নয়তো স্তন বড় করো’!
‘দেহ দাও নয়তো স্তন বড় করো’!
গরু মাংস শুকিয়ে সংরক্ষণ করবেন যেভাবে
গরু মাংস শুকিয়ে সংরক্ষণ করবেন যেভাবে
বিয়ে করছেন তানজিন তিশা, পাত্র বাবার বন্ধুর ছেলে!
বিয়ে করছেন তানজিন তিশা, পাত্র বাবার বন্ধুর ছেলে!
শিরোনাম:
কালজয়ী চলচ্চিত্রকার জহির রায়হানের ৮৪তম জন্মদিন আজ প‌বিত্র হজ পালন কর‌তে গি‌য়ে মোট ৫১ জ‌ন মারা গেছেন খাগড়াছড়িতে সংগঠিত হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে