Alexa সবচেয়ে প্রভাবশালী পাসপোর্ট জাপানের, ৯৭ নম্বরে বাংলাদেশ

ঢাকা, বুধবার   ১৭ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৩ ১৪২৬,   ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪০

সবচেয়ে প্রভাবশালী পাসপোর্ট জাপানের, ৯৭ নম্বরে বাংলাদেশ

ফিচার ডেস্ক

 প্রকাশিত: ১১:৫৩ ১০ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১১:৫৩ ১০ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

দেশের গণ্ডি পেরোতে প্রথম শর্তই পাসপোর্ট। পাসপোর্ট না থাকলে বিশ্বে কোনো দেশেই যাওয়া সম্ভব নয়। তারপর প্রয়োজন ভিসা। কিন্তু সারাবিশ্বের পাসপোর্টধারীরা ভিসা ছাড়া কয়টি দেশে যাতায়াতের সুযোগ পান! যেমন, ২০১৮ সালের পরিসংখ্যানে বাংলাদেশী পাসপোর্টধারীরাও ভিসা ছাড়া যেতে পারেন ১৮টি দেশে। এছাড়া ২৬টি দেশে বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসার ব্যবস্থা রয়েছে।

এসবই নির্ভর করে, পাসপোর্টের র্যাংকিং অনুযায়ী। এই র‌্যাংকিংকে বলা হয় হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্স। ২০১৯ সালের সবচেয়ে প্রভাবশালী পাসপোর্ট নির্বাচিত হয়েছে জাপান। দেশটির পাসপোর্টধারীরা ভিসা ছাড়া যেতে পারবেন ১৯০টি দেশে। বিশ্বের আর কোনো দেশের পাসপোর্টধারীদের জন্য এমন সুবিধা নেই। ফলে জাপান একাই শীর্ষে আছে তালিকায়। গত বছর ১৮৯টি দেশে ভিসা ছাড়া যাতায়াতের সুবিধা থাকায় সিঙ্গাপুরের সঙ্গে যৌথভাবে শীর্ষস্থানে ছিলো দেশটি। এবার মিয়ানমারের কাছ থেকে ভিসামুক্ত যাতায়াতের সুবিধা যোগ হওয়ায় একাই শীর্ষস্থান দখল করেছে দেশটি।

বাংলাদেশী পাসপোর্ট

দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে (যৌথভাবে) সিঙ্গাপুর ও দক্ষিণ কোরিয়া। এশিয়ার এই দুটি দেশের নাগরিকরা ১৮৯টি দেশে ভিসা ছাড়া প্রবেশ করতে পারবে। ১৮৮টি দেশে ভিসামুক্ত ঢোকার সুবিধা থাকায় এবারও ৩ নম্বরে ইউরোপের দেশ ফ্রান্স ও জার্মানির দখলে। তালিকার ৪ নম্বরে যৌথভাবে আছে ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, ইতালি ও সুইডেন। এসব দেশের পাসপোর্টধারীরা ১৮৭টি দেশে ভিসা ছাড়া যাওয়া-আসার সুবিধা পান। ৫ নম্বরে আছে লুক্সেমবুর্গ ও স্পেন। দেশ দুটোর পাসপোর্টধারীরা ১৮৬টি দেশে শুধু পাসপোর্ট নিয়েই যেতে পারেন।

বিশ্বের সবচেয়ে দুর্বল পাসপোর্ট ইরাক ও আফগানিস্তানের। এ দুটি দেশের নাগরিকরা মাত্র ৩০টি দেশে ভিসা ছাড়া যেতে পারেন।  বাংলাদেশের পাসপোর্টধারীরা বিশ্বের ৪১টি দেশে ভিসামুক্ত যাতায়াতের সুবিধা পান। ২০১৯ সালের হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্সে লাল-সবুজ পতাকার অবস্থান ৯৭ নম্বরে। 

ডেইলিবাংলাদেশ/এনকে