শ্রদ্ধার জন্য প্রস্তুত শহীদ মিনার

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৪ ১৪২৬,   ১৩ শা'বান ১৪৪১

Akash

শ্রদ্ধার জন্য প্রস্তুত শহীদ মিনার

মো: আব্দুল্লাহ আল মামুন ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:০৩ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ২০:২৫ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা বাকি। একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা আন্দোলনের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ফুলে ফুলে ভরে যাবে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার। দেশজুড়ে পালিত হবে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। প্রতিবছরই একুশের প্রথম প্রহরে হাজারো মানুষের বিনম্র শ্রদ্ধায় রাজধানীর সব পথ গিয়ে মেশে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। 

বৃহস্পতিবার সরেজমিনে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ঘুরে দেখা গেছে, এরইমধ্যে ধুয়েমুছে প্রস্তুত করা হয়েছে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের মূল বেদি। এখন চলছে রং তুলির শেষ আঁচর। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থীরা এই রং তুলির কাজ করছে। তাদের প্রত্যাশা বিকেলের মধ্যেই শেষ হবে রং তুলির কাজ। সন্ধ্যার মধ্যেই এ এলাকার আশপাশে যানচলাচলে নিয়ন্ত্রণ আনা হবে।     

বরাবরের মতো এবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও আজিমপুর কবরস্থানে সর্বস্তরের জনসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনসহ যাবতীয় অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

এদিকে, একুশে ফেব্রুয়ারি সামনে রেখে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে পর্যাপ্ত নিরাপত্তাব্যবস্থা নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। 

শহীদ মিনারের নিরাপত্তাব্যবস্থা পর্যবেক্ষণে এসে বৃহস্পতিবার সকালে র‍্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও মহান শহীদ দিবস উপলক্ষে তিন ধাপে নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

তিনটি ধাপের প্রথমটি হচ্ছে, শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানানোর পূর্ববর্তী সময়। অর্থাৎ এটি এখন চলছে। দ্বিতীয় ধাপ শুরু হবে সন্ধ্যা থেকে যা চলবে আগামীকাল শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত। এরপরে তৃতীয় ধাপে আমাদের নিরাপত্তা বলবৎ থাকবে।

এছাড়া পোষাকের পাশাপাশি সাদা পোষাকে র‍্যাব, মোটরসাইকেল ও গাড়ির টহল, ডগ স্কয়াড, বোম ডিস্পোজাল টিম এমনকি হেলিকপ্টারও স্ট্যান্ডবাই থাকবে। যাতে করে আমরা যেই কোন পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে পারি।

এদিকে আজিমপুর কবরস্থানে অনেকেই যান শহীদদের কবরে শ্রদ্ধা জানাতে, সেখানেও র‍্যাবের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে।

নিরাপত্তার কোন হুমকি আছে কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা সমস্ত গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে সমন্নয় করে কাজ করছি। আমাদের নিজস্ব গোয়েন্দারাও স্যোশাল মিডিয়াসহ অন্যান্য বিষয়গুলোতে নজর রাখছে। এখন পর্যন্ত নিরাপত্তার কোন হুমকি নেই।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএএম/টিআরএইচ/এসআই