Alexa শ্যালো-ড্রেজারে ভাঙছে যমুনার তীর

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ৭ ১৪২৬,   ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

শ্যালো-ড্রেজারে ভাঙছে যমুনার তীর

 প্রকাশিত: ১৭:২৩ ৩১ আগস্ট ২০১৮   আপডেট: ১৭:২৩ ৩১ আগস্ট ২০১৮

যমুনা নদীতে শ্যালো মেশিন

যমুনা নদীতে শ্যালো মেশিন

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলায় যমুনা নদীতে শ্যালো মেশিন,ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে তোলা হচ্ছে বালু। এতে বিলীন হচ্ছে যমুনা নদীর তীর। 

সরেজমিনে দেখা গেছে, শাখা যমুনা নদীর জোতজয়রাম, চকবসন্ত, রাজসিংহপুর ও মিরপুর মৌজায় নদীতে শ্যালো মেশিন, ড্রেজার দিয়ে রাতদিন বালু তোলা হচ্ছে। শত শত ট্রলি দিয়ে এই বালু বহন করে নির্মাণ ও বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা হয়। 

এলাকার জোতজয়রাম গ্রামের ভ্যানচালক আছাদুল ইসলাম বলেন, অবৈধভাবে বালু তোলা এবং বালু বহনের কারণে রাস্তা ভেঙে যাচ্ছে। এতে মানুষের চলাচলে অসুবিধার সৃষ্টি হচ্ছে। খেলার মাঠ, মসজিদ, এতিমখানা, ঈদগাহ মাঠ ও শিশু পার্ক হুমকির মুখে পড়েছে।

চকবসন্ত বালু মহালের ইজারাদার আনোয়ার হোসেন বলেন, ইজারার শর্তে শ্যালো ও ড্রেজার দিয়ে বালু তোলার কথা না থাকলেও নদীতে পানি বেড়ে যাওয়ায় মেশিন দিয়ে বালু তুলে বিক্রি করছেন তিনি। প্রশাসন বালু তুলতে নিষেধ করলে তারাও মেশিন দিয়ে বালু তুলবেন না। 

এব্যাপারে বিরামপুর উপজেলা ভুমি অফিসের সার্ভেয়ার ফয়জার রহমান বলেন, দীর্ঘদিন থেকে অবৈধভাবে মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের বিষয়ে তিনি সহকারী কমিশনার (ভুমি) নাজমুন্নাহারকে অবগত করেছেন। 

উপজেলা ইউএনও তৌহিদুর রহমান বলেন, তিনি অচিরেই এই অবৈধ মেশিন দিয়ে বালু তোলা বন্ধ করে দিবেন।

দিনাজপুরের ডিসি (রাজস্ব) মাহবুবুর রহমান জানান, ইজারাকৃত ঘাট থেকে ইজারাদারগণ বেলচা দিয়ে বালু তুলতে পারবেন। শ্যালো মেশিন বা ড্রেজার দিয়ে নদী থেকে বালু তোলা সম্পুর্ণ অবৈধ। এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থাগ্রহণের জন্য তিনি বিরামপুরের ইউএনওকে নির্দেশনা দিবেন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম