শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ঢাকার কাছে চ্যাম্পিয়নদের হার

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৮ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৫ ১৪২৬,   ১৪ শাওয়াল ১৪৪০

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ঢাকার কাছে চ্যাম্পিয়নদের হার

ক্রীড়া প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ১৭:৫১ ১১ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৭:৫৭ ১১ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের আজকের হাই ভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্স ও গত আসরের রানার্সআপ ঢাকা ডাইনামাইটস। টস জিতে সাকিবের ঢাকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় রাইডার্স অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ১৮৩ রানের লড়াকু সংগ্রহ করে সাকিবের ঢাকা ডাইনামাইটস। জবাবে জয়ের কাছে গিয়েই থেমে যায় মাশরাফীর রাইডার্স। ২ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ঢাকা ডাইনামাইটস।

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুক্রবার ঢাকার ছুঁড়ে দেয়া ১৮৩ রানের লক্ষ্যে রংপুর রাইডার্সের হয়ে ব্যাটে নামে ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব গেইল ও মেহেদি মারুফ। তৃতীয় ওভারে শুভাগত হোমের বলে গেইলকে এলবি আউট দেয় আম্পায়ার।

কিন্তু রিভিউ নিয়ে জিতে যায় গেইল। কিন্তু পরের বলে সৃষ্টি হয় এক বিস্ময়। গেইল তুলে মারলে স্টেট বাউন্ডারি ও পাশ থেকে বল লুফে নিয়ে পোলার্ডের হাতে ছুঁড়ে দেন আন্দ্রে রাসেল। আর এতেই ফিরতে হয় গেইলকে। সবাইকে অবাক করে দিয়ে এমন বিস্ময়কর ঘটনা ঘটান আন্দ্রে রাসেল। এরপর আন্দ্রে রাসেলের বলে ক্যাঁচ তুলে দিয়ে ফেরেন মেহেদি মারুফ।

আর উইকেট না পড়ায়। রেলি রুশো ও মোহাম্মদ মিঠুনের ব্যাটে বড় প্রতিরোধ গড়ে তোলে রাইডার্স। কিন্তু দলীয় ১৪৬ রানের সময় ক্রিজ থেকে বেড় হতে শর্ট করতে গেলে স্টাম্পিং এ ঘরে ফেরেন রেলি রুশো(৮৩)। তারপর পরি বোল্ড আউট হয়ে ফেরেন মিথুনও। বিধি বাম অধিনায়ক মাশরাফী(০) ও দাঁড়াতে পারলেন না ক্রিজে।

এলিস ইসলামের বলে বোল্ড হয়ে ফিরলেন তিনিও। এলিস ইসলামের ভাগ্য আজ বুঝি পক্ষে। পরের বলে তুলে নিলেন ফরহাদ রেজাকে(০)ও। আর বিপিএলের এবারের আসরের প্রথম হ্যাটট্রিকটা ও নিজের করে নিলেন এই বোলার। পরের ওভারের আন্দ্রে রাসেলের হাতে ক্যাঁচ বানিয়ে সোহাগ গাজীকে ফেরালেন সুনিল নারাইন। কিছুটা জয়ের আশা জাগিয়ে সুনিল নারাইনের বলেই বোল্ড হয়ে মাঠ ছাড়লেন বেনি হাওেল(১৩)।

চ্যাম্পিয়নদের ভাগ্য খারাপ আর উইকেট ন পড়লে ওভার শেষ হ্যে যাওয়ায় ১৮১ রানে থেমে যায় রাইডার্সরা। ২ রানের জয় পায় ঢাকা।

শুরুতে টস হেরে ঢাকার হয়ে ওপেনিংয়ে আসেন হযরতুল্লাহ জাযাই ও সুনিল নারাইন। বরবর ভালো খেলা জাযাই আজ বুঝি জমে গেলেন। দ্বিতীয় ওভারে সোহাগ গাজীর প্রথম বলেই বোল্ড আউট হলেন জাযাই(১)। এরপরের ওভারে মাশরাফীর চতুর্থ বল ক্যাঁচ তুলে দিলেন সুনিল নারাইন। নারাইনের বিধি বাম। ক্যাঁচটি লুফে নিলেন রাবি বোপারা। দলীয় ১৯ রানে ফিরে যান এই ব্যাটসম্যান। এরপর আবারো সোহাগ গাজীতে ফিরল রনি তালুকদার(১৮)।

সোহাগ গাজীর বলে বল তুলে মারনে রনি। আর তা খুব অসাধারন ভাবে লুফে নেয় বেনি হওেল। সাকিব ও মিজানুর রহমান এগোচ্ছিল ঢাকা। কিন্তু বাঁধ সাধল বেনি হওেল। এলবিতে ফেরালেন মিজানুর রহমানকে(১৫)। এরপর শুরু হয় পোলার্ড ঝড়। ২৬ বলে ৬২ রানের ইনিংস খেলেন এই ক্যারাবীয়ান। বেনি হওেলের বলে মেহেদি মারুফের হাতে বলে তুলে দেন এই ব্যাটসম্যান।

এরপরেই ফেরেন সাকিব(৩৬)। ফারহাদ রেজার বলে মোহাম্মদ মিথুনের হাতে ক্যাঁচ তুলে দেন অধিনায়ক।ধারাবাহিকতায় ১৩ বলে ২৩ রানের ইনিংস খেলেন আন্দ্রে রাসেল। শফিউলের বলে ফেরেন তিনি। এরপর শুভাগত হোমকেও ফেরান শফিউল। আর কোন উইকেট ছাড়াই ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে লড়াকু ১৮৩ রানের সংগ্রহ করে ঢাকা ডাইনামাইটস।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস