Alexa শেরপুরে নব্য জেএমবি’র সদস্য গ্রেফতার

ঢাকা, রোববার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৭ ১৪২৬,   ২২ মুহররম ১৪৪১

Akash

শেরপুরে নব্য জেএমবি’র সদস্য গ্রেফতার

 প্রকাশিত: ০৮:৫৩ ২৩ অক্টোবর ২০১৭   আপডেট: ১১:৫৩ ২৩ অক্টোবর ২০১৭

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

শেরপুর জেলার নকলা থানার চন্দ্রকোণা বাজার থেকে বিস্ফোরক মামলার আসামি নব্য জেএমবি’র সদস্য আবুল কাশেমকে (২২) টাঙ্গাইল থেকে গ্রেফতার করেছে শেরপুর জেলা পুলিশ।

রবিবার (২২ অক্টোবর) টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতি উপজেলার এলেঙ্গা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

শেরপুর জেলার পুলিশ সুপার (এসপি) মো. রফিকুল হাসান গণি তার সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।

জেএমবি সদস্য আবুল কাশেম শেরপুরের নকলা উপজেলার চন্দ্রকোনা বাজারের মৃত শফিউল হকের ছেলে।

এসপি রফিকুল হাসান গণি জানান, গোপন সংবাদ ও প্রযুক্তির মাধ্যমে জানা যায়, রবিবার ভোরে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন জেএমবি’র একদল সদস্য নিয়ে আবুল কাশেম চাপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবে। এ তথ্য পেয়ে জেলা পুলিশের একটি দল সকালে কালিহাতি উপজেলার এলেঙ্গা বাস টার্মিনালে অবস্থান নিয়ে তাকে গ্রেফতার করে।

সোমবার (২৩ অক্টোবর) তাকে আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ড চাওয়া হবে বলেও জানান পুলিশ সুপার।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সংগঠনের ঊর্ধ্বতনদের নির্দেশে গত ফেব্রুয়ারি মাসে কাশেম নকলার চন্দ্রকোনায় ৬শ’ টাকায় একটি ঘর ভাড়া নেয়। এরপর মার্চ মাসের এক রাতে একটি ট্রাকে করে ১৮টি কন্টেইনারভর্তি রাসায়নিক পদার্থ নিয়ে এসে সে ওই দোকানে মজুত করে, যা দিয়ে মূলত বিস্ফোরক তৈরি করা হয়। কাশেম ও তার সহযোগীদের পরিকল্পনা ছিল, কোরবানির ঈদ এবং দুর্গাপূজায় বড় ধরনের নাশকতামূলক কাণ্ড ঘটানো। কিন্তু জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার বিশেষ নজরদারির কারণে তাদের পরিকল্পনা সফল হয়নি।

নকলা উপজেলার চন্দ্রকোনা বাজারের তানিসা গার্মেন্টস অ্যান্ড সুজ নামের একটি দোকানের ভেতর থেকে গত ৫ অক্টোবর রাতে বিস্ফোরক তৈরির ১৮টি কন্টেইনারভর্তি ৫৪০ লিটার রাসায়নিক তরল পদার্থ উদ্ধার করে পুলিশ।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ