শিশুদের সেবক হিসেবে কাজ করতে চান আতিকুল
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=112891 LIMIT 1

ঢাকা, বুধবার   ০৫ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২২ ১৪২৭,   ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

শিশুদের সেবক হিসেবে কাজ করতে চান আতিকুল

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৩২ ১৮ জুন ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

শহরের শিশুদের সেবক হিসেবে কাজ করতে চান বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, নগর পিতা হিসেবে নয়, কাজ করতে চাই শহরের শিশুদের সেবক হিসেবে। সবাই একসঙ্গে সুন্দর শহরের জন্য কাজ করবো, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য সুন্দর আগামী তৈরি করবো। 

মঙ্গলবার নীতি নির্ধারক ও নগর কর্তাদের সঙ্গে শিশুদের মতবিনিময়ের মাধ্যমে শিশু বান্ধব নগরী গড়ে তোলার অঙ্গীকার প্রতিষ্ঠার উদ্দেশে অনুষ্ঠিত শিশু সম্মেলনে এ কথা বলেন মেয়র।

রাজধানীর ২৫টি স্কুল থেকে আগত প্রায় ৭০০ শিশুর অংশগ্রহণে এদিন দিনজুড়ে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের মিলনায়তনে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মিলিতভাবে সম্মেলনটির আয়োজন করে সেভ দ্য চিলড্রেন ইন বাংলাদেশ, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স ও সোশ্যাল অ্যান্ড ইকোনমিক এনহ্যান্সমেন্ট প্রোগ্রাম (সিপ)।

এ সময় মেয়র আতিক জানান, প্রধানমন্ত্রীর কাছে  আমি শেরেবাংলা নগরে যে নতুন রাস্তা হচ্ছে তার পাশে সাইকেল লেন তৈরি করা, শিশুদের জন্য পর্যাপ্ত খেলার মাঠের ব্যবস্থা করা, প্রচুর বৃক্ষ রোপণ ও আরো বেশ কয়েকটি প্রস্তাব নিয়ে গিয়েছি। তিনি শোনামাত্র সব প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছেন। আমাদের কাজ শুরু হয়ে গেছে, সামনে আরো হবে।

এদিন সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে সারাদিন চলা এ সম্মেলনে শিশুদের খেলতে পারার অধিকার ও শিশু বান্ধব নগরব্যবস্থার উপর দুটি প্রেজেন্টেশন দেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) সদস্য সচিব ইকবাল হাবীব এবং বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ প্ল্যানার্স (বিআইপি) এর সাধারণ সম্পাদক ড. আদিল মোহাম্মদ খান।

অনুষ্ঠানে ঢাকা শহরের ছয়টি স্কুলে শিশুদের ফুসফুসের কার্যকারিতা নিয়ে করা গবেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন ইকবাল হাবীব। সেখানে দেখা যায়, ২৫ শতাংশ শিশুর ফুসফুস পূর্ণমাত্রায় কাজ করছে না। তাদের ফুসফুস কাজ করছে গড়ে ৬৫-৮০ শতাংশ। 

ইকবাল হাবীব জানান, রাজধানীর ফার্মগেট এলাকার ছয়টি স্কুলের চতুর্থ থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত বিভিন্ন বয়সী শিশুদের ফুসফুসের কার্যকারিতা পরীক্ষা করা হয়। ভয়ঙ্কর বিষয় হল, ২৫ শতাংশ শিশুর ফুসফুসের কার্যকারিতা শতভাগ নেই। দিনকে দিন কার্যকারিতা হ্রাসের হার আরো বৃদ্ধি পাচ্ছে। মূলত বায়ু দূষণের কারণে পূর্ণ কার্যকারিতা হারাচ্ছে শিশুদের ফুসফুস।

পরে বিষয়টি মাথায় রেখে, নগর পরিকল্পনায় শিশুদের মতামত ও চিন্তার প্রতিফলন ঘটাতে শিশুরা ঢাকা শহরকে কিভাবে দেখতে চায় এবং তাদের প্রস্তাবনা কী ইত্যাদি বিষয়ে কথা বলেন নীতি নির্ধারক ও নগর কর্তারা।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএসআই/আরএইচ