Alexa শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টায় মাদরাসা শিক্ষক গ্রেফতার

ঢাকা, রোববার   ২১ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৬ ১৪২৬,   ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪০

শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টায় মাদরাসা শিক্ষক গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২৩:৫৩ ১১ জুলাই ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় নয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে রফিক মিয়া নামে এক মাদরাসা শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কায়েমপুর ইউপির মইনপুর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

রফিক মিয়া হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার বানেশ্বর গ্রামের আবু মিয়ার ছেলে। তিনি মইনপুর হাফিজিয়া ইসলামিয়া মাদরাসার শিক্ষক। গত রোববার (৭ জুলাই) মাদরাসায় নতুন শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। 

স্থানীয়রা জানান, রফিক মিয়া মাদরাসায় যোগদানের পর থেকে প্রতিদিন সকালে মক্তবে শিশুদের পড়াতো। বৃহস্পতিবার সকালে শিশুটি প্রথমদিন ওই মক্তবে পড়তে যায়। পড়া শেষে অন্য শিশুদের ছুটি দিয়ে ওই শিশুটিসহ তিন-চারজনকে মাদরাসা পরিষ্কারের নামে তাদের আটকে রাখে। ওই শিশুটিকে তার কাছে রেখে বাকিদের মাদরাসার ময়লা পরিস্কারের কাজে লাগায় শিক্ষক। এই ফাঁকে তাকে পড়ানোর ছলে তার কোলে বসিয়ে ওই শিক্ষক শিশুর গোপনাঙ্গসহ শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। একপর্যায়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় শিশুটি চিৎকার দিতে চাইলে রফিক তাকে ছেড়ে দেয়।

শিশুটি কাঁদতে কাঁদতে বাড়িতে গিয়ে তার মাকে জানায়। তখন বাড়ির লোকজন গিয়ে ওই শিক্ষককে আটক করে। ওইদিন সকালে গ্রামের লোকজন এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চাইলে একপর্যায়ে তিনি দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। উপস্থিত লোকজন তাকে আটক করে থানায় খবর দিলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।

কসবা থানার ওসি (তদন্ত) আসাদুল ইসলাম বলেন, রফিক মিয়াকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটির মামা মো. ফারুক মিয়া বাদী হয়ে আসামির বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু করেছেন। আসামিকে আদালতের মাধ্যমে হাজতে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম