শিল্পখাতের চাহিদা অনুযায়ী শিক্ষা কারিকুলাম যুগোপযোগী করার আহ্বান
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=191956 LIMIT 1

ঢাকা, শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৩ ১৪২৭,   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

শিল্পখাতের চাহিদা অনুযায়ী শিক্ষা কারিকুলামকে যুগোপযোগী করার আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৩৯ ৪ জুলাই ২০২০   আপডেট: ১৬:৪৪ ৪ জুলাই ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

শিল্পখাতের চাহিদা অনুযায়ী শিক্ষা কারিকুলামকে যুগোপযোগী করে ঢেলে সাজানোর আহ্বান জানিয়েছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)। 

শনিবার ডিসিসিআই আয়োজিত ‘কোভিড-১৯ পরবর্তী বাংলাদেশের শিল্পখাতের প্রস্তুতি: বিনিয়োগ ও দক্ষতা’ বিষয়ক ওয়েবিনারে এ আহ্বান জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম।

উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, কোভিড-১৯ পরবর্তী সময়ের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সরকারের আন্তমন্ত্রণালয় সমন্বয় আরো বাড়াতে হবে। তিনি জানান, এরইমধ্যে সরকারি পলিটেকনিক্যাল সমূহে ভর্তি হওয়ার জন্য বিদ্যমান বয়সের যে প্রতিবন্ধকতা ছিল, তা তুলে দেয়া হয়েছে। এর ফলে নতুন গ্র্যাজুয়েট এবং বিদেশ ফেরত কর্মীদের দক্ষতা উন্নয়ন করা সম্ভব হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এ সময় উপমন্ত্রী বলেন, দেশের বেসরকারিখাত ও বিশেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সঙ্গে সমন্বয় আরো বাড়ানো প্রয়োজন। যার মাধ্যমে শিল্পখাতের চাহিদামাফিক শিক্ষাকার্যক্রম চালু এবং দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টি করা সম্ভব হবে। জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ এরইমধ্যে আমাদের শ্রমিকের দক্ষতার অভাব পূরণে ‘স্কিল ম্যাপিং’ নিয়ে কাজ করছে। 

বিডা’র নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, বিনিয়োগ বান্ধব পরিবেশ উন্নয়নে সরকার দেশের বেসরকারিখাতের সঙ্গে একযোগে কাজ করতে অত্যন্ত আগ্রহী। এছাড়াও দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে বের হওয়া গ্র্যাজুয়েটদের শিল্পখাত ব্যবস্থাপনার কাজে নিয়োজিত করার লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের দক্ষতা উন্নয়নের উপর জোরারোপ করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, শিল্পখাত চালানোর জন্য প্রয়োজনীয় দক্ষ মানব সম্পদ না থাকায় প্রতিনিয়ত বিদেশিদের নিয়োগদানের জন্য বিডা’র পক্ষ হতে অনুমতি দিতে হয়। এ অবস্থা উত্তরণে আমাদের শিক্ষা কারিকুলামকে শিল্পমুখী ও যুগোপযোগী করার কোনো বিকল্প নেই।

ঢাকা চেম্বারের সভাপতি শামস মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের মোট কর্মসংস্থানের ২০ শতাংশ আসে শিল্পখাত হতে, তবে পর্যাপ্ত শ্রমশক্তি থাকা সত্ত্বেও আমাদের দক্ষ শ্রমিকের যথেষ্ট অভাব দেখা যাচ্ছে। ঢাকা চেম্বারের সভাপতি কোভিড-১৯ মহামারির সংকট উত্তরণ ও দক্ষ জনশক্তি সৃষ্টিতে শিক্ষা কারিকুলামের সংষ্কার ও শিল্পখাতে চাহিদামাফিক শিক্ষা ব্যবস্থার যুগোপযোগী করার আহ্বান জানান। পাশাপাশি চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সুবিধা কাজে লাগানো, বিদেশি বিনিয়োগ স্থানান্তরের সুবিধা কাজে লাগানোর জন্য স্থানীয় অবকাঠামো খাতের উন্নয়নের ওপর জোর দেয়া, এসএমই উদ্যোক্তাদের সহজে ঋণ দানের বিষয়ও উল্লেখ করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন বিজনেস ইন্টিলিজেন্স লিমিটেড এর উদ্যোক্তা শাকিব কোরেশি। তিনি বলেন, সম্প্রতি স্থানীয় শিল্প-কারখানার কাজের সুযোগ কমে যাওয়া ও বিদেশে হতে প্রবাসীদের দেশে ফেরত আসার কারণে আমাদের কর্মহীন মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। এ অবস্থা উত্তরণে অনেকেই আত্মকর্মসংস্থানের দিকে ঝুঁকবে। তবে এজন্য আমাদের প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেয়া আবশ্যক। তিনি বলেন, বিনিয়োগ আকর্ষণে প্রয়োজনীয় পরিবেশ তৈরি করার পাশাপাশি কোন খাতে বিনিয়োগ আসবে, সেটাও আমাদের চিহ্নিত করতে হবে। আমাদের শ্রমবাজার ধরে রাখতে হলে চাহিদামাফিক দক্ষতা উন্নয়ন এবং দেশে-বিদেশে যারা কাজ করছে তাদের একটি ডাটাবেইজ তৈরি করার ওপর জোর আরোপ করেন। তিনি আরো বলেন, এখন সময় এসেছে ভোকেশনাল ও টেকনিক্যাল শিক্ষা ব্যবস্থার ওপর আরো বেশি মাত্রায় জোর আরোপ করার।      

নির্ধারিত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ-ফিলিপাইন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি এবং সেন্টার ফর লিডারশিপ এর হেড কোচ ইঞ্জিনিয়ার আকবর হাকিম, দি কম্পিউটার্স লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক খন্দকার আতিক-ই-রাব্বানী, এফসিএ, ঢাকা চেম্বারের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ বাশিরউদ্দিন।

এছাড়া ডিসিসিআই প্রাক্তন সভাপতি আসিফ ইব্রাহীম, প্রাক্তন ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম, হুমায়ুন রশিদ, প্রাক্তন সহ-সভাপতি খন্দকার শহীদুল ইসলাম, প্রাক্তন পরিচালক খাইরুল মজিদ মাহমুদ, মো. শরফুদ্দিন এবং দাতা মাগফুর প্রমুখ মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএস/জেডআর