তিন প্রকল্পে বিশ্বব্যাংকের ৫১৫ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৩ মে ২০১৯,   জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪২৬,   ১৭ রমজান ১৪৪০

Best Electronics

তিন প্রকল্পে বিশ্বব্যাংকের ৫১৫ মিলিয়ন ডলার অনুমোদন

 প্রকাশিত: ০০:৩৬ ৭ অক্টোবর ২০১৮   আপডেট: ০৭:২৭ ৭ অক্টোবর ২০১৮

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা ও সামুদ্রিক মৎস্যসম্পদ আহরণের উন্নয়ন, বন ব্যবস্থাপনা এবং গ্রামীণ সড়ক উন্নয়ন- এই তিনটি প্রকল্পে বিশ্বব্যাংক ৫১৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থ অনুমোদন করেছে। 

মিয়ানমারে সহিংসতায় পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের কক্সবাজারে আশ্রয়দানকারী স্থানীয় কমিউনিটিসহ গ্রামীণ জনগণের দারিদ্র হ্রাস এবং নতুন জীবিকায়নের সুযোগ সৃষ্টির সহায়ক হিসেবে এই অর্থ ব্যয় করা হবে।  শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়।

বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালে বিশ্বব্যাংকের আবাসিক প্রতিনিধি কিমিয়াও ফান বলেন, এই তিনটি প্রকল্প গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর বিশেষ করে দরিদ্র অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসা লোকদের জন্য সুযোগ সৃষ্টি করবে, একই সঙ্গে দেশের জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় তাদের সক্ষমতার উন্নয়ন ঘটবে।

বিশ্বব্যাংক সাসটেইনেবল ফরেস্ট অ্যান্ড লাইভলিহুড প্রকল্পে ১৭৫ মিলিয়ন ডলার দেবে। এর মাধ্যমে স্থানীয় কমিউনিটিকে সম্পৃক্ত করে সমন্বিত বন ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলা হবে। উপকূলীয় সবুজ বেষ্টনীসহ প্রায় ৭৯ হাজার হেক্টর বনে গাছ লাগানো হবে।

বিশ্বব্যাংকের সিনিয়র ন্যাচারাল রিসোর্সেস ম্যানেজমেন্ট স্পেসালিস্ট এবং প্রকল্পের টাস্ক টিম লিডার মাধবী পিল্লাই বলেন, উপকূলীয়, পার্বত্য এবং দেশের মধ্যাঞ্চলীয় জেলাগুলোতে ৪০ হাজার পরিবার এতে লাভবান হবেন। 

কোস্টাল মেরিন ফিসারিজ প্রকল্পে দেয়া হবে ২৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং দ্বিতীয় বৃহত্তম রুরাল ট্রান্সপোর্ট ইমপ্রুভিং প্রকল্পে বাড়তি বরাদ্দ হিসেবে দেয়া হচ্ছে ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। 

সূত্র- বাসস

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ

Best Electronics