শিবপুরে পুলিশ-গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ৪

.ঢাকা, বুধবার   ২৪ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ১১ ১৪২৬,   ১৮ শা'বান ১৪৪০

শিবপুরে পুলিশ-গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ৪

 প্রকাশিত: ১৬:২৫ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৬:২৫ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে ট্রলি উঠাকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসীর সঙ্গে হাইওয়ে পুলিশের সংঘর্ষে দুই পুলিশ সদস্যসহ চারজন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার সকালে নরসিংদীর শিবপুরে চৈতন্যা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলো, হাইওয়ে পুলিসের কন্সটেবল মাহাবুবু, কন্সটেবল বিল্লাল হোসেন। গুলিবিদ্ধ দুই পথচারী হলো সবুজ পাহার কলেজের শিক্ষার্থী অহিদ্দুল্লাহ,মোহন মিয়া। তাদের বাড়ি শিবপুর উপজেলার চৈতন্যা গ্রামে। 

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ইসমাইল মিয়া বলেন, ট্রলিটি আটকের পর পুলিশ চালকের কাছ থেকে জরিমানার কথা বলে ৭ হাজার টাকা আদায় করেন। কিন্তু গাড়িটি গর্তে পড়ে যাওয়ায় চালত সেটিকে উঠাতে পারছিল না। তাই পুলিশ চালককে মারপিট শুরু করে। এসময় ফল ব্যাবসায়ীরা এগিয়ে এতে তাদেরও মারপিট শুরু করেন। পরে গ্রামবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশের উপর ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে।  

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ফল ব্যাবসায়ী বলেন,আমরা গরিব মানুষ। মহাসড়কের পাশে দোকানদারী করে জীবিকা নির্বাহ করি। পুলিশ সদস্যরা প্রতিদিন ৫শত টাকা চাদা দাবি করেন। আমরা অস্বীকার করতে তারা আমাদের উপর লাঠিচার্জ করে। পরে গ্রামবাসীর সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

ইটাখোলা হাইওয়ে পুলিশের ওসি হাফিজুর রহমান বলেন, সরকারের চলমান কর্মসূচি ও দুর্ঘটনা রোধের  অংশ হিসেবে মহাসড়কে থ্রিহুইলার সহ নসিমন করিমন ও ট্রলি বন্ধের অভিযান চলছিল। এরই মধ্যে স্থানীয় ইউপি সদস্য আলামিন মেম্বারের একটি ট্রলিতে ইট বোঝাই করে মহাসড়ক দিয়ে যাচ্ছিল। পুলিশ ট্রলিটিকে আটক করে ।এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা পুলিশের উপর হামলা চালায়। আমাদের দুইটি অস্ত্র ছিনিয়ে নেয়। অবস্থার অবনতি হলে পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। পরে শিবপুর থানা পুলিশ এতে অস্ত্র উদ্ধার করে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম