শিকলবন্দী ১১ বছর
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=118826 LIMIT 1

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৬ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৩ ১৪২৭,   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

শিকলবন্দী ১১ বছর

নবীন হাসান, ঠাকুরগাঁও ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৪৪ ১২ জুলাই ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মনোয়ার ইসলাম মুন্না। ১১ বছর ধরে যার শিকলবন্দী জীবন। সাত বছর বয়সে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলায় সে থেকেই শিকলে আটকা পড়েন তিনি।

মুন্না ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার জাবরহাট গ্রামের মুনসুর আলীর ছেলে। ভাই-বোনের মধ্যে সবার বড় তিনি। তার বাবা একজন দিনমজুর।

মুন্নার মা মনোয়ারা বেগম জানান, মুন্নার প্রাথমিক চিকিৎসা করা হলে কিছুদিন সুস্থ থেকে আবার অসুস্থ হয়ে পড়ে। অর্থের অভাবে তার চিকিৎসা করাতে পারিনি। মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ার পর এলাকার মানুষের গরু-ছাগলকে মারধর, সবজি ক্ষেত নষ্ট করাসহ ইত্যাদির অভিযোগ আসত। এ ধরনের অভিযোগ পাওয়ার পর পায়ে শিকল বাঁধার সিদ্ধান্ত নেই।

মুন্নার বাবা মুনসুর বলেন, প্রতিদিন কাজ করে ৩০০-৩৫০ টাকা পাই। ১০০ টাকার ওষুধ কিনি মুন্নার। বাকি টাকা দিয়ে সংসারের খরচ চালাই। শত কষ্টের মধ্যে দিয়ে চলছে আমাদের জীবন। টাকা-পয়সা না থাকায় পুরোপুরিভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে ছেলেকে শিকলে বেঁধে রাখতে হচ্ছে। বাবা হয়ে ছেলের কষ্ট সইতে পারছি না আর।

তিনি বলেন, সরকারিভাবে ছেলেকে কোনো ভাতা দেয়া হচ্ছে না। যদি কোনো সহযোগিতা পাই তবে মুন্নার চিকিৎসা করাতে পারব।

জাবরহাট ইউপি চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির জানান, মুন্নার পরিবারকে বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করার চেষ্টা করছি। মুন্নাকে পাবনা মানসিক হাসপাতালে নেয়ার জন্য তার বাবাকে সহযোগিতা করব।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর