Exim Bank Ltd.
ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৩ ডিসেম্বর, ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

শাহজাদপুরে ক্ষীরা চাষে ব্যস্ত চাষী

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধিডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
শাহজাদপুরে ক্ষীরা চাষে ব্যস্ত চাষী
ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার মাঠে মাঠে বন্যার পানি শোভা পেলেও উচু জমিতে আগাম জাতের ক্ষীরা চাষে ঝুঁকে পড়েছেন কৃষকেরা। বন্যার পানি জমিতে যাতে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য সম্ভাব্য পানি প্রবেশের রাস্তাগুলো মাটির বস্তা দিয়ে বন্ধ করে পালাক্রমে পাহাড়া দিচ্ছেন চাষীরা। ফলন ও দাম ভাল পেলে লাভবান হবেন ক্ষীরা চাষী।

গাড়াদহ গ্রাম ঘুরে দেখা যায়, প্রায় একশ বিঘা জমিতে আগাম ক্ষীরার চাষ করেছেন চাষী। জমি উত্তমরুমে চাষবাস করে ভাল জাতের ক্ষিরার বীজ বোপন করেছে। বীজগুলো অঙ্কুরোদগম হয়ে লতায় পরিনত হয়েছে। জমিতে নিরানী দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকেরা। দিন রাত পরিশ্রম করে ফসলটি ফলানোর আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন তারা। মাঠে ঘুরে ঘুরে পরামর্শ দিতে দেখা যাচ্ছে ইউনিয়ন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদেরকেও। যদি কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ না আসে তাহলে খুব শিগগিরই কৃষকেরা জমি থেকে ক্ষীরা সংগ্রহ করে বাজারজাত করতে পারবেন।

গাড়াদহ গ্রামের ক্ষীরা চাষী রোশনাই প্রামানিক জানান, প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও তিনি তিন বিঘা জমিতে ক্ষিরার চাষ করেছেন। চাষবাস থেকে শুরু করে এ যাবৎ প্রায় এক লাখ টাকা খরচ হয়েছে। আরো প্রায় ত্রিশ হাজার টাকা খরচ হবে। যদি ফলন ভালো হয় এবং কোন বালা মছিবত না আসে তাহলে তিন বিঘা জমি থেকে খরচ বাদ দিয়ে প্রায় দুই লাখ টাকা লাভ হবে বলে জানান তিনি।

শাহজাদপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মনজু আলম সরকার জানান, এবছরে প্রায় দুইশ হেক্টর জমিতে ক্ষীরা চাষের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে। অনেক উচু জায়গাগুলোতে আগাম জাতের ক্ষীরার চাষ শুরু হয়েছে। বন্যার পরেও নিচু জমিতে ক্ষীরার চাষ হবে। এই ফসলটি দুই মাসের ফসল। বোপনের ত্রিশ দিনের মধ্যেই ফসল হারভেষ্ট শুরু হয়। মাঠে ঘুরে ঘুরে পরামর্শ দিচ্ছে ইউপি উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা। আশা করি ভাল ফলন ও দাম পেলে চাষীরা লাভবান হবেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
ফাইভ জি চালু হতেই মরল কয়েকশ পাখি!
ফাইভ জি চালু হতেই মরল কয়েকশ পাখি!
ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা
ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা
জনসম্মুখে পুরুষ নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল!
জনসম্মুখে পুরুষ নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল!
৭ দিনের নিচে কোন ইন্টারনেট প্যাকেজ নয়
৭ দিনের নিচে কোন ইন্টারনেট প্যাকেজ নয়
‘বিশ্ব সুন্দরী’র মুকুট পড়া হলো না ঐশীর
‘বিশ্ব সুন্দরী’র মুকুট পড়া হলো না ঐশীর
সিলেটি যুবককে বিয়ের জন্য ক্যাথলিক মেয়ের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ
সিলেটি যুবককে বিয়ের জন্য ক্যাথলিক মেয়ের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
ক্যান্সার শনাক্তে বাংলাদেশি বিজ্ঞানীর সাফল্য
এমিরেটসের হীরায় মোড়ানো বিমান
এমিরেটসের হীরায় মোড়ানো বিমান
পাপ যেন পিছু ছাড়ছে না নিকের!
পাপ যেন পিছু ছাড়ছে না নিকের!
‘যৌন মিলন দেখিয়ে আনন্দ পাই’
‘যৌন মিলন দেখিয়ে আনন্দ পাই’
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
সোমবার রাতের মধ্যেই ঢাকা ছাড়ছেন এরশাদ
বিশ্বের আদর্শ ফিগারের নারী কেলি ব্রুক
বিশ্বের আদর্শ ফিগারের নারী কেলি ব্রুক
২০১৯ নিয়ে অন্ধ নারীর ভয়ঙ্কর ভবিষ্যদ্বাণী!
২০১৯ নিয়ে অন্ধ নারীর ভয়ঙ্কর ভবিষ্যদ্বাণী!
বিএনপির হয়ে লড়বেন পার্থ
বিএনপির হয়ে লড়বেন পার্থ
উত্তেজনা ধরে রাখতে পারছেন না সাইফ কন্যা সারা!
উত্তেজনা ধরে রাখতে পারছেন না সাইফ কন্যা সারা!
বিএনপির বিরুদ্ধে লড়বেন হিরো আলম
বিএনপির বিরুদ্ধে লড়বেন হিরো আলম
তামিম-সৌম্য শতকে ৩৩২ তাড়া করে জয়
তামিম-সৌম্য শতকে ৩৩২ তাড়া করে জয়
শাকিবের সঙ্গে প্রেম বিষয়ে মুখ খুললেন রোদেলা
শাকিবের সঙ্গে প্রেম বিষয়ে মুখ খুললেন রোদেলা
আইপিএলের চূড়ান্ত নিলামে দুই বাংলাদেশি
আইপিএলের চূড়ান্ত নিলামে দুই বাংলাদেশি
কুমিল্লায় বিএনপির মিছিলে হামলা, অর্ধশতাধিক আহত
কুমিল্লায় বিএনপির মিছিলে হামলা, অর্ধশতাধিক আহত
শিরোনাম :
ময়মনসিংহ ৭ আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে সমর্থন জানিয়ে সরে দাঁড়ালেন রওশন এরশাদ, প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন ৪ আসনে ময়মনসিংহ ৭ আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে সমর্থন জানিয়ে সরে দাঁড়ালেন রওশন এরশাদ, প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন ৪ আসনে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেই তৃণমূলে মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়: শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেই তৃণমূলে মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়: শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানিয়ে শেখ হাসিনার জনসংযোগ শুরু বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানিয়ে শেখ হাসিনার জনসংযোগ শুরু ডিসিদের রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট ডিসিদের রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট