শান্তর ডাবল-সেঞ্চুরিতে জয়ের সুবাস পাচ্ছে সেন্ট্রাল জোন

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৯ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৭ ১৪২৬,   ১৬ শা'বান ১৪৪১

Akash

শান্তর ডাবল-সেঞ্চুরিতে জয়ের সুবাস পাচ্ছে সেন্ট্রাল জোন

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:০৬ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১০:১৯ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল)শেষ রাউন্ডে সাউথ জোনের বিপক্ষে বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্তর ডাবল-সেঞ্চুরিতে জয়ের সুবাস পাচ্ছে সেন্ট্রাল জোন। আগামীকাল শেষ দিনে ম্যাচ জিততে আরো ৩৪৮ রান করতে হবে সাউথ জোনকে। অন্যদিকে সাউথ জোনের ৬ উইকেট তুলে নিতে হবে সেন্ট্রাল জোনকে। শান্তর অপরাজিত ২৫৩ রানের সুবাদে ৮ উইকেটে ৩৮৫ রানে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে সেন্ট্রাল জোন। ফলে ম্যাচ জিততে ৫০৭ রানের টার্গেট পায় সেন্ট্রাল জোন। জবাবে তৃতীয় দিন শেষে ৪ উইকেটে ১৫৯ রান করে সাউথ জোন।  

কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম একাডেমি গ্রাউন্ডে ১২১ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে দ্বিতীয় দিন শেষে ৪ উইকেটে ২০৯ রান করেছিলো সেন্ট্রাল জোন। এতে ৪ উইকেট হাতে নিয়ে ৩৩০ রানে এগিয়ে ছিলো সেন্ট্রাল জোন।

আগের দিনই সেঞ্চুরি পূর্ণ করে ১৫টি চারে ১৮৯ বলে অপরাজিত ১২২ রানে অপরাজিত ছিলেন শান্ত। তার সঙ্গী জাবিদ ৩৬ রানে থামলেও টেল-এন্ডারদের নিয়ে ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মত প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ডাবল-সেঞ্চুরি তুলে নেন শান্ত। দলের ইনিংস ঘোষণার আগে ২৫৩ রানে অপরাজিত থাকেন শান্ত। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এটিই তার সেরা ইনিংস। তার ৩১০ বলের ইনিংসে ২৫টি চার ও ৯টি ছক্কা মারেন তিনি। সাউথ জোনের নাসুম আহমেদ ৮৫ রানে ৪ উইকেট নেন।

৫০৭ রানের বিশাল টার্গেটে খেলতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই ধাক্কা খায় সাউথ জোন। ৫ রান করে বাঁ-হাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের শিকার হন শাহরিয়ার নাফীস। এরপর ৮৭ রানের জুটি গড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেন আনামুল হক বিজয় ও ফজলে মাহমুদ। ফজলে ২৫ রানে বিদায় নেন। তবে বাউন্ডারি ও ওভার বাউন্ডারিতে মনোযোগী ছিলের বিজয়। ৭টি ছক্কা ও ৫টি বাউন্ডারিতে ৬২ রান তুলে আউট হন আগের রাউন্ডে দুই ইনিংসে সেঞ্চুরি করা কিজয় । এবার ১১৯টি বল খেলেছিলেন তিনি।

বিজয়ের পরপরই শুন্য হাতে বিদায় নেন ইরফান শুক্কুর।  শামসুর রহমান ৪৪ ও নাসুম শুন্য রানে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেছেন। সেন্ট্রাল জোনের মেহেদি হাসান মিরাজ ২ উইকেট নেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/এম