Alexa শরীয়তপুর পাসপোর্ট অফিসে রোহিঙ্গা নারী আটক

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ৬ ১৪২৬,   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

Akash

শরীয়তপুর পাসপোর্ট অফিসে রোহিঙ্গা নারী আটক

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০২ ৬ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ২০:০২ ৬ নভেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

শরীয়তপুর পাসপোর্ট করতে এসে শাহিদা নামের এক রোহিঙ্গা নারী আটক হয়েছেন। বুধবার দুপুরে পাসপোর্ট ফরম জমা দেয়ার সময় কাউন্টার থেকে তাকে আটক করা হয়। পরে পাসপোর্ট অফিসের কর্তৃপক্ষ রোহিঙ্গা নারীকে পালং মডেল থানায় সোপর্দ করে।

আটক নারীর ছদ্মনাম শাহিদা আক্তার। শাহিদা মিয়ানমারে সুখতারা নামে পরিচিত। তিনি জাজিরা উপজেলার পালেরচর (মহন ফকিরের কান্দি) গ্রামের বাবুল ফকিরের স্ত্রী পরিচয়ে পাসপোর্ট করতে আসেন। 

শরীয়তপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক শেখ মাহাবুর রহমান জানান, বুধবার দুপুরে বাবুল ফকির ও তার স্ত্রী পরিচয়ে শাহিদা আক্তার দুটি পাসপোর্টের পরিপূর্ণ ফরম নিয়ে কাউন্টারের সামনে লাইনে দাঁড়ায়। প্রথমে শাহিদার স্বামী পরিচয়ে বাবুল ফকির ফরম জমা করে। পরে শাহিদা ফরম জমা দেয়। ফরম জমার কাউন্টারে দায়িত্বে থাকা সহকারী হিসাব রক্ষক সালেহ আহমদ আবেদনকারী শাহিদার জবানবন্দি নেন। এ সময় স্বামী ও গ্রামের নাম ছাড়া বাংলায় অন্যকিছু বলতে পারেননি। পরে শাহিদাকে আটক করা হয়। এ সময় শাহিদার নকল স্বামী বাবুল ফকির পালিয়ে যায়।

পূরণ করা পাসপোর্ট ফরম থেকে জানা যায়, শাহিদা শরীয়তপুরের জাজিরার পালের চর ইউপি থেকে জন্মসনদ ও পরিচয়পত্র নিয়েছেন। পালের চর ইউপির চেয়ারম্যান মতিউর রহমান নিবন্ধক হিসেবে শাহিদার জন্মসনদ ও পরিচয়পত্রের নিচে নাম-সীলমোহরসহ স্বাক্ষর করেছেন। পাসপোর্ট ফরম ও প্রয়োজনীয় কাগজ সত্যায়ন করেছেন পূর্বনাওডোবা আইডিয়াল কিন্ডারগার্টেন অ্যান্ড হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক ফাহাদ হোসেন সৌম্য।

আটক রোহিঙ্গা নারী জানান, বাবুল ফকিরের সঙ্গে চট্টগ্রামে তার দেখা হয়। তাকে মালয়েশিয়া পাঠানোর কথা বলে শরীয়তপুর নিয়ে আসে বাবুল। সব কাগজ সে প্রস্তুত করে এবং তার স্ত্রী পরিচয়ে তাকে পাসপোর্ট করতে নিয়ে আসে।

পালং মডেল থানার ওসি আসলাম উদ্দিন বলেন, পাসপোর্ট করতে এসে এক রোহিঙ্গা নারী আটক হয়েছেন। তাকে থানায় হস্তান্তর করেছে পাসপোর্ট অফিসের কর্তৃপক্ষ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ