ল্যাবরেটরি স্কুলে শেখ রাসেল ম্যুরাল উদ্বোধন ফেব্রুয়ারিতে

ঢাকা, রোববার   ০৫ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৩ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪১

Akash

ল্যাবরেটরি স্কুলে শেখ রাসেল ম্যুরাল উদ্বোধন ফেব্রুয়ারিতে

জাফর আহমেদ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৪৩ ২৫ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৫:০২ ২৫ জানুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

রাজধানীর ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজে শেখ রাসেল ম্যুরাল উদ্ধোধন ভাষার মাস ফেব্রুয়ারিতে। আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ উপ-কমিটির উদ্যোগে এ ম্যুরাল তৈরি করা হচ্ছে।

শেখ রাসেলের শিক্ষাজীবন শুরু ল্যাবরেটরি স্কুলে। যা বর্তমানে ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজ নামে পরিচিত। চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র থাকাকালীন স্বপরিবার তাকে হত্যার করে ঘাতকরা। শেখ রাসেলের স্মৃতিকে জাগ্রত রাখতে এই ম্যুরাল তৈরি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দি।

তিনি ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেলের শিক্ষাজীবন স্মরণীয় করে রাখতে ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল এন্ড কলেজ ম্যুরাল তৈরি করা হচ্ছে। নতুন প্রজম্ম ও এই স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা অনেকেই জানে না শেখ রাসেল এখানকার ছাত্র ছিলো। যারা জানে তারাও ভুলে যাচ্ছে। তাই রাসেলের স্মৃতি  স্মরণীয় করতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে । 

তিনি আরো বলেন, ম্যুরালের কাজ প্রায় শেষ দিকে। বিদেশ থেকে গ্রানাইট পাথর এনে এই ম্যুরাল তৈরি করা হচ্ছে। সেই পাথর খুবই সুন্দর ও আকর্ষণীয়। ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ উপ-কমিটির উদ্যোগে নিজেদের অর্থ দিয়ে করা হচ্ছে শেখ রাসেল ম্যুরাল। আমরা গত কমিটিতে থাকাকালীন এই কাজে হাত নিয়েছিলাম। এটা তৈরি করতে সর্বমোট পনের লাখ টাকা খরচ হতে পারে। 

শেখ রাসেল ১৯৬৪ সালের ১৮ অক্টোবর ঢাকার ধানমন্ডির ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধু ভবনে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট  মানবতার শত্রু ঘৃণ্য ঘাতকদের নির্মম বুলেটের হাত থেকে রক্ষা পায়নি রাসেল। সেইদিন শিশু রাসেল ও শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করে ঘাতকরা।

পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে শেখ রাসেল সর্বকনিষ্ঠ। ভাই-বোনের মধ্যে অন্যরা হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্তিবাহিনীর অন্যতম সংগঠক শেখ কামাল, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা শেখ জামাল ও শেখ রেহানা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জাআ/এসএএম