Alexa লাল কাহন

ঢাকা, সোমবার   ১৪ অক্টোবর ২০১৯,   আশ্বিন ২৯ ১৪২৬,   ১৪ সফর ১৪৪১

Akash

লাল কাহন

স্বরলিপি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৫৮ ১৮ এপ্রিল ২০১৯  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

‘লাল এমন একটি রং এর এমন কিছু রয়েছে, যা সব সময় ক্ষমতা ও অধীর আগ্রহের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়।’ রং বিশেষজ্ঞ ডেভিড জিলা ‘Color Your Style’ বইয়ে এ কথা জানিয়েছেন। তার মতে “রং নির্দিষ্ট সংকেত পাঠায়।” 

মানুষ বিশ্বাস করে লাল রং মানে আকাঙ্খা, যৌনতা, হিংস্রতা ও রোগের সংকেত। কিন্তু আবহমানকাল ধরে লাল রং নিষেধের রং হিসেবেও পরিচিত। জীবনযাপনেও লাল সংকেত মেনে থামতে হয়। এই যেমন- ট্রাফিক সিগন্যালে, খেলার মাঠে, অপারেশন থিয়েটারে। 

লাল রংয়ের প্রতি মানুষের এই ধারণা এক দিনে তৈরি হয়নি। আদিম যুগে মানুষ দেখেছে লাল আগুন সবকিছু পুড়িয়ে দিতে পারে। আবার লাল সীমানা সংকেতেও ব্যবহার হয়। যে সীমানা অতিক্রম করলে যুদ্ধ, রক্তপাত হতে পারে। রক্তপাত মানুষকে আহত ও নিহত করতে পারে। রক্তের রং লাল। সবমিলিয়ে এই থেকে আদিম মানুষের কাছে লাল রং হয়ে যায় নিষেধাজ্ঞার প্রতীক বা সংকেত এবং বিপদের চিহ্ন।

প্রাচীন জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে, সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ রং হলো লাল। এই রং শৌর্য ও বিজয়ের প্রতীক। লাল হলো গৌরবের রং।

লাল একটি মৌলিক রং। এটি দৃশ্যমান আলোর সবচেয়ে দীর্ঘ তরঙ্গ দৈর্ঘ্যের (প্রায় ৬২৫-৭৪০ ন্যানোমিটার) আলো চোখে আপতিত হলে যে রং দেখার অনুভূতি জন্মায়, তা-ই হলো লাল। তরঙ্গদৈর্ঘ্য এর চেয়ে বেশি হলে তাকে অবলোহিত রশ্মি বলে। এই রশ্মিতে মানুষের চোখ এতে সংবেদনশীল নয়। এর পরিপূরক রং হচ্ছে সাইয়ান। 

লাল হোক নিষেধাজ্ঞা কিংবা বিজয়ের প্রতীক। এই রংয়ের অসাধারণ এক ক্ষমতা হলো ভালোবাসা ও আবেগের বার্তা বহন করা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে