লকডাউন, তাই হেল্পলাইনে ফোন করে সমুচার আবদার!

ঢাকা, শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭,   ০৬ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

লকডাউন, তাই হেল্পলাইনে ফোন করে সমুচার আবদার!

সোশ্যালমিডিয়া ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:১১ ১ এপ্রিল ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের অনেক দেশের মতো ভারতেও ২১ দিনের লকডাউন চলছে। বাইরে বের হওয়া বন্ধ করতে একটি জরুরি হেল্পলাইন চালু করেছে দেশটির উত্তরপ্রদেশ সরকার। এছাড়া জরুরি হেল্পলাইন চালু করে সাহায্যের ব্যবস্থাও করা হয়েছে।

জরুরি ওই নম্বরে ফোন করে ওষুধসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য  চাইলেই ঘরে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। এরইমধ্যে অনেকেই সহায়তা পাওয়ায় জরুরি নম্বরটি বেশ ব্যস্ত হয়ে গেছে। মিনিটেই ১০-১২টি করে কল আসছে। এমন পরিস্থিতিতে এক ব্যক্তি সেই জরুরি নম্বরে কল করে সমুচা চাইলেন।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে উত্তরপ্রদেশের রামপুর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অফিসিয়াল টুইটারে টুইট করেছেন ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জনেয়া কুমার সিং। তিনি লিখেছেন, ফোন তোলার পর ওই ব্যক্তি সমুচা চাইলে তাকে বোঝানো হয় যে, এমন পরিস্থিতিতে সমুচা নয়, ওষুধপত্র বা এ মুহূর্তে ঘরে খাবার কিছু না থাকলে সেসব দ্রব্য পৌঁছে দেয়া হবে। কিন্তু কথা কানেই নেয়নি সেই সমুচাভক্ত ব্যক্তি। তিনি ফোনের পর ফোন করে যেতে থাকেন। আর বারবারই সমুচা দেয়ার জন্য বলতে থাকেন।

অঞ্জনেয়া কুমার জানান, পরে ওই ব্যক্তির কাছে সমুচা পাঠানো হয়। তবে এমন কঠিন পরিস্থিতিতে হাস্যকর দাবি করার অপরাধে তাকে শাস্তিও দেয়া হয়েছে।

অঞ্জনেয়া কুমার লিখেছেন, শাস্তি হিসেবে সমুচাপ্রিয় ওই ব্যক্তিকে তার বাসার পাশের ড্রেন পরিষ্কার করতে হয়েছে।ওই ব্যক্তির ড্রেন পরিষ্কার করার একটি ছবি টুইটে পোস্ট করা হয়েছে।

এদিকে ওই ব্যক্তির টুইটে এখন পর্যন্ত ২০ হাজার লাইক জমা পড়েছে। অনেকেই এমন পদক্ষেপের প্রশংসা করে রিটুইট করেছেন, জরুরি নম্বরে ফোন করে কেউ এমন মজা করতে না পারেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস