র‌্যাব পরিচয়ে ডাকাতি, গ্রেফতার ২ 

ঢাকা, শনিবার   ০৪ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২১ ১৪২৬,   ১০ শা'বান ১৪৪১

Akash

র‌্যাব পরিচয়ে ডাকাতি, গ্রেফতার ২ 

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৩১ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

রাজধানীর দারুস সালাম ও মোহাম্মদপুরে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব পরিচয়ে ডাকাতি করা চক্রের ২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

গ্রেফতাররা হলেন- মো. জাহাঙ্গীর আলম ওরফে স্বাধীন (৪৭) ও আলমগীর খাঁ (৩৫)। বুধবার সকাল ও রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানায় পিবিআই।

পিবিআই ঢাকা মেট্রো (উত্তর) এর বিশেষ পুলিশ সুপার মো. বশির আহমেদ জানান, গতবছর ২৮ ডিসেম্বর মো. মাহামুদুল হাসান (২২) নামের এক ব্যক্তি বাসে খিলক্ষেত থেকে যাত্রাবাড়ী এলাকায় যাচ্ছিলেন। বাসটি শনিরআখড়া আসার পর তিনি ডাকাতের কবলে পড়েন। র‌্যাবের জ্যাকেট পরিহিত অজ্ঞাতনামা ৩-৪ ব্যক্তি বাসে উঠে নিজেদেরকে র‌্যাব সদস্য পরিচয় দেয়। পরে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে বলে পিস্তলের ভয় দেখিয়ে তাকে গাড়ি থেকে নামায়। বাস থেকে নামিয়ে তার কাছে থাকা একটি আইফোন, একটি শাওমি রেডমি নোট ও নগদ ৩ লাখ টাকা লুটে নেয় তারা। পরে তার মুখ চেপে ধরে মারপিট করতে করতে একটি এক্স করোলা গাড়িতে উঠায়।

গাড়িতে উঠালে মাহমুদুল হাসান বাঁচাও বাঁচাও বলে চিৎকার করতে থাকেন। তার চিৎকার শুনে একজন উবার চালক ও ট্রাফিক পুলিশ কনস্টেবল এবং স্থানীয় জনতা এগিয়ে আসেন। স্থানীয়দের এগিয়ে আসতে দেখে ডাকাত দল তাদের গাড়ি ও র‌্যাবের জ্যাকেট ফেলে রেখে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। ট্রাফিক পুলিশের মোবাইল থেকে মাহমুদুল তার ভাইকে ফোন করে ঘটনা জানান। তার ভাই তাৎক্ষণিক ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশের সহায়তা চাইলে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে আসে। তারা ডাকাতদের ফেলে যাওয়া এক্স করোলা গাড়ি, র‌্যাবের জ্যাকেট, গাড়ির কাগজ ও আইডি কার্ড উদ্ধার করে। এ ঘটনায় তার ভাই যাত্রাবাড়ী থানায় একটি মামলা করেন। মামলা গ্রহনের পর মাঠে নামে পিবিআই ঢাকা মেট্রো (উত্তর)।

তিনি আরো জানান, তদেন্তের সময় গোয়েন্দা নজরদারি ও তথ্যেও ভিত্তিতে বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে দারুস সালাম এলাকার একটি ফিলিং স্টেশনের সামনে থেকে মো. জাহাঙ্গীর আলম ওরফে স্বাধীনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যে একইদিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে মোহাম্মদপুর কলেজ গেট থেকে আলমগীর খাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা জানান, জেলখানায় তাদের পরিচয় হয়। তারা একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সদস্য। তারা কখনো র‌্যাব, কখনো ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে ঢাকা মহানগরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রথমে অপহরণ ও পরে ডাকাতি করে সর্বস্ব লুটে নেয়। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এছাড়া, এর আগে মো. মেহেদী হাসান ও মো. আশিক পারভেজকে নামে  তাদের দলের ২ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। তাদেরকে আদালতে পাঠালে তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএএম