রোজার সময় সবচেয়ে ছোট যে দেশে 

ঢাকা, বুধবার   ২৬ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ১২ ১৪২৬,   ২১ শাওয়াল ১৪৪০

রোজার সময় সবচেয়ে ছোট যে দেশে 

ধর্ম ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৪৪ ৩ জুন ২০১৯  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

মুসলিম সম্প্রদায় পবিত্র সিয়াম সাধনার মাস মাহে রমজান পালন করছেন। তবে সময় ও দেশের দূরত্বের কারণে বিভিন্ন দেশে রোজার সময়ও হয় আলাদা। 

এই যেমন ফিনল্যান্ডের মুসলিমদের প্রায় ২৩ ঘণ্টা রোজা রাখতে হয়। কারণ ওই দেশে সূর্য অস্তই যায় না।

কিন্তু আর্জেন্টিনায় চিত্রটা পুরোপুরি উল্টো। মেসিদের দেশে রোজাদারদের মাত্র ১১ ঘণ্টা রোজা রাখলেই চলে।

চলতি বছরের এক জরিপে দেখা গেছে, বিশ্বে সবচেয়ে কম সময় রোজা রাখেন আর্জেন্টিনার মুসলমানরাই। সে দেশে সেহরি থেকে ইফতার পর্যন্ত মাঝের সময় মাত্র ১১ ঘণ্টা।

শুধু আর্জেন্টিনাই নয়, লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে চিলি, ব্রাজিলেও রোজার সময় কম। পাশাপাশি দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউন ও তানজানিয়ার দারুস সালামেরও রোজা অপেক্ষাকৃত ছোট হয়।

২০১৯ সালের জরিপ অনুযায়ী, চিলির সান্তিয়াগোতে এবছর রোজার সময় ১২ ঘণ্টা ৪ মিনিট, ব্রাজিলের রিওডি জেনেইরোতে ১২ ঘণ্টা ২৮ মিনিট, দক্ষিণ আফ্রিকার কেপটাউনে ১২ ঘণ্টা ৪ মিনিট ও তানজানিয়ার দারুস সালামে ১৩ ঘণ্টা ৫ মিনিট।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামি ও প্রতিবেশী দেশ ভারতসহ বিশ্বের বেশ কিছু দেশে ১৩ থেকে ১৪ ঘণ্টা রোজা রাখতে হয়।

এসব দেশগুলোর মধ্যে কেনিয়ার নাইরোবিতে রোজার সময় ১৩ ঘণ্টা ১৭ মিনিট, ভারতের হায়দরাবাদে ১৪ ঘণ্টা ৯ মিনিট, দিল্লিতে ১৪ ঘণ্টা ৫১ মিনিট ও মিয়ামিতে ১৪ ঘণ্টা ২৫ মিনিট।

মুসলিমপ্রধান মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতেও রোজার সময় ১৪ ঘণ্টার বেশি। এর মধ্যে ইয়েমেনের সানায় ১৪ ঘণ্টা ৫ মিনিট, ওমানের মাসকাটে ১৪ ঘণ্টা ৩৩ মিনিট ও সৌদি আরবের রিয়াদে ১৪ ঘণ্টা ৩৭ মিনিট রোজা রাখতে হয়।

আর আমাদের বাংলাদেশে গড়ে প্রায় পৌনে ১৫ ঘণ্টা রোজা রাখেন ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে