Alexa রোজার জানা-অজানা বিষয়

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯,   আশ্বিন ৩০ ১৪২৬,   ১৫ সফর ১৪৪১

Akash

রোজার জানা-অজানা বিষয়

নুসরাত জাহান ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:১৪ ২৩ মে ২০১৯   আপডেট: ১০:১৭ ২৩ মে ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

(১) অসুস্থ ব্যক্তির রোজা: রোজার কারণে যে রোগ বৃদ্ধি পায় কিংবা আরোগ্য লাভে বিলম্ব হওয়ার প্রবল আশঙ্কা থাকে, সে রোগে রোজা ভঙ্গ করা জায়েজ।

উল্লেখ্য যে, ওই আশঙ্কা বাস্তবসম্মত হওয়া যদি একেবারেই সুস্পষ্ট হয় তবে তো কথা নেই, নতুবা একজন অভিজ্ঞ দ্বীনদার চিকিৎসকের মতামতের প্রয়োজন হবে। (আলমুহিতুল বুরহানি ৩/৩৫৯; আদদুররুল মুখতার ২/৪২২)

আরো পড়ুন>>> রমজানের দিনের বেলা ইচ্ছাকৃতভাবে বীর্যপাত ঘটালে 

(২) রোজা রেখে চোখে সুরমা ব্যবহার করা: রোজা রেখে চোখে সুরমা ব্যবহার করা, শরীরে তেল মাখা অথবা আতর ইত্যাদির সুঘ্রাণ নেয়া বৈধ। (সূত্র : বেহেশতি জেওর, খণ্ড ৩, পৃষ্ঠা ১০)।

(৩) রাতে গোসল ফরজ হলে: রাতে গোসল ফরজ হলে সুবহে সাদিকের আগেই গোসল করে নেয়া উচিত। এর পরও কেউ গোসল না করলে এমনকি সারা দিনও যদি গোসল না রাখে, তাতে রোজা নষ্ট হবে না। ফরজ গোসলে দেরি করার জন্য পৃথক গোনাহ হবে। (সূত্র : ইলমুল ফিকাহ, খণ্ড ৩, পৃষ্ঠা ৩১)

আরো পড়ুন>>> জাকাত (পর্ব-৮) পশুর, শস্য ও ফলের জাকাত

(৪) রোজাদারের গলার ভেতরে মশা-মাছি চলে গেলে: এমনিতেই যদি হঠাৎ করে গলার ভেতরে মশা-মাছি, ধোঁয়া বা ধুলোবালি চলে যায়, তাতে রোজা নষ্ট হবে না। ইচ্ছাকৃতভাবে এমন করলে রোজা ভেঙে যাবে। (সূত্র : ফাতাওয়া আলমগিরি, খণ্ড ১, পৃষ্ঠা ২৯৮)

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে