Alexa রেল লাইনকে ঘিরে গড়ে ওঠা পর্যটনকেন্দ্র!

ঢাকা, রোববার   ২৫ আগস্ট ২০১৯,   ভাদ্র ১১ ১৪২৬,   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

Akash

রেল লাইনকে ঘিরে গড়ে ওঠা পর্যটনকেন্দ্র!

ফিচার ডেস্ক

 প্রকাশিত: ১৩:৩৩ ২ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৪:০০ ২ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

রেল লাইনকে ঘিরে পর্যটনকেন্দ্র গড়ে ওঠার খবর অবাক হবার মতোই। ভিয়েতনামের হ্যানয় শহর সাম্প্রতিক সময়ে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে পর্যটকদের কাছে। এর প্রধান কারণ, ফরাসি ঔপনিবেশিক যুগের রেলপথ। সেখানে গেলে মন কাড়বে যে কারো। এর সুবাদে ওল্ড কোয়ার্টারটি হয়ে উঠেছে সেলফিবান্ধব জায়গা! এ কারণে সেলফি বা ছবি তোলার সময় ফুটপাত দখল হয়ে যায়। স্থানীয়রা এ নিয়ে কিছুটা বিরক্ত।

এই রেলপথ কতটা জনপ্রিয়, তা বোঝা যায় ইন্সট্রাগ্রামে ঢুঁ-মারলেই। রেলপথটি হ্যানয়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় স্থানগুলো তালিকায় থাকার প্রধান কারণ, সেখানে প্রায় সারাদিনই রেলগাড়ি চলাচল করে। এ কারণে রেলপথে দাঁড়িয়ে থাকা কিংবা হাঁটার সময় একটু অসাবধানতার কারণে পর্যটক ও এলাকাবাসীর জীবনের ঝুঁকির আশঙ্কা রয়ে যায়। 

ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারী ক্রিস্টাবেল সিএনএন ট্রাভেলকে বলেন, খুব সকালে আমরা জায়গাটিতে যাই ছবি তুলতে। সেই সময়ে ওল্ড কোয়ার্টারে নীরব ছিলো। কিন্তু বেলা যখন বাড়তে থাকলো হুড়-মুড় করে পর্যটকও বাড়তে থাকে। 

উইলিয়াম নামের একজন বলেন, স্থানীয়রা অনেক বন্ধুভাবাপন্ন। তারাই আমাদের ট্রেন আসা-যাওয়ার সূচি বলে দিয়েছিলেন।

ছবি তোলার জন্য রেলপথে নাচ, লাফ, চুম্বনসহ অনেক কিছুতে মেতে ওঠেন দর্শনার্থীরা। সে ছবি শেয়ার করেছেন ইনস্টাগ্রামে। এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের কাছে ওল্ড কোয়ার্টার হয়ে উঠেছে হ্যানয়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় স্থানগুলোর অন্যতম।  অনেকে পুরোপুরি নিখুঁত ছবি তোলার জন্য পেশাদার আলোকচিত্রী ভাড়া করে নিয়ে যাচ্ছেন জায়গাটিতে। ঠাট্টা করে অনেকে জায়গাটির নাম দিয়েছে, ইন্সট্রাগ্রাম কোয়ার্টার!

২০১০ সালে ভিয়েতনামের লেখক ডেভ ফক্স প্রথমবার ওল্ড কোয়ার্টারে ঘুরেছেন। তখনই তার চোখে পড়েছে, রেলপথে দাঁড়িয়ে ক্যামেরা কিংবা গোপ্রো দিয়ে পর্যটকদের ছবি তোলা নিয়ে পাগলামি! তার মন্তব্য, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের যুগে এই জায়গা লোকারণ্যে পরিণত হয়েছে। 

ডেইলিবাংলাদেশ/এনকে

Best Electronics
Best Electronics