Exim Bank
ঢাকা, মঙ্গলবার ১৯ জুন, ২০১৮
Advertisement

রুহ আফজাকে জরিমানা

 নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:০৬, ১৩ জুন ২০১৮

আপডেট: ১৭:৩৩, ১৩ জুন ২০১৮

৪৯৬ বার পঠিত

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান হামদার্দ ল্যাবরেটরি (ওয়াকফ) বাংলাদেশের অননুমোদিত পণ্য ও মিথ্যা বিজ্ঞাপন প্রচারের অভিযোগে রুহ আফজাকে ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একই সঙ্গে জরিমানা আনাদায়ে রুহ আফজার চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালককে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে।

১২ জুন, মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বিশুদ্ধ খাদ্য আদালত-১-এর বিচারক এএফএম মারুফ চৌধুরী এ আদেশ দেন। সেই সঙ্গে এক সপ্তাহের মধ্যে সব বিজ্ঞাপন তুলে নেয়ার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

গত ২ জুন “রুহ আফজায় প্রতারণা” শিরোনামে ডেইলি বাংলাদেশ একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, রুহ আফজা নানা বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়ে বেসরকারি টেলিভিশনসহ বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়া ও নিজ ওয়েবসাইটে বিজ্ঞাপন প্রচার করে। তাতে দেখানো হয় রুহ আফজা স্বাস্থ্যকর ফলের খাদ্য পণ্য। বোতলের গায়ে লাগানো লেবেলে, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াতে বিজ্ঞাপন প্রচারে প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে রয়েছে এমন ফুলঝুড়ি। প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব ওয়েবসাইট ও ইউটিউবের মাধ্যমে মিথ্যা বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে।

এসব অভিযোগে নিরাপদ খাদ্য অঞ্চল ৪ এর অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত ফুড সেফটি অফিসার, পরিদর্শক (স্যানিটারী ইন্সপেক্টর) মোহাম্মদ কামরুল হাসান গত ১৬ মে ভেজাল সন্দেহে রুহ আফজার উপকরণ ও উৎপাদন নমুনা সংগ্রহ করেন। ৩১ মে রুহ আফজার বিজ্ঞাপন, বোতলের লেবেলের প্রচার চ্যালেঞ্জ করে মামলা করেন তিনি।

প্রতারণার ফাঁদ হিসেবে দেখা যায় হামদর্দের বিজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ৩৬ প্রকার ফলমূল দিয়ে তৈরি, বিশ্বের শ্রেষ্ঠ স্বাস্থ্যকর পানীয় খাবার, সারাদিনের ক্লান্তি দূর করে, শরীরে পানির ঘাটতি দূর করে, সুস্বাদু টাটকা ফলের রস ও মূল্যবান ঔষধী উদ্ভিদ তাজা ফুলের নির্যাস, অমৃত সুধা ইত্যাদি। বিশ্বে রুহ আফজার উপরে কেউ আসতে পারেনি। এমন অনেক কথাই আছে তাদের বিজ্ঞাপনে। যার বেশিরভাগই মিথ্যা ও প্রতারণার শামিল বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে, রুহ আফজা শরবতে রয়েছে ৪ রকমের ফুল, ১০ রকমের ফল এবং ১২ রকমের ভেষজ উপাদান। আর ইনভার্ট সুগার রয়েছে ২৭ প্রকার। প্রাকৃতিক সতেজ পানীয় বলে প্রচার করা হলে, অন্য দিকে তারা বলছে বিভিন্ন প্রকার ফল, গোলাপ ফুল, হার্বসের নির্যাস থেকে অনুমোদিত ফুড কালার দিয়ে তৈরি রুহ আফজা। আরো বলা হয়েছে, সুস্বাদু সুষম, নয়ন জুড়ানো রং ও গুণাবলীতে পৃথিবীতে আরেকটিও নেই ১১১ বছরের ঐতিহ্যবাহী শরবত রুহ আফজা।

আবার যেমন- মস্তিষ্ক, হৃদপিণ্ড, লিভার, কিডনী ও ফুসফুসকে শক্তিশালী করে, শরীরে স্বাভাবিক শক্তি পুনরুদ্ধার করে, হিট স্ট্রোক প্রতিরোধ করে ইত্যাদি বানোয়াট বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে হামদার্দ ল্যাবরেটরিজ (ওয়াকফ) বাংলাদেশ। এভাবে নানা মিথ্যচার ছড়াচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। একই সঙ্গে আরো আছে ভিটামিন এ, বি-১, বি-৬, সি, ডি ইত্যাদি ভিটামিন রয়েছে বলে বিজ্ঞাপন ও লেবেলে উল্লেখ করেছে হামদর্দ।

ডেইলি বাংলাদেশ/ইএ/এলকে

সর্বাধিক পঠিত