রিয়েলমি ফোনে টাচ সমস্যার অভিযোগ ব্যবহারকারীদের
SELECT bn_content.*, bn_bas_category.*, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeInserted, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeInserted, DATE_FORMAT(bn_content.DateTimeUpdated, '%H:%i %e %M %Y') AS fDateTimeUpdated, bn_totalhit.TotalHit FROM bn_content INNER JOIN bn_bas_category ON bn_bas_category.CategoryID=bn_content.CategoryID INNER JOIN bn_totalhit ON bn_totalhit.ContentID=bn_content.ContentID WHERE bn_content.Deletable=1 AND bn_content.ShowContent=1 AND bn_content.ContentID=186293 LIMIT 1

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০,   শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭,   ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

রিয়েলমি ফোনে টাচ সমস্যার অভিযোগ ব্যবহারকারীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৩০ ৭ জুন ২০২০   আপডেট: ১৮:৪০ ৭ জুন ২০২০

রিয়েলমি ৫আই

রিয়েলমি ৫আই

স্মার্টফোন বাজারের ব্যাপক সম্ভাবনার কথা বিবেচনায় রেখে সম্প্রতি আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশে ব্যবসা শুরু করে চীনভিত্তিক মোবাইল ফোন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান অপোর সাব-ব্র্যান্ড ‘রিয়েলমি’। তবে বাংলাদেশে তৈরি স্মার্টফোন নিয়ে শুরুতেই গ্রাহক অভিযোগের মুখে পড়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

জানা গেছে, ২০১৮ সালের মাঝামাঝি সময়ে চীনে যাত্রা শুরুর পর ২০১৯ সালে ২২টি দেশে প্রবেশ করে রিয়েলমি। আর চলতি বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। দেশের বাজারে যাত্রা শুরুর পর তিনটি মডেল উম্মোচন করেছে রিয়েলমি। মডেলগুলো হলো রিয়েলমি সি২, ৫আই ও সি৩।

তবে দেশের বাজারে আসতে না আসতেই রিয়েলমি ফোন নিয়ে দিন দিন বাড়ছে ব্যবহারকারীদের অভিযোগ। রুহুল আমিন নামে এক ব্যবহারকারী জানান, শুধু ভা‌লো হার্ডওয়ার দি‌লেই এবং দাম একট‌ু কম রাখ‌লেই যে সব ভা‌লো হয় না আবা‌রো প্রমাণ করলো রিয়েলমি। ভা‌লো হার্ডওয়ার দিলাম কিন্তু সেটার সর্বাধিক আউটপুট দি‌তে পারলাম না, তাহ‌লে সেই হার্ডওয়া‌রের কী মূল্য? ফোন এর অপ্টিমাইজেশন এবং ইউজার ইন্টারফেসটা অনেক জরু‌রি। যারা কম দা‌মে অনেক কিছু দে‌খে রিয়েলমি সি৩ এবং ৫আই কি‌নে‌ছেন তারা এখন হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন। আমি রিয়েলমি ৫আই ফোনটি কিনে সাত দিন ব্যবহার করেছি। অনেক সমস্যা ফো‌নে, ‌বি‌শেষ ক‌রে টা‌চ সমস্যা। তাই কম দামে বিক্রি করে দিয়ে সি৩ ফোনটি নিলাম, সেটার টাচ আরো জঘন্য।

রিয়েলমি সি২, সি৩ ও ৫আই স্মার্টফোন

তিনি আরো বলেন, অনে‌কে ব‌লে নতুন ব্রান্ড, আস্তে আস্তে ঠিক হ‌য়ে যা‌বে। তা‌দের কথা শুন‌লে আপনার ফোনই ঠিক হবার আগে শেষ হ‌য়ে যা‌বে। রি‌য়েল‌মিকে এখনো অনেক উন্নতি করতে হ‌বে। বি‌শেষ ক‌রে ইউজার ইন্টারফেস এবং অপ্টিমাইজেশন এর দিক থে‌কে না হ‌লে উঠ‌তি প‌থেই মা‌র্কেট হারা‌তে হ‌বে রি‌য়েল‌মিকে।

ইমন ইসতিয়াক নামে অপর এক ব্যবহারকারী জানান, যদি কেউ রিয়েলমি সি৩ স্মার্টফোন নেন তাহলে আমার মত ফোন কিনে দুইদিন পর বিক্রি করে দেয়া লাগবে। ঈদের দিন রিয়েলমি সি৩ স্মার্টফোনটি ক্রয় করি। কিন্তু ফোনটির টাচ এর যা সমস্যা, ব্যবহার করে কোনো শান্তি পাচ্ছিলাম না। তাই দুই হাজার টাকা লস করে ৯ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিয়েছি।

আব্দুল আহাদ নামে এক ব্যবহারকারী রিয়েলমি সি৩ নিয়ে জানান, স্মার্টফোনটি ব্যবহার করে একটা সমস্যা ফেস করছি। এই ফোনের টাচ স্ক্রিন ঠিক মতো কাজ করছেনা।

রিপন কুমার নামে অপর এক ব্যবহারকারী বলেন, রিয়েলমি ৫আই এবং সি৩ এর টাচ ঠিক মতো কাজ করেনা। আমি বেশ কিছু দিন চালানোর পর কম দামে ফোন দুটি বিক্রি করে দিয়েছি।

ব্যবহারকারীদের অভিযোগের বিষয়ে রিয়েলমি কর্তৃপক্ষ জানায়, গ্রাহকদের হাতে সেরা দামে মানসম্মত স্মার্টফোন তুলে দেয়ার লক্ষ্যে রিয়েলমি বাংলাদেশে কার্যক্রম শুরু করেছে। এরইমধ্যে গ্রাহকদের মাঝে ব্যাপক সাড়া পেয়েছে যা ব্র্যান্ডটির প্রতি গ্রাহকদের আস্থারই প্রতিফলন। বর্তমানে দেশজুড়ে রিয়েলমির ২২টি সার্ভিস সেন্টার রয়েছে। যেখানে স্মার্টফোনের যেকোনো সমস্যা কিংবা অভিযোগ খুবই গুরুত্বের সঙ্গে সমাধান করে দেয়া হচ্ছে। গ্রাহকদের কাছে অনুরোধ করা যাচ্ছে যে, রিয়েলমি হ্যান্ডসেট ব্যবহার সংক্রান্ত কোন অভিযোগ থাকলে রিয়েলমি সার্ভিস সেন্টারে যোগাযোগ করতে।

রিয়েলমি কর্তৃপক্ষ আরো জানায়, এখানে উল্লেখ্য যে, ফোনের কোনো সমস্যা নিয়ে সার্ভিস সেন্টারের শরণাপন্ন হলে ওয়ারেন্টি নীতিমালার অধীনে সেটি সমাধান করে দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ রিয়েলমি। ফলে ‘ব্যবহার করতে না পেরে কম দামে বিক্রি’ করে দেয়ার বিষয়টি নিতান্তই অনভিপ্রেত। একই সঙ্গে আরো অনুরোধ করা যাচ্ছে যে গ্রাহকরা যেন শুধুমাত্র রিয়েলমি অনুমোদিত দোকানগুলো থেকেই পণ্য ক্রয় করেন এবং কোনভাবেই যেন অননুমোদিত পণ্য ক্রয় না করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এস