ঢাকা, সোমবার   ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯,   ফাল্গুন ৫ ১৪২৫,   ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪০

রিজার্ভ চুরির ঘটনায় মামলা ১৫ জানুয়ারির মধ্যে: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ১৮:৩৮ ৫ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৮:৪৪ ৫ ডিসেম্বর ২০১৮

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। ছবি: সংগৃহীত

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে রিজার্ভ চুরির ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্ক (ফেড) এবং ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকের (আরসিবিসি) বিরুদ্ধে আগামী ১৫ জানুয়ারির মধ্যে মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। 

বুধবার সচিবালয়ে সরাকারি ক্রয় সংক্রান্ত্র মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকেদের এক প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান তিনি। 
 

অর্থমন্ত্রী বলেন, মামলার প্রস্তুতি চলছে। বাংলাদেশ ব্যাংক এটি নিয়ে খুব সিরিয়াসলি কাজ করছে। দিন দিন সময় শেষ হয়ে আসছে। কারণ মামলার জন্য আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় আছে।

এ সময় কার কার বিরুদ্ধে মামলা হবে- এমন প্রশ্নের জবাবে মুহিত জানান, ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্ক (ফেড) এবং ফিলিপাইনের রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকের (আরসিবিসি) বিরুদ্ধে মামলা হবে। তবে এর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংকের সহযোগিতা প্রয়োজন। তাদের সঙ্গেও আমাদের এ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

এছাড়া এ বিষয়ে ফেড ‘র অবস্থান বাংলাদেশের পক্ষে থাকবে কিনা- জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার মনে হয়, থাকবে। কারণ, তাদের মাধ্যমেই তো সবকিছু হয়েছে। এটা শুধু বাংলাদেশের বিষয় না। এটা বিশ্বব্যাপী। কেননা সারাবিশ্বের টাকা-পয়সা তারা রাখে। এটার সঙ্গে তাদের আস্থার বিষয়টিও জড়িত।

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব থেকে ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি হয়। ঘটনাটি ঘটে ২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি। পাঁচটি সুইফট বার্তার মাধ্যমে চুরি হয় এ অর্থ। যার মধ্যে শ্রীলঙ্কায় যায় ২ কোটি ডলার। বানান ভুলের কারণে কিছুদিনের মধ্যেই এই অর্থ ফেরত আসলেও ফিলিপাইনের আরসিবিসিতে যাওয়া ৮ কোটি ১০ লাখ ডলারের পুরোটা ফেরত আসেনি। ফেরত না আসা অর্থের পরিমাণ ৬ কোটি ৬৪ লাখ ডলার।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসআইএস