রিকশাচালকের সততা

.ঢাকা, শুক্রবার   ২৬ এপ্রিল ২০১৯,   বৈশাখ ১২ ১৪২৬,   ২০ শা'বান ১৪৪০

রিকশাচালকের সততা

 প্রকাশিত: ২০:২৪ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮   আপডেট: ২০:৩৪ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ময়ছের সেখ। পেশায় রিকশাচালক। নুন আনতে পান্তা ফুরোয় তার। দারিদ্রতা তার সার্বক্ষণিক সঙ্গী। তারপরও তিনি সুখী মানুষ। কারণ, তার আছে সততা।  

শনিবার পাবনার কাশীনাথপুরের বাবলু সিকদারের হারিয়ে যাওয়া আড়াই লাখ টাকা সমমূল্যের ইউএস ডলার ও ভিসা ফেরৎ দিয়ে আলোচিত হন তিনি। বেড়া উপজেলার নয়াবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা ময়ছের সেখ।  

আমেরিকা প্রবাসী বাবলু সিকদার জানান, শনিবার দুপুরে নয়াবাড়ি রোডে শাহীনুর জামে মসজিদের সামনে থেকে ময়ছের শেখের রিকশায় উঠি আমি। কিন্তু নেমে যাওয়ার সময় ভুলে ফেলে যাই আমার ব্যাগটি। যে ব্যাগে আমেরিকার ভিসা ও অন্যান্য জরুরি কাগজপত্র ছিল। এছাড়া বাংলাদেশি ৪০ হাজার টাকা ও ইউএস ডলার ছিল। যার মোট মূল্যমান আড়াই লাখ টাকা। রিকশাওয়ালা ময়ছের সেখ ব্যাগটি পেয়ে স্থানীয়দের দেখিয়ে এর মালিক বাবলু সিকদার এর নাম ঠিকানা খুঁজে বের করেন। এরপর তার হাতে ব্যাগটি তুলে দেন।

বাবলু বলেন, ‘ব্যাগে আমার আমেরিকা যাবার ভিসা ছিল। হারিয়ে গেলে বিপদে পড়তাম।’

ময়ছের বলেন, ‘২০ বছর ধরে রিকশা-ভ্যান চালাই। জীবনে এরকম আরো দু’য়েকবার টাকা-পয়সা পেয়েছি। কিন্তু পরের জিনিসের প্রতি লোভ করিনি। তাই মালিককে খুঁজে খুঁজে ফেরত দিয়েছি। আমার ছেলে-মেয়েকেও পরের জিনিস না নেয়ার শিক্ষা দিয়েছি।’

কাশীনাথপুরের বিজ্ঞান স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আলাওল হোসেন বলেন, ঘুষ-দুর্নীতি ভরা আমাদের এ সমাজ অনেক বড় শিক্ষা পেতে পারে এই দরিদ্র রিকসাওয়ালার থেকে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরআর