রাসূলের (সা.) বর্ণনায় জান্নাত লাভের মৌলিক ৪ আমল

ঢাকা, সোমবার   ১৩ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ৩০ ১৪২৭,   ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

রাসূলের (সা.) বর্ণনায় জান্নাত লাভের মৌলিক ৪ আমল

ধর্ম ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:০৩ ৩১ মে ২০২০   আপডেট: ১৬:০৫ ৩১ মে ২০২০

জান্নাত লাভের মৌলিক ৪ আমল একটি হলো- ইবাদত কেবলমাত্র আলাহর জন্যই করা এবং এতে কোনো প্রকার শিরক না করা।

জান্নাত লাভের মৌলিক ৪ আমল একটি হলো- ইবাদত কেবলমাত্র আলাহর জন্যই করা এবং এতে কোনো প্রকার শিরক না করা।

জান্নাত মুমিন মুসলমানের শেষ ঠিকানা। তাই আমাদের জানা থাকা দরকার কোন কোন কাজে আমরা জান্নাতের অধিকারী হবো।

হজরত আবু আইয়ূব আনসারী রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, ‘জনৈক ব্যক্তি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নিকট এসে বললেন, (হে নবী!) আপনি আমাকে এমন একটি আমল বলে দিন যা আমাকে জান্নাতের নিকটবর্তী করবে এবং জাহান্নাম থেকে দূরে সরিয়ে দেবে। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, একমাত্র আল্লাহ তায়ালার ইবাদাত করবে, তাঁর সঙ্গে কাউকে শরিক করবে না। সালাত কায়েম করবে, জাকাত দেবে ও নিজ আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষা করবে। লোকটি রওয়ানা করলে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাকে উদ্দেশ্য করে বললেন, সে যদি আদিষ্ট বিষয়গুলো আঁকড়ে ধরে রাখে তা হলে সে জান্নাতে যাবে।’ (সহিহ বুখারি, হাদিস নম্বর: ১৩৯৬; সহিহ মুসলিম, হাদিস নম্বর: ১৩)।

হাদিসটিতে আমরা দেখলাম, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তার সাহাবিকে চারটি মৌলিক কাজের কথা বলেছেন-

(১) ইবাদত কেবলমাত্র আলাহর জন্যই করা এবং এতে কোনো প্রকার শিরক না করা।

(২) নামাজ কায়েম করা। অর্থাৎ, পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ যথা সময়ে জামাতের সঙ্গে আদায় করা।

(৩) জাকাত যথাযথভাবে আদায় করা। (যখন তা ফরজ হয়)

(৪) আত্মীয়তার বন্ধন রক্ষা করে চলা (আর তা শরীয়তগ্রহণযোগ্য কারণ ছাড়া ছিন্ন না করা)।

দ্বীনের অন্য ফরযিয়্যাতগুলো আদায়ের পাশাপাশি স্বাভাবিক অবস্থায় এই কাজগুলো যদি কেউ নিষ্ঠার সঙ্গে করে যায়– আল্লাহর রাসূল (সা.) বলছেন, সে জান্নাতে প্রবেশ করবে। মহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে উক্ত আমলগুলো যথাযথ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে