রাষ্ট্রপতির ক্ষমায় মুক্তি পেলেন ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত বিপ্লব

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২০ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৭ ১৪২৬,   ১৬ শাওয়াল ১৪৪০

রাষ্ট্রপতির ক্ষমায় মুক্তি পেলেন ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত বিপ্লব

 প্রকাশিত: ০৭:৪০ ১০ অক্টোবর ২০১৮   আপডেট: ১০:৪৯ ১০ অক্টোবর ২০১৮

মুক্তির পর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে তাহের পুত্র বিপ্লব

মুক্তির পর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে তাহের পুত্র বিপ্লব

হত্যা মামলায় ফাঁসির দণ্ড পাওয়া লক্ষ্মীপুর পৌরসভার মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা আবু তাহেরের বড় ছেলে আফতাব উদ্দিন বিপ্লব রাষ্ট্রপতির বিশেষ ক্ষমায় মঙ্গলবার সকালে কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম হত্যা মামলায় মৃতুদণ্ড পাওয়া বিপ্লব ২০১৪ সালে কারাগারে থাকা অবস্থায় বিয়ে করে আলোচনার জন্ম দেন। মঙ্গলবার সকালে লক্ষ্মীপুর কারাগার থেকে মুক্তি পান বিপ্লব। সেখান থেকে লক্ষ্মীপুর শহরের বাসায় যান তিনি। পরে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দাদা বাড়িতে সময় কাটানোর ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন বিপ্লবের ছোটভাই জেলা যুবলীগের সভাপতি এ কে এম সালাহ উদ্দিন টিপু। পরে ঢাকায় তার বন্ধুদের সঙ্গে কাটানো কিছু মুহূর্তের ছবি ফেসবুকে দেন তিনি।

২০১১ সালে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান বিপ্লবের ফাঁসির সাজা মওকুফ করেন। পরের বছর আরো দুটি হত্যা মামলায় (কামাল ও মহসিন হত্যা) যাবজ্জীবন সাজা পাওয়া বিপ্লবের দণ্ড ১০ বছর করেন প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান।

২০১২ সালের ফিরোজ হত্যা মামলা থেকে বিপ্লবের নাম প্রত্যাহার করা হয়। এর আগে ২০০৯ সালে জাহেদ হত্যা ও এতিমখানায় অগ্নিসংযোগ মামলা থেকে বিপ্লবের নাম বাদ দেয়া হয়।

জানা গেছে, টানা ১০ বছর পলাতক থাকার পর ২০১১ সালে বিপ্লব আত্মসমর্পণ করেন। পরবর্তীতে রাষ্ট্রপতির বিশেষ ক্ষমতায় ফাঁসির দণ্ড মওকুফ ও জেল রেয়াত সুবিধা পেয়ে মুক্ত পান বিপ্লব।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ