রাতভর ধর্ষণ শেষে ছাত্রীকে ফেলে রাখা হয় হাসপাতালের সামনে

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৪ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ৩০ ১৪২৭,   ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

রাতভর ধর্ষণ শেষে ছাত্রীকে ফেলে রাখা হয় হাসপাতালের সামনে

শেরপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০২:২৫ ২৭ মে ২০২০  

গ্রেফতার মনিরুজ্জামান মনির

গ্রেফতার মনিরুজ্জামান মনির

মোবাইলে পরিচয়। সেই পরিচয়ের খাতিরে যুবকের কথায় দেখা করতে যান দশম শ্রেণির এক ছাত্রী। কিন্তু বখাটে যুবক তার এক বন্ধুর বাসায় আটকে রেখে রাতভর মেয়েটিকে ধর্ষণ করেন। একপর্যায়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে স্কুলছাত্রীকে হাসপাতালের সামনে ফেলে পালিয়ে যান তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছে শেরপুর সদর উপজেলার পাকুরিয়া ইউপির একটি গ্রামে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মনিরুজ্জামান মনিরসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকেলে মনিরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মনির শ্রীবরদী উপজেলার ঘুরজান এলাকার নূর হোসেনের ছেলে। তিনি এক সন্তানের বাবা।

সদর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, চার মাস আগে মনিরের সঙ্গে মোবাইলে পরিচয় হয় ওই ছাত্রীর। ২৪ মে বিকেলে দেখা করার কথা বলে মেয়েটিকে সদর উপজেলার পাকুরিয়া ইউপির এক বন্ধুর বাড়িতে নিয়ে যান মনির। সেখানে আটকে রেখে রাতভর তাকে ধর্ষণ করা হয়। একপর্যায়ে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে সদর হাসপাতালের সামনে ফেলে পালিয়ে যান। পরে গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ ও স্বজনরা।

ওসি আরো জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী ছাত্রী। পরে সোমবার রাতভর অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি মনির ও তার দুই সহযোগীকে গ্রেফতার করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর