.ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৬ মার্চ ২০১৯,   চৈত্র ১২ ১৪২৫,   ১৯ রজব ১৪৪০

ইয়েমেন থেকে পালানোর পথ খুঁজছে সৌদি জোট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: international-desk

 প্রকাশিত: ১০:৪০ ৮ নভেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১০:৪০ ৮ নভেম্বর ২০১৮

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিই

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিই

ইয়েমেনে নিজেদের তৈরি করা চোরাবালি থেকে কিছুটা হলেও সম্মান নিয়ে সরে পড়তে চাইছে পশ্চিমা মদদপুষ্ট সৌদি জোট ও মার্কিন সরকার। 

ইয়েমেনে একের পর এক সামরিক ব্যর্থতা ও বিশ্ব-জনমতের চাপের মুখে সম্প্রতি সৌদি জোটের গডফাদার মার্কিন সরকার ইয়েমেনে যুদ্ধ বন্ধ করতে রিয়াদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

ইয়েমেনের পশ্চিমাঞ্চলীয় উপকূলে হুদায়দা বিমানবন্দরের কাছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের সাম্প্রতিক বড় ধরণের হামলা আগ্রাসী সৌদি জোটের জন্য বড় ধরণের বিপর্যয়ে ডেকে এনেছে। ইয়েমেনের বিপ্লবী সরকারের অনুগত বাহিনীর পাল্টা হামলায় ২০০'রও বেশি সৌদি সেনা হতাহত হয়েছে বলে খবর এসেছে। 

সৌদি জোটের পক্ষ থেকে সফল হামলা চালানোর দাবি প্রচার করা হলেও ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া সারিই তুলে ধরেছেন অভিযানের বাস্তব চিত্র। 

তিনি গতকাল সৌদি-জোটের ভয়াবহ হামলা ব্যর্থ করার খবর দিয়ে বলেছেন, সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের কয়েক ডজনেরও বেশি সেনার লাশ এখনও রণক্ষেত্রে পড়ে আছে। নিহতদের মধ্যে  সুদানের ২৫ জন ভাড়াটে সেনাও রয়েছে বলে তিনি জানান। আগ্রাসীদের ১৯টি সাঁজোয়া যান ধ্বংস হয়েছে বলেও জেনারেল ইয়াহিয়া সারিই জানান। 

সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট প্রায় ৫ মাস ধরে হুদায়দা সমুদ্র বন্দর দখলের জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছে। কিন্তু ইয়েমেনের গণ-বাহিনী ও সশস্ত্র বাহিনীর প্রবল প্রতিরোধের মুখে এসব প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। ইয়েমেনে জরুরি ওষুধ ও খাদ্যসহ মানবিক ত্রাণ সাহায্যের ৭০ শতাংশই আসে এই হুদায়দা সমুদ্রবন্দর দিয়ে। আলহুদায়দা বন্দরটি লোহিত সাগরের তীরে অবস্থিত  হওয়ায় সামরিক ও রাজনৈতিক কারণে এর গুরুত্বও অপরিসীম। 

ইয়েমেনে সৌদি জোটের একের পর এক সামরিক ব্যর্থতা ও বিশ্ব-জনমতের চাপের মুখে সম্প্রতি সৌদি জোটের গডফাদার মার্কিন সরকার ইয়েমেনে যুদ্ধ বন্ধ করতে রিয়াদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। এ থেকে বোঝা যায় ইয়েমেনে নিজেদের তৈরি করা চোরাবালি থেকে কিছুটা হলেও সম্মান নিয়ে সরে পড়তে চাইছে পশ্চিমা মদদপুষ্ট সৌদি জোট ও মার্কিন সরকার। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরআই