Alexa রাজশাহীতে ভোটের প্রচারে ৩০ হাজার নারী

ঢাকা, শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯,   আশ্বিন ৬ ১৪২৬,   ২১ মুহররম ১৪৪১

Akash

রাজশাহীতে ভোটের প্রচারে ৩০ হাজার নারী

রাজশাহী প্রতিনিধি

 প্রকাশিত: ১৮:৪৩ ২০ ডিসেম্বর ২০১৮   আপডেট: ১৮:৪৩ ২০ ডিসেম্বর ২০১৮

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

নির্বাচন যতোই কাছে আসতে ততোই বাড়ছে প্রচারণার গতি। পুরুষ ভোটারদের ঘরের বাইরে পেলেও সব নারী ভোটারদের পাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তাই নারী নেতাকর্মীদের কার্যক্রম বাড়িয়ে মাঠে নামিয়েছে দলগুলো। পাশাপাশি প্রচারণায় নামানো হয়েছে হাজার হাজার ভাড়াটে নারী কর্মী। প্রতিদিন ১০০ থেকে ২০০ টাকায় এসব নারী কর্মীরা ঘরে ঘরে গিয়ে নারীদের কাছে প্রতীক ও প্রার্থীর প্রচারণা চালিয়ে আসছে।

এতে প্রার্থীদের প্রচার যেমন হচ্ছে একদিন দিয়ে অন্যদিকে রাজশাহী মহানগরীসহ নির্বাচনী ৬টি আসনে ৩০ হাজারের বেশি নারীর সামান্য কয়েকদিনের জন্য হলেও আয় বেড়েছে। তাদের বেশিরভাগই গৃহকর্মী থেকে শুরু করে সমাজের নিম্নবিত্ত পরিবারের নারী। তারা দল বেঁধে বেরিয়ে পড়ছেন প্রচারে। কেউ এক বেলা চুক্তিতে আবার কেউ দুই বেলা চুক্তিতে নির্বাচনের মাঠে নেমেছেন। প্রার্থীদের লিফলেট-পোস্টার নিয়ে যাচ্ছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। অল্প কয়েকদিনের জন্য হলেও এমন বাড়তি আয়ে প্রচারের কাজে নিয়োজিত নারীরা বেশ খুশি।

নির্বাচনী কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন রাজশাহী মহানগরীর দড়িখরবোনা এলাকার জমিলা বেওয়া (৫৫)। তিনি বলেন, তাদের নির্দিষ্ট কোনো প্রার্থী নাই। যেদিন যারা তাদের প্রচার কাজে ভাড়া নিচ্ছেন তারা সেদিন তাদের পক্ষেই প্রচারপত্র নিয়ে পাড়া-মহল্লায় ছুটছেন। এক বেলা কাজ করলে ১০০ টাকা আর দুই বেলা কাজ করলে ২০০ থেকে ২৫০ টাকা আয় হচ্ছে।

ভোট প্রচারনায় নেমেছেন মহানগরীর উপশহর এলাকার সোহাগী খাতুন (২৩)। তিনি বলেন, সকাল আমি বাসা-বাড়িতে কাজ করি। বিকেল বেলাতে কোন কাজ থাকে না। গত কয়েকদিন ধরে আমি পোস্টার প্রচারনার কাজে নেমেছি। মাত্র ২ থেকে ৩ ঘণ্টা খেটে ১০০ থেকে ১৫০ টাকা আয় হচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের পবা উপজেলার এক আওয়ামী লীগের নেতা জানান, প্রার্থীর পক্ষে হাটে, বাজারে ঘুরে পুরুষ ভোটারের কাছে যাওয়া সম্ভব হয়। কিন্তু বাড়ি বাড়ি গিয়ে নারী ভোটারদের কাছে যাওয়া সম্ভব নয়। অথচ মোট ভোটারের অর্ধেক নারী ভোটার। সে কারণে নারী ভোটারদের কাছে প্রতীক ও প্রার্থীর প্রচারণা পৌছাতে এ ব্যবস্থা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম