রাজশাহীকে ছোট সংগ্রহে আটকে দিল রংপুর

ঢাকা, সোমবার   ১৭ জুন ২০১৯,   আষাঢ় ৫ ১৪২৬,   ১২ শাওয়াল ১৪৪০

রাজশাহীকে ছোট সংগ্রহে আটকে দিল রংপুর

ক্রীড়া প্রতিবেদক

 প্রকাশিত: ১৫:১৮ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৫:২২ ১৩ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ(বিপিএল) টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আজকের খেলায় মুখোমুখি হয়েছে রংপুর রাইডার্স ও রাজশাহী কিংস। টস জিতে শুরুতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন রংপুরের অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। আর এতেই মেহেদি হাসান মিরাজের রাজশাহী কিংসকে ১৩৫ রানের ছোট সংগ্রহে আটকে দিল রাইডার্স। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে খেলাটি শুরু হয়েছে দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে।

রোবাবার টস হেরে ব্যাটে নামে রাজশাহী কিংসের মুমিনুল হক ও অধিনায়ক মেহেদি হাসান মিরাজ। দ্বিতীয় ওভারে মাশরাফীর প্রথম বলে শফিউলের উড়ন্ত ক্যাঁচে রানের খাতা খোলার আগেই ফিরল রাজশাহীর অধিনায়ক মেহেদি হাসান মিরাজ। দলীয় ৩৩ রানে সোহাগ গাজীর বলে স্ট্যাম্পিং হয়ে ফেরেন মুমিনুল হক(১৪)। মুমিনুলের পরপরই ক্যাঁচ দিয়ে ফিরে যায় সৌম্য সরকার(১৮)।

জাকির হোসেন ও মোহাম্মাদ হাফিজের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়াচ্ছিল রাজশাহী। কিন্তু অসাবধানতাবশত রান আউট হয়ে জুটি ভাঙেন হাফিজ(২৬)। লরি ইভান্স ও দাঁড়াতে পারল না। ক্যাঁচ হয়ে ফিরল লরি ইভান্স(২)। 

রায়ান টেন ডেয়েসকাটে(১৪) ও ফেরেন রান আউট হয়ে। ইসুরু উদানা(৮) ক্যাঁচ ও আরাফাত সানি(১) বোল্ড আউট হয়ে ঘরে ফিরলে। আর এগোতে পারে না রাজশাহী। ততক্ষুনে ওভার শেষ হয়ে যাওয়ায় রাজশাহীর সংগ্রহ ১৩৫ রান। ১৩৬ রানের ছোট লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামবে রংপুর রাইডার্স। 

এবারের আসরে চার ম্যাচে দুই জয় ও দুই হারে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে আছে মাশরাফীর রংপুর। অন্যদিকে এ পর্যন্ত ৩ ম্যাচ খেলে ১টি জয় ও দুইটি হার নিয়ে টেবিলের তলানিতে (ষষ্ঠ স্থানে) আছে মেহেদী হাসান মিরাজের রাজশাহী। তাদের পয়েন্ট দুই।

রাজশাহী কিংস : মুমিনুল হক, মেহেদি হাসান মিরাজ (অধিনায়ক), সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ হাফিজ, রায়ান টেন ডেয়েসকাটে, জাকির হাসান (উইকেটরক্ষক), লরি ইভানস, আরাফাত সানি, কামরুল ইসলাম, ইসুরু উদানা, মোস্তাফিজুর রহমান।

রংপুর রাইডার্স : ক্রিস গেইল, রিলে রুশো, মোহাম্মদ মিঠুন (উইকেটরক্ষক), রবি বোপারা, বেনি হাওয়েল, মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা (অধিনায়ক), নাহিদুল ইসলাম, ফারহাদ রেজা, সোহাগ গাজী, শফিউল ইসলাম, নাজমুল ইসলাম অপু।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস