Alexa ‘রাজনীতির ইনস্টিটিউট হবে মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ’

ঢাকা, সোমবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯,   অগ্রহায়ণ ২৪ ১৪২৬,   ১১ রবিউস সানি ১৪৪১

‘রাজনীতির ইনস্টিটিউট হবে মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:২১ ২ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ২২:২৭ ২ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সভাপতি আবু আহমেদ মান্নাফি বলেছেন, রাজনীতির ইনস্টিটিউট হিসেবে মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগকে গড়ে তোলা হবে।

সোমবার ১৯ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ দক্ষিণ আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক কার্যালয়ে নতুর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে ওয়ার্ড সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের ফুলের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। 

আবু আহমেদ মান্নাফি বলেন, প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশনা দিয়েছেন সে অনুযায়ী ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগকে পরিচালনা করা হবে। তিনি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলনকে সফল করার জন্য নিদর্শনা দিয়েছেন। সেভাবেই নেতাদের নিয়ে প্রস্তুতি নিচ্ছি। সভাপতির নিদর্শনা অনুযায়ী নতুন কমিটিতে ত্যাগী নেতাদের স্থান দেয়া হবে।

তিনি বলেন, কোনো ভাবেই বিতর্কিত নেতাদের স্থান পাওয়ার সুযোগ নেই। তাছাড়া বিতর্কিত নেতাদের নাম বাদ দিয়ে কমিটি করা হবে। আমরা সেভাবেই নেতাদের সুসংগঠিত করার জন্য প্রক্রিয়া শুরু করছি।

সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ত্যাগী ও নিবেদিত নেতাদের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। যারা স্বেচ্ছাচারিতার মাধ্যমে কমিটিতে স্থান পেয়েছেন তারা নতুন কমিটিতে বাদ পড়বেন। ক্যাসিনো সম্পৃক্ততা, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, অনুপ্রবেশকারীসহ কোনো অপরাধী কমিটিতে জায়গা পাবে না। 

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি খন্দকার এনায়েত উল্লাহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল চৌধুরী ও ডাক্তার দিলিপ কুমার, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আশরাফ তালুকদার, হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আকতার হোসেন, প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে উত্তর ও দক্ষিণের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জাআ/আরএইচ