Exim Bank Ltd.
ঢাকা, বুধবার ২৩ জানুয়ারি, ২০১৯, ১০ মাঘ ১৪২৫

রাজধানীতে শিক্ষক-কর্মচারীদের অবস্থান ৫ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিবেদকডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম
রাজধানীতে শিক্ষক-কর্মচারীদের অবস্থান ৫ অক্টোবর
ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

চাকুরী জাতীয়করণের দাবিতে ৫ অক্টোবর বিশ্ব শিক্ষক দিবসে ঢাকায় অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের চাকুরী জাতীয়করণ বাস্তবায়ন কমিটি।

শনিবার ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মো. সেলিম ভূঁইয়া লিখিত বক্তব্যে র্কমসূচিটি ঘোষণা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মাওলানা মো. দেলোয়ার হোসেন, অধ্যাপক মো. আলমগীর হোসেন, অধ্যাপক কাজী মুহাম্মদ মাইন উদ্দীন, অধ্যক্ষ সেলিম মিয়া, মাহবুব আলম, প্রিন্সিপাল হাবিবুর রহমান, অধ্যাপক মো. হোসেন রানা, অধ্যাপক রোকেয়া চৌধুরী বেবী ও অধ্যাপক রাশেদুল ইসলাম প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে অধ্যক্ষ মো. সেলিম ভূঁইয়া বলেন, ২০১৫ জুলাই থেকে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বৈশাখী ভাতা ৫% বার্ষিক প্রবৃদ্ধি দিয়ে আসছেন গভর্ণমেন্ট। যা স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা শিক্ষক কর্মচারীরাও পেয়ে আসছেন। কিন্তু বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা শিক্ষক কর্মচারীদের এখনও সেই ভাতা প্রদান না করে বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের সঙ্গে বিমাতাসুলভ আচরণ করে আসছেন সরকার।

তিনি বলেন, রাজনীতির গুণগত মান পরিবর্তন করতে হলে মহান জাতীয় সংসদে শিক্ষকদের জন্য আসন সংরক্ষিত রাখতে হবে। বর্তমানে রাজনৈতিক দলগুলো রাজনীতির বাহির থেকে যে সকল ব্যক্তিদের দলে টেনে নিয়ে আসেন তাদের মধ্যে এমন ব্যক্তিও আছেন যারা কেউ কেউ স্কুলের গণ্ডি পার হতে পারেনি। সমাজে সন্ত্রাসী ও গডফাদার তৈরি বন্ধ করতে হলে শিক্ষকদের আইন প্রণয়নের অংশীদার করতে হবে। এই জন্য মহান সংসদে ১০% নারী আসন শিক্ষকদের জন্য সংরক্ষণ রাখতে হবে।

অধ্যক্ষ মো. সেলিম ভূঁইয়া বলেন, প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ হলে সরকারকে প্রদান করতে হবে মোট ১৬২৭০ কোটি টাকা প্রায়। বর্তমান সরকার বেতন বাবদ প্রদান করছে ১০৪৫০ কোটি টাকা। অতিরিক্ত প্রদান করতে হবে প্রায় ৫৮২০ কোটি টাকা। প্রতিষ্ঠান থেকে সরকারের আয় হবে প্রায় ৫ হাজার ৯০০ কোটি টাকা। ডিগ্রী পর্যায় পর্যন্ত শিক্ষক কর্মচারীদের চাকুরী জাতীয়করণ করলে সরকারের আয় হবে ৮০ কোটি টাকা প্রায়। বর্তমানে যে হারে শিক্ষকরা নির্যাতিত হচ্ছেন এবং চাকুরী হারাচ্ছেন, তা ভাষায় বর্ণনা করা যায় না। রাজনৈতিক দলের লোকেরা অর্থের বিনিময়ে বেসরকারি স্কুল কলেজ ও মাদ্রাসায় অযোগ্য ব্যক্তিদের চাকুরী দিচ্ছেন। এ অবস্থা থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে রক্ষা করতে হলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের চাকুরী জাতীয়করণ করতে হবে।

তিনি বলেন, বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের চাকুরী জাতীয়করণের দাবিতে আমরা সরকারকে বহুবার আল্টিমেটাম দেয়া সত্ত্বেও সরকার আমাদের দাবির প্রতি সামান্য সহানুভূতিশীল হননি। এমনকি আমাদের সাথে কোন প্রকার আলোচনার প্রয়োজীয়নতাও অনুভব করেনি। তাই ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে চাকুরী জাতীয়করণের ঘোষণা দেয়া না হলে আগামী ৫ অক্টোবর ঢাকায় অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দিচ্ছি। চাকুরী জাতীয়করণের ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। ১৮টি সংগঠনের বৃহত্তম এই মোর্চা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলানোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ/আরআই

আরোও পড়ুন
সর্বাধিক পঠিত
নতুন হাইস্পিড রেলে ঢাকা থেকে ৫৪ মিনিটে চট্টগ্রাম
নতুন হাইস্পিড রেলে ঢাকা থেকে ৫৪ মিনিটে চট্টগ্রাম
সেলফিতে মাশরাফী দম্পতি
সেলফিতে মাশরাফী দম্পতি
বাংলাদেশের মাঝে এক টুকরো ‌'কাশ্মীর'!
বাংলাদেশের মাঝে এক টুকরো ‌'কাশ্মীর'!
বঙ্গোপসাগরে স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার যন্ত্রযুক্ত কচ্ছপ উদ্ধার
বঙ্গোপসাগরে স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার যন্ত্রযুক্ত কচ্ছপ উদ্ধার
‘মা’ গানে মাতালেন নোবেল, কাঁদালেন মঞ্চ (ভিডিও)
‘মা’ গানে মাতালেন নোবেল, কাঁদালেন মঞ্চ (ভিডিও)
এমপি হচ্ছেন মৌসুমী!
এমপি হচ্ছেন মৌসুমী!
মদের চেয়ে দুধ ক্ষতিকর: মার্কিন পুষ্টিবিদ
মদের চেয়ে দুধ ক্ষতিকর: মার্কিন পুষ্টিবিদ
পাসওয়ার্ড না দেয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারল স্ত্রী
পাসওয়ার্ড না দেয়ায় স্বামীকে পুড়িয়ে মারল স্ত্রী
স্ত্রীর ‘বিশেষ’ আবেদনে মলম মাখিয়ে বিপাকে স্বামী!
স্ত্রীর ‘বিশেষ’ আবেদনে মলম মাখিয়ে বিপাকে স্বামী!
বিয়েতে সৌদি নারীদের পছন্দের শীর্ষে বাংলাদেশি পুরুষরা!
বিয়েতে সৌদি নারীদের পছন্দের শীর্ষে বাংলাদেশি পুরুষরা!
সোমবার ‘চন্দ্রগ্রহণ’
সোমবার ‘চন্দ্রগ্রহণ’
ফুলশয্যার রাতে স্ত্রীর কাছে কী চায় স্বামী
ফুলশয্যার রাতে স্ত্রীর কাছে কী চায় স্বামী
শুধুই নারীসঙ্গ পেতে পর্যটকরা যেসব দেশে ভ্রমণ করেন
শুধুই নারীসঙ্গ পেতে পর্যটকরা যেসব দেশে ভ্রমণ করেন
মৃত মানুষের বাড়িতে কান্না করাই তাদের পেশা!
মৃত মানুষের বাড়িতে কান্না করাই তাদের পেশা!
পালিয়ে বিয়ে করলে আশ্রয় দেবে পুলিশ
পালিয়ে বিয়ে করলে আশ্রয় দেবে পুলিশ
ষাট বছরের বরের সঙ্গে ১৫ বছরের কনে!
ষাট বছরের বরের সঙ্গে ১৫ বছরের কনে!
বিয়ের খবর প্রকাশ করলেন সালমা
বিয়ের খবর প্রকাশ করলেন সালমা
গণিতে ভীত ছাত্রী এখন নাসার ইঞ্জিনিয়ার
গণিতে ভীত ছাত্রী এখন নাসার ইঞ্জিনিয়ার
শাহনাজের স্কুটি উদ্ধার, হিরো পুলিশ
শাহনাজের স্কুটি উদ্ধার, হিরো পুলিশ
বৃক্ষমানবের হাতে পায়ে ফের শেকড়
বৃক্ষমানবের হাতে পায়ে ফের শেকড়
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জ-১ আসনে উপনির্বাচনও ২৮ ফেব্রুয়ারি কিশোরগঞ্জ-১ আসনে উপনির্বাচনও ২৮ ফেব্রুয়ারি প্রথম দফা উপজেলা নির্বাচন ৮ বা ৯ মার্চ প্রথম দফা উপজেলা নির্বাচন ৮ বা ৯ মার্চ সংরক্ষিত আসনে তফসিল ৩ ফেব্রুয়ারি সংরক্ষিত আসনে তফসিল ৩ ফেব্রুয়ারি ২৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদে উপনির্বাচন, একই দিন দুই সিটির নতুন ৩৬টি ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণ ২৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদে উপনির্বাচন, একই দিন দুই সিটির নতুন ৩৬টি ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণ এরশাদ এখন নার্সের সহযোগিতায় চলাফেরা করছেন, বিকেল ৩টায় সিঙ্গাপুর থেকে ডেইলি বাংলাদেশকে মেজর (অব.) খালেদ আখতার এরশাদ এখন নার্সের সহযোগিতায় চলাফেরা করছেন, বিকেল ৩টায় সিঙ্গাপুর থেকে ডেইলি বাংলাদেশকে মেজর (অব.) খালেদ আখতার